বাংলা নিউজ > ময়দান > শামির সাফল্যের নেপথ্যে KKR ও পাক প্রাক্তনী, ফাঁস করলেন মনোজ
শামির সাফল্যের পিছনে রয়েছেন কোন প্রাক্তন পাক ক্রিকেটারের হাত? (ছবি:পিটিআই)
শামির সাফল্যের পিছনে রয়েছেন কোন প্রাক্তন পাক ক্রিকেটারের হাত? (ছবি:পিটিআই)

শামির সাফল্যের নেপথ্যে KKR ও পাক প্রাক্তনী, ফাঁস করলেন মনোজ

মনোজ তিওয়ারি জানালেন, শামির সাফল্যের পিছনে কোন প্রাক্তন পাক ক্রিকেটারের হাত রয়েছে।

মঙ্গলবার দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে পাঁচ উইকেট নিয়ে টেস্টে দু’শো উইকেটের মাইলফলক ছুঁয়েছিলেন মহম্মদ শামি। কিন্তু উত্তরপ্রদেশ থেকে বাংলায় খেলতে না এলে তাঁর সাফল্যের দরজা কি এত দ্রুত খুলত? এই সাফল্যের পরে শামিকে বাংলার সুলতান বলেছেন ভারতের প্রাক্তন কোচ রবি শাস্ত্রী। বাংলার সঙ্গে শামির সম্পর্কটা একেবারেই অন্য রকম। সেটা বারবার উঠে এল মনোজ তিওয়ারি ও লক্ষ্মিরতন শুক্লদের গলায়। শামির রিভার্স সুইং মুগ্ধ করেছিল বাংলার বর্তমান কোচ অরুণ লালকেও। তিনি বলেন, ‘সে দিন মাঠে বসে ওর খেলা দেখেই বুঝেছিলাম, লম্বা রেসের ঘোড়া।’ 

লক্ষ্মীরতন শুক্লর নেতৃত্বে রঞ্জিতে অভিষেক করেছিলেন শামি। প্রথম বার বল করতে দেখেই মুগ্ধ হয়েছিলেন লক্ষ্মী। বাংলার প্রাক্তন অধিনায়ক বলেন, ‘বাংলার অনূর্ধ্ব-২৩ দলের নেটে ট্রায়াল দিতে এসেছিল ও। তখনই দেখছিলাম সিম পজ়িশন একেবারে সোজা। কোন দিকে ওর ডেলিভারি নড়াচড়া করবে, ধরা যেত না। সে দিনই প্রতিজ্ঞা করেছিলাম ওকে আমার দলে খেলাব। ওর জন্য গর্বিত। প্রচণ্ড পরিশ্রম করেছে, তার ফলই পাচ্ছে। তরুণ পেসারদের দেখা উচিত, ও কী ভাবে সিম সোজা রেখে বল করে চলেছে।’ সৌরাশিস লাহিড়ী বলেন, ‘অনেকেই বলেন যশপ্রীত বুমরাহ বর্তমানে ভারতের সেরা পেসার। আমি কিন্তু শামিকেই এক নম্বরে রাখব। ওর কোন ডেলিভারি কোন দিকে যাবে, বলা খুবই কঠিন। নতুন বলেও যতটা ভয়ঙ্কর, পুরানো বলেও রিভার্স সুইং ততটাই ভাল করায়।’  

প্রাক্তন পাক অধিনায়ক ওয়াসিম আক্রম শামির উন্নতির জন্য কতটা পরিশ্রম করেছিলেন সেটা জানেন মনোজ তিওয়ারি। মনোজ বলেন, ‘শামি আগে এ বিষয়ে কোথাও বলেছে কি না জানি না। তবে কেকেআর শিবিরে থাকাকালীন দেখতাম, ঘণ্টার পর ঘণ্টা ওকে ট্রেনিং করাতেন ওয়াসিম ভাই। ওর একটা সমস্যা ছিল, ওভারস্টেপ করে ফেলত। ওয়াসিম ভাইয়ের সঙ্গে ট্রেনিং করার পরে সেই প্রবণতা অনেকটাই কমে গিয়েছিল। আউটসুইং করানোর সময় কব্জি কোন জায়গায় থাকবে, ইনসুইংয়ের সময় কব্জি কী রকম রাখা উচিত, ওয়াসিম ভাই ওকে ধরে ধরে শেখাতেন।’ মনোজ আরও বললেন, ‘ওর মতো নিখুঁত অ্যাকশনের পেস বোলার দেখা যায় না। ময়দানে আগে কেউ বুঝতেই পারত না যে, ও ঘণ্টায় ১৪০ কিমি গতিতে বল করে। এতটা সুন্দর অ্যাকশন সত্যি দেখা যায় না। প্রত্যেকটা বল সিমে পড়ার জন্য অতিরিক্ত বাউন্স করে। অনেকটা গ্লেন ম্যাকগ্রার মতো ছোট সুইং আর কাট করায়। আমার মতে ক্রিকেটবিশ্বে এই মুহূর্তের সেরা পেসারের নাম মহম্মদ শামি।’

বন্ধ করুন