বাংলা নিউজ > ময়দান > সাহায্যের হাত বাড়িয়েছিলেন কোহলিরা, যদিও বাঁচানো গেল না প্রাক্তন মহিলা ক্রিকেটারের মাকে
বিরাট কোহলি ও শ্রাবন্তী নাইডু। ছবি- টুইটার/গেটি।
বিরাট কোহলি ও শ্রাবন্তী নাইডু। ছবি- টুইটার/গেটি।

সাহায্যের হাত বাড়িয়েছিলেন কোহলিরা, যদিও বাঁচানো গেল না প্রাক্তন মহিলা ক্রিকেটারের মাকে

  • করোনায় মৃত্যু আরও এক মহিলা ক্রিকেটারের মায়ের।

শেষরক্ষা হল না। সব তরফেই চেষ্টায় ত্রুটি রাখা না হলেও বাঁচানো গেল না ভারতের প্রাক্তন মহিলা ক্রিকেটার শ্রাবন্তী নাইডুর মাকে। শনিবার বিকালে শ্রাবন্তীর মা এসকে সুমন করোনায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

শ্রাবন্তীর মা বেশ কিছুদিন ধরেই করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। তাঁর বাবাও করোনা আক্রান্ত। বাবা-মায়ের চিকিত্সায় প্রায় ১৬ লক্ষ খরচ করার পর শ্রাবন্তী বিসিসিআই ও হায়দরাবাদ ক্রিকেট সংস্থার কাছে সাহায্যের আবেদন করেছিলেন। খবর পাওয়া মাত্রই বিরাট কোহলি শ্রাবন্তীর মায়ের চিকিত্সার জন্য ৬.৭৭ লক্ষ টাকা দেন। যদিও শেষমেশ বাঁচানো গেল না শ্রাবন্তীর মাকে।

এক মাসের মধ্যে এই নিয়ে ভারতের তিনজন মহিলা ক্রিকেটারের মা মারা গেলেন করোনায়। প্রথমে বেদা কৃষ্ণমূর্তীর মাতৃবিয়োগ হয় করোনায়। পরে প্রিয়া পুনিয়ার মাও করোনায় মারা যান। এবার শ্রীবন্তীর মা শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন কোভিডে।

কোহলি ছাড়াও কঠিন সময়ে শ্রাবন্তীর পাশে দাঁড়ায় হায়দরাবাদ ক্রিকেট সংস্থা। তারা প্রাথমিকভাবে ৩ লক্ষ টাকা ও পরে আরও ২ লক্ষ টাকা শ্রাবন্তীকে দেওয়ার কথা জানায়। এও শোনা যাচ্ছে, যে হাসপাতালে শ্রাবন্তীর মায়ের চিকিত্সা চলছিল, তারা ৫.২৮ লক্ষ টাকা মেডিক্যাল বিল মকুব করেছে।

উল্লেখ্য, শ্রাবন্তী ২০০৫ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত দেশের হয়ে ১টি টেস্ট, ৪টি ওয়ান ডে ও ৬টি আন্তর্জাতিক টি-২০ খেলেছেন। সবমিলিয়ে ১২টি আন্তর্জাতিক উইকেট রয়েছেন তাঁর ঝুলিতে।

বন্ধ করুন