বাংলা নিউজ > ময়দান > 'আমি এখনও নিশ্বাস নিচ্ছি', বললেন ক্যান্সার জয়ী মহিলা টেনিস তারকা
ইতালির মহিলা টেনিস খেলোয়াড় ফ্রান্সেসকা শিয়াভোন (ছবি সৌজন্যে রয়টার্স)
ইতালির মহিলা টেনিস খেলোয়াড় ফ্রান্সেসকা শিয়াভোন (ছবি সৌজন্যে রয়টার্স)

'আমি এখনও নিশ্বাস নিচ্ছি', বললেন ক্যান্সার জয়ী মহিলা টেনিস তারকা

  • ইতালির হয়ে প্রথম গ্র্যান্ড স্লাম জয়ী মহিলা টেনিস খেলোয়াড় ফ্রান্সেসকা শিয়াভোন। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছোট্ট একটি ভিডিও আপলোড করে জানিয়ে দিলেন, শেষ সাত আট মাস তিনি কিভাবে ক্যান্সারের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়েছেন।

প্রাক্তন ফ্রেঞ্চ ওপেন চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সেসকা শিয়াভোন। যিনি সম্প্রতি মারণ রোগ ক্যান্সারকে হার মানিয়েছে আগের স্বাভাবিক জীবনে ফিরলেন। আর সেটাই নিজের ফ্যানদের সামনে তুলে ধরে সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখলেন, 'আমি এখনও নিশ্বাস নিচ্ছি।'

৩৯ বছর বয়সী ফ্রান্সেসকা শিয়াভোন ইতালির প্রথম মহিলা টেনিস খেলোয়াড়, যিনি ২০১০ সালে রোলাঁ গারোর গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতে ইতিহাস গড়ে ছিলেন। দীর্ঘদিন তিনি ছিলেন সবার চোখের আড়ালে। এবার সবার সামনে এসে ইনস্টাগ্রামে এক ভিডিও বার্তায় জানিয়ে দিলেন, এতদিন তিনি কোথায় ছিলেন?

ইনস্টাগ্রামে তিনি বলেন, 'হে বন্ধুগণ, শেষ সাত আট মাস আমি সোশ্যাল মিডিয়া এবং এই দুনিয়া থেকে অনেকটা দূরে ছিলাম। আমি তোমাদেরকে জানাতে চাই এই কদিনে আমার সঙ্গে কি হয়েছে।'

মাথার চুল প্রায় মুড়িয়ে ফেলা ফ্রান্সেসকা শিয়াভোন আরও বলেন, 'আমার ক্যান্সার হয়েছিল। আমি কেমোথেরাপি করিয়েছি। আমি একটা কঠিন লড়াই লড়েছি। যার ফলে আমি এখন নিঃশ্বাস নিতে পারছি। আমি এই লড়াইটা জিতেছি। আর এখন আমি নিজের আগের জায়গায় ফিরলাম।'

তবে, ফ্রান্সেসকা শিয়াভোন কি ধরনের ক্যান্সার আক্রান্ত হয়েছিলেন, সে বিষয়ে অবশ্য কিছুই বলেননি। ২০১৮ সালের ইউএস ওপেন অংশগ্রহণ করার পরই নিজের ২২ বছরের টেনিস ক্যারিয়ার শেষ করেন ফ্রান্সেসকা শিয়াভোন। ক্যারিয়ারে আটটি বড় খেতাবজয়ী ইটালির এই তারকা মহিলা টেনিস খেলোয়াড় ২০০৬, ২০০৯ এবং ২০১০ সালে ইতালির ফেড কাপ চ্যাম্পিয়ন দলের সদস্য ছিলেন।

বন্ধ করুন