বাংলা নিউজ > ময়দান > রোলাঁ গারোয় টুর্নামেন্টের নিয়ম মানতে রাজি নন, স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিলেন ওসাকা
নাওমি ওসাকা। ছবি- রয়টার্স (ফাইল চিত্র)। (REUTERS)
নাওমি ওসাকা। ছবি- রয়টার্স (ফাইল চিত্র)। (REUTERS)

রোলাঁ গারোয় টুর্নামেন্টের নিয়ম মানতে রাজি নন, স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিলেন ওসাকা

  • নিজের মধ্যে যাতে কোন সংশয় সৃষ্টি না হয়, সেই কারণেই তাঁর এই সিদ্ধান্ত।

বর্তমান করোনা আবহে একাধিক সমস্যার মধ্যে অন্যতম বড় চিন্তার বিষয় হল মানসিক স্বাস্থ্য। আবদ্ধ পরিসরে সবার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে থাকা অনেক মানুষের জন্যেই সমস্যার সৃষ্টি করছে। ক্রীড়াজগতের ব্যক্তিত্বরাও যে এর বাইরে নন তাঁর উদাহরণ সাম্প্রতিককালেই পাওয়া গেছে।

গ্লেন ম্যাক্সওয়েল কিছুদিন আগেই সাময়িকভাবে অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দল থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন। বিখ্যাত সাঁতারু মাইকেল ফেল্পসও মানসিক সমস্যায় ভোগার কথা স্বীকার করে নিয়েছেন। এ বার সেই তালিকায় সামিল হলেন বিশ্বের দুই নম্বর মহিলা টেনিস তারকা নাওমি ওসাকা। নিজের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে জাপানের তারকা সাফ জানিয়ে দিয়েছেন মানসিক স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে তিনি ফরাসি ওপেনে কোনরকম সাংবাদিক সম্মেলনে অংশগ্রহণ করবেন না।

নিজের পোস্টে ওসাকা লেখেন, ‘আমি এই লেখার মাধ্যমে জানাতে চাই যে রোলাঁ গারোর চলাকালীন আমি কোনরকম সাংবাদিক সম্মেলন করব না। আমার অসংখ্যবার মনে হয়েছে যে লোকেরা ক্রীড়াবিদদের মানসিক স্বাস্থ্যকে তেমন গুরুত্ব দেয় না এবং প্রতিটা সাংবাদিক সম্মেলনেই বারবার আমি সেই দৃশ্যই দেখতে পাই। হয় আমাদের এমন প্রশ্ন করা হয় যা আগেও একাধিকবার করা হয়েছে, নয়তো এমন কিছু জিজ্ঞেস করা হয় যাতে নিজের দক্ষতার ওপরই প্রশ্ন ওঠে। যে সব লোকেরা এইসব সন্দেহের সৃষ্টি করে, আমি কোনভাবেই তাঁদের আমার সঙ্গেও একই জিনিস করতে দেব না।’

ওসাকা দাবি করেন যে অনেকসময়ই যখন কোন খেলোয়াড় বিধ্বস্ত থাকেন তখন নানা ধরনের অযাচিত প্রশ্ন তাঁকে মানসিকভাবে আরও আঘাত করে। সেই কারণেই তিনি আরও এইসবের থেকে নিজেকে দূরে রাখতে চান। তবে টেনিস টুর্নামেন্টের নিয়ম অনুযায়ী সব খেলোয়াড়দেরই ম্যাচের পর সাংবাদিক সম্মেলন করা বাধ্যতামূলক। ২৩ বছর বয়সী টেনিস তারকা আশা করছেন সাংবাদিক সম্মেলন না করায় তাঁকে যে পরিমাণ অর্থ জরিমানা করা হবে, তাঁর সিংহভাগটাই কোন মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে কাজ করা স্বেচ্ছাসেবী সংস্থায় দান করা হবে।

বন্ধ করুন