বাংলা নিউজ > ময়দান > গড়াপেটার দায়ে আট বছরের জন্য নির্বাসিত শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন অল-রাউন্ডার
আট বছরের জন্য নির্বাসিত হলেন দিলহারা (ফাইল ছবি)
আট বছরের জন্য নির্বাসিত হলেন দিলহারা (ফাইল ছবি)

গড়াপেটার দায়ে আট বছরের জন্য নির্বাসিত শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন অল-রাউন্ডার

২০১৭ সালে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে একটি টি-২০ টুর্নামেন্টে ম্যাচ গড়াপেটার সঙ্গে জড়িয়ে পড়ার অভিযোগ ওঠে সিংহলি তারকার বিরুদ্ধে।

ম্যাচ গড়াপেটা কাণ্ডে জড়িয়ে আট বছরের জন্য নির্বাসিত হলেন শ্রীলঙ্কার জাতীয় দলের প্রাক্তন অল-রাউন্ডার দিলহারা লকুহেত্তিগে। জুলাইয়ে ৪১-এ পা দেবেন দিলহারা। এর আগে আট বছরের জন্য সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত হয়েছেন জিম্বাবোয়ের প্রাক্তন অধিনায়ক ও কোচ হিথ স্ট্রিক। এবার সেই স্মৃতি উস্কে দিলেন দিলহারা।

২০১৬ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছিলেন। তারপরেই জড়িয়ে পড়েন ক্রিকেটজীবনের সব থেকে কলঙ্কিত অধ্যায়ের সঙ্গে। তাঁর বিরুদ্ধে, ২০১৭ সালে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে একটি টি-২০ টুর্নামেন্টে ম্যাচ গড়াপেটার সঙ্গে জড়িয়ে পড়ার অভিযোগ ওঠে। ম্যাচ গড়াপেটা কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত হতেই তাঁকে ২০১৯ সালের ৩ এপ্রিল সাসপেন্ড করা হয়েছিল।

ঘটনার সুত্রপাত ২০১৭ সালে। তখন শ্রীলঙ্কার একটি দল সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে একটি টি-২০ টুর্নামেন্ট খেলতে গিয়েছিল। ওই টুর্নামেন্টে দিলহারা ম্যাচ গড়াপেটার মাধ্যমে ম্যাচের ফলকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করেছিলেন বলে অভিযোগ ওঠে। ম্যাচ গড়াপেটায় জড়িয়ে থাকার একাধিক অভিযোগের পাশাপাশি তিনি সব তথ্য দুর্নীতিদমন শাখার কাছে গোপন রেখেছিলেন বলেও অভিযোগ করা হয়।

আল জাজিরার একটি তথ্যচিত্রে তাঁর এই কীর্তি প্রথম জনসমক্ষে আসে। চ্যানেলের স্টিং অপারেশনে লকুহেত্তিগে ও শ্রীলঙ্কার অপর এক ক্রিকেটারকে বেটিংয়ের প্রস্তাব দিলে তাঁদের কথোপকথনে চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে আসে। পরে আইসিসি-র দুর্নীতিদমন সংক্রান্ত বিধি লঙ্ঘনের দায়েই তাঁকে আট বছরের জন্য নির্বাসিত করা হয়। 

যদিও তাঁকে ২০১৯ সালের ৩ এপ্রিল সাসপেন্ড করা হয়েছিল, তাই সেই সময়কেই নির্বাসন শুরুর মেয়াদ হিসাবে ধরা হবে বলে জানিয়েছে আইসিসি।

বন্ধ করুন