বাংলা নিউজ > ময়দান > ওই ধাক্কা সামলাতে বহুদিন সময় লাগে, ৩৬ অল আউটের ক্ষত এখনও তাজা রবি শাস্ত্রীর মনে
ভারতীয় কোচ থাকাকালীন রবি শাস্ত্রী। ছবি- রয়টার্স (Reuters)
ভারতীয় কোচ থাকাকালীন রবি শাস্ত্রী। ছবি- রয়টার্স (Reuters)

ওই ধাক্কা সামলাতে বহুদিন সময় লাগে, ৩৬ অল আউটের ক্ষত এখনও তাজা রবি শাস্ত্রীর মনে

  • অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ২০২১ সালের সিরিজ জয়ও তাঁর কাছে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে বলে জানান প্রাক্তন ভারতীয় কোচ।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পরেই ভারতীয় কোচ হিসেবে রবি শাস্ত্রীর সময়সীমা শেষ হয়। ২০১৭ প্রথমবার ভারতীয় দলের দায়িত্ব নেন শাস্ত্রী। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ছাড়া প্রতিটি আইসিসি টুর্নামেন্টেই ভারতীয় দল শাস্ত্রী জমানায় সেমিফাইনাল অব্ধি পৌঁছেছে। কিন্তু আইসিসি খেতাব জয়ের ব্যর্থতা বা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায়, কোনোটিকেই শাস্ত্রী নিজের জমানায় সব থেকে খারাপ সময় বলে মনে করেন না।

শাস্ত্রী জমানায় অধিক স্মরণীয় হয়ে থাকবে বিদেশের মাটিতে টেস্টে ভারতীয় দলের পারফরম্যান্স। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে পরপর সিরিজ জয়, ইংল্যান্ডে দাপুটে পারফরম্যান্স এইসবই শাস্ত্রীর সময়কালে হয়। তবে ভারতীয় ক্রিকেটে চিরকালে দাগ, অ্যাডিলেডে অজিদের বিরুদ্ধে ৩৬ রানে অল আউটও তাঁর সময়কালেই ঘটে। এই ঘটনাটিকেই প্রাক্তন ভারতীয় কোচ নিজের কোচিং কেরিয়ারের সবচেয়ে খারাপ সময় বলে চিহ্নিত করেছেন।   

The Week-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে শাস্ত্রী বলেন, ‘কোচ সবসময় সমালোচনার মুখে থাকে। এই প্রশেফনের এটা একটা অঙ্গ এবং প্রথম দিন থেকেই তার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। ৩৬ রানে অল আউট হওয়াটা আমার সময়কালের সবচেয়ে খারাপ সময়। রাতে আমাদের হাতে নয় উইকেট ছিল এবং পরের দিন ৩৬ রানে গোটা দল গুটিয়ে যায়। আর ৮০ রান মতো করলেই ম্যাচের ছবিটা কিন্তু ভিন্ন হতেই পারত। আমরা কিছুতেই ওটা বিশ্বাস করতে পারছিলাম না। ওই ধাক্কা সামলাতে সকলেরই বহুদিন সময় লাগে।’

তবে অ্যাডিলেডে ৩৬ রানে অল আউট হওয়ার লজ্জার পরেই ইতিহাস রচনা করে ভারতীয় দল। নাগাড়ে দ্বিতীয়বার অজিভূমে অস্ট্রেলিয়াকে সিরিজ হারান অজিঙ্কা রাহানেরা। ৩৬ রানে অল আউটের ক্ষত যেমন এখনই তাঁর স্মৃতিতে তাজা, সেই সিরিজ জয়ও সারাজীবন তাঁর মনে থাকবে বলেই দাবি শাস্ত্রীর।' ওই হারের পর আমি ছেলেদের বলি বাকি দিকে না তাকিয়ে নিজের খেলার ওপর ফোকাস করতে। গোটা দল তারপরে অবিশ্বাস্যভাবে ঘুরে দাঁড়ায়। ৩৬ রানে অল আউটের এক মাস পর ১৯ জানুয়ারি আমরা সিরিজ জিতি। আমি এখনও জানি না আমরা কীভাবে ওই সিরিজ জিতি। আমি নিশ্চিত আমৃত্যু লোকজন ওই সিরিজ মনে রাখবে।' বলেন প্রাক্তন ভারতীয় কোচ।

 

বন্ধ করুন