বাংলা নিউজ > ময়দান > WHAT A FINAL! খাদের কিনারা থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে জকোভিচ চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় বিস্ময় লুকোতে পারলেন না সচিন
নোভাক জকোভিচ ও সচিন তেন্ডুলকর। ছবি- টুইটার।
নোভাক জকোভিচ ও সচিন তেন্ডুলকর। ছবি- টুইটার।

WHAT A FINAL! খাদের কিনারা থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে জকোভিচ চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় বিস্ময় লুকোতে পারলেন না সচিন

  • নোভাকের প্রতিপক্ষের প্রশংসা করতেও ভোলেননি মাস্টার ব্লাস্টার।

তাঁকে ক্রিকেটের ঈশ্বর বলে অভিহিত করা হলেও সচিন তেন্ডুলকর বারবর টেনিসের ভক্ত। ছেলেবেলায় জন ম্যাকেনরোর মতো হেড ব্যান্ড ও রিস্ট ব্যান্ড পরতেও অভ্যস্ত ছিলেন মাস্টার ব্লাস্টার। টেনিস নিয়ে আবেগের জন্যই রজার ফেডেরারে সঙ্গে তেন্ডুলকরের বন্ধুত্ব দীর্ঘদিনের। একদা বরিস বেকারের সঙ্গে দেখা করার পর রীতিমতো আপ্লুত দেখিয়েছিল কিংবদন্তি ক্রিকেটারকে। উইম্বলডনে প্রায় নিয়মিত খেলা দেখতেও যান সচিন।

এহেন সচিনের চোখ যে ফরাসি ওপেনার ফাইনালের দিকে থাকবে, তাতে আশ্চর্য হওয়ার কিছু নেই। তেন্ডুলকর সিসিপাস ও জকোভিচের মধ্যে রোলাঁ গারোর ফাইনাল ম্যাচ উপভোগ করেন টেলিভিশনের পর্দায়। রোমাঞ্চকর ম্যাচ দেখার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের অভিব্যক্তিও প্রকাশ করেন তিনি।

আসলে সচিন কার্যত অবাক, দু'সেটে পিছিয়ে পড়েও নোভাক জকোভিচ যেভাবে ঘুরে দাঁড়ান, তা দেখে। খাদের কিনারা থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে জোকার যেভাবে শেষমেশ চ্যাম্পিয়ন হন, তা অভিভূত করে তেন্ডুলকরকে।

এমন দুরন্ত টেনিস ম্যাচ দেখার পর নোভাককে কুর্নিশ জানান তেন্ডুলকর। তবে সিসিপাসের লড়াইয়ের প্রশংসা করতেও ভোলেননি ক্রিকেটের অবিসংবাদিত ভগবান।

সচিন টুইট করেন, ‘কী অসাধারণ ফাইনাল! কঠিন কিছু ম্যাচের পর নোভাকের দুরন্ত কামব্যাক। ও শারীরিকভাবে শক্তিশালী, ট্যাকটিক্যালি স্মার্ট এবং মানসিকভাবে অত্যন্ত দৃঢ়। সেকারণেই ও এই ফাইনাল জিততে সক্ষম হয়।’

সচিন আরও লেখেন, ‘সিসিপাসও অসাধারণ খেলল এবং আমি নিশ্চিত যে, সামনের বছরগুলোয় ও বেশ কিছু গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতবে।’

বন্ধ করুন