বাংলা নিউজ > ময়দান > PSL-এর ম্যাচ করাচি থেকে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে সরানোর প্রস্তাব ফ্র্যাঞ্চাইজিদের
পিএসএলে ম্যাচ সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে করার প্রস্তাব।
পিএসএলে ম্যাচ সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে করার প্রস্তাব।

PSL-এর ম্যাচ করাচি থেকে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে সরানোর প্রস্তাব ফ্র্যাঞ্চাইজিদের

  • ১৪টি ম্যাচ হওয়ার পর করোনার জন্য পিএসএল বন্ধ করে দিতে হয়। ২০ ফেব্রুয়ারি থেকে ৩ মার্চের মধ্যে ১৪টি ম্যাচ হয়েছিল। তার পরে প্লেয়ার্স, সাপোর্ট স্টাফেরা করোনায় আক্রান্ত হতে থাকলে টুর্নামেন্টটি স্থগিত করা হয়েছিল।

করোনার জন্য মাঝপথে বন্ধ করে দিতে হল আইপিএল। যেমনটা মার্চ মাসে পিএসএল বন্ধ করতে হয়েছিল। এ বার তাই পিএসএলের বাকি ম্যাচগুলি করাচি থেকে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে সরানোর বিষয়ে উদ্যোগী হয়েছে টুর্নামেন্টের ছ'  ফ্র্যাঞ্চাইজি। তারা ইতিমধ্যেই পিসিবি-কে প্রস্তাব দিয়েছে, যেন পিএসএলের বাকি ম্যাচগুলি সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে করা হয়।

গত সপ্তাহে  পিএসএল-এর ছ'টি ফ্রাঞ্চাইজির তরফে একটি চিঠি পাঠানো হয় পিসিবি-কে। যেখানে লেখা ছিল, পাকিস্তানে করোনার বর্তমান পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে পিএসএল-এর বাকি ম্যাচ যেন সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে করা হয়। পিসিবি এই বিষয়ে ভাবনাচিন্তা করবে বলেও জানিয়েছে। 

২৩ মে পিএসএলের বিভিন্ন দলে প্লেয়ারদের যোগ দেওয়ার কথা। নিয়ম মেনে সাত দিনের কোয়ারেন্টাই থাকতে হবে প্রত্যেককে। ২ জুন থেকে গ্রুপ লিগের ম্যাচ শুরু হওয়ার কথা। চলবে ১৪ জুন পর্যন্ত। ১৬-১৮ জুন প্লে অফের ম্যাচ হওয়ার কথা। আর ফাইনাল হওয়ার কথা ২০ জুন।

কিন্তু বর্তমানে পাকিস্তানে করোনা সংক্রমণ তীব্র আকার নিয়েছে। শেষ সাত দিনে প্রতিদিন গড়ে সাড়ে চার হাজারের উপর মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। দেশের বিভিন্ন জায়গায় আংশিক লকডাউন চলছে। এই পরিস্থিতিতে পিএসএ ফ্রাঞ্চাইজিগুলি কোনও ভাবে ঝুঁকি নিতে চাইছে না।

এর আগে ১৪টি ম্যাচ হওয়ার পর করোনার জন্য পিএসএল বন্ধ করে দিতে হয়। ২০ ফেব্রুয়ারি থেকে ৩ মার্চের মধ্যে ১৪টি ম্যাচ হয়েছিল। তার পরে প্লেয়ার্স, সাপোর্ট স্টাফেরা করোনায় আক্রান্ত হতে থাকলে টুর্নামেন্টটি স্থগিত করা হয়েছিল। নতুন সূচি তৈরি হলেও করোনা আতঙ্ক থেকেই যাচ্ছে। যে কারণে এই টুর্নামেন্টের ফ্র্যাঞ্চাইজিরা কোনও রকম ঝুঁকি না নিয়ে, পিএসএলের বাকি ম্যাচগুলি যাতে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে করা যায়, সেই চেষ্টাই করছে।

বন্ধ করুন