বাংলা নিউজ > ময়দান > ফিল্মি কায়দায় বন্দুক ঠেকিয়ে অপহরণ করা হয়েছিল কিংবদন্তি ক্রিকেটারকে!
অপহৃত কিংবদন্তি ক্রিকেটার স্টুয়ার্ট ম্যাকগিলের ফাইল ছবি(ছবি:গুগল)
অপহৃত কিংবদন্তি ক্রিকেটার স্টুয়ার্ট ম্যাকগিলের ফাইল ছবি(ছবি:গুগল)

ফিল্মি কায়দায় বন্দুক ঠেকিয়ে অপহরণ করা হয়েছিল কিংবদন্তি ক্রিকেটারকে!

  • ১৪ এপ্রিল সিডনির বাড়ি থেকে অপহরণ করা হয় ম্যাকগিলকে। অস্ট্রেলিয়া পুলিশের বক্তব্য, ঘটনার দিন উত্তর সিডনির রাস্তায় একজন হঠাৎই ম্যাকগিলের পথ আটকায়। এরপর আরও দু’জন সেখানে এসে ৫০ বছর বয়সী এই প্রাক্তন ক্রিকেটারকে গাড়িতে তুলে নেয়।

অপহরণের শিকার হলেন অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন এই লেগ স্পিনার। অপহৃত হযেছিলেন স্টুয়ার্ট ম্যাকগিল। তবে অপহরণের এই ঘটনা ঘটেছিল চলতি বছরের গত মাসে। পুলিশ সুত্রে জানা গেছে ঘটনাটি ঘটেছে গত মাসের ১৪ই এপ্রিল। যদিও ‌অস্ট্রেলিয়ার এই প্রাক্তন স্পিনারকে এক ঘণ্টার মধ্যেই অপহরণকারীরা ছেড়ে দিয়েছিলেন। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। 

সুত্রের খবর অনুযায়ি, ১৪ এপ্রিল রাত আটটা নাগাদ এক ব্যক্তির সঙ্গে ঝামেলা হয় ম্যাকগিলের। তিনি ছিলেন মারিনো সোতিরোপৌলুস। সম্পর্কে যিনি ম্যাকগিলের বান্ধবী মারিয়া ও’মিঘারের ভাই। নিউট্রাল বে-তে অ্যারিস্টটল নামে একটি রেস্তোরাঁর মালিক মারিনো। সেই রেস্তোরাঁতেই ম্যাকগিল ম্যানেজার হিসেবে কাজ করেন। অপহরণের দায়ে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে তাঁর বান্ধবীর ভাইকে। বুধবার সকালে চার জন ব্যক্তিকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পুলিশ সুত্রে জানা গিয়েছে, ১৪ এপ্রিল সিডনির বাড়ি থেকে অপহরণ করা হয় ম্যাকগিলকে। অস্ট্রেলিয়া পুলিশের বক্তব্য, ঘটনার দিন উত্তর সিডনির রাস্তায় একজন হঠাৎই ম্যাকগিলের পথ আটকায়। এরপর আরও দু’জন সেখানে এসে ৫০ বছর বয়সী এই প্রাক্তন ক্রিকেটারকে গাড়িতে তুলে নেয়। নিউ সাউথ ওয়েলস পুলিশ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘ক্রেমোর্ন গত ১৪ এপ্রিল রাত ৮টার সময় ঘটনাটি ঘটে। অপহৃত ব্যক্তিকে ব্রিনগেলি এলাকার একটি বাড়িতে নিয়ে গিয়ে মারধোর করা হয়। বন্দুক দেখিয়ে হুমকি দেওয়া হয়। এক ঘণ্টা পরে বেলমোর এলাকায় ওই ব্যক্তিকে নামিয়ে দেয় দুষ্কৃতীরা’। সুত্রের মারফত জানতে পারা গিয়েছে, এই সময় ম্যাকগিলের পরিবারের কাছ থেকে অপহরণকারীরা অর্থ চায়। 

২০ এপ্রিল পুলিশকে ঘটনাটি জানানো হয় এবং থানায় ডায়েরি করা হয়। তার ভিত্তিতে পুলিশ তদন্ত শুরু করে। প্রায় দু’সপ্তাহ তদন্ত করার পরে অজি পুলিশ চারজনকে গ্রেফতার করে। চার দুষ্কৃতির বয়স যথাক্রমে ২৭,২৯, ৪২ ও ৪৬ বছর। এই বিষয়ে এখনও কোনও বিবৃতি দেননি ম্যাকগিল।

১৯৯৮ সাল থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৪৪টি টেস্ট খেলেছেন ম্যাকগিল। উইকেট নিয়েছেন ২০৮টি। শেন ওয়ার্নের সঙ্গে জুটি বেঁধে বেশ কিছু ম্যাচে তিনি জিতিয়েছেন অস্ট্রেলিয়াকে। সেই সময় শেন ওয়ার্নের দাপট চললেও সুযোগ পেলেই বাইশ গজে নিজের ছাপ রেখেছেন ম্যাকগিল।

বন্ধ করুন