বাংলা নিউজ > ময়দান > ভারতীয় জুনিয়র টেনিস প্লেয়ারদের রাজকীয় আতিথেয়তা পাকিস্তানের
জুনিয়র টেনিস প্লেয়ারদের রাজকীয় আতিথেয়তা পাকিস্তানের।
জুনিয়র টেনিস প্লেয়ারদের রাজকীয় আতিথেয়তা পাকিস্তানের।

ভারতীয় জুনিয়র টেনিস প্লেয়ারদের রাজকীয় আতিথেয়তা পাকিস্তানের

  • ১৯৬৪ সালের পর থেকে পাকিস্তানের মাটিতে পা রাখেনি ভারতের ডেভিস কাপ দল। ২০০৭ সালে লাহোরে ফ্রেন্ডশিপ টুর্নামেন্টে শেষ বার খেলেছিল দুই দেশের সিনিয়র টেনিস তারকারা। সেই কারণেই ১২ বছর বয়সী ভারতীয় ছেলে এবং মেয়েদের হোস্ট করতে পেরে উচ্ছ্বসিত পাকিস্তানও।

শুভব্রত মুখার্জি : ভারত , পাকিস্তান দুই প্রতিবেশী দেশের রাজনৈতিক এবং কূটনৈতিক সম্পর্কের অবনতি দীর্ঘ দিন আগেই ঘটেছে। তার রেশ বর্তমানেও রয়ে গিয়েছে। এই আবহে দাঁড়িয়ে তার প্রভাব পড়েছে খেলার জগতেও। সেই ভাবে দুই দেশের মধ্যে এই মুহূর্তে খেলাধুলা খুব একটা হয় না বললেই চলে। সেই আবহে দাঁড়িয়েই এশীয় অনুর্ধ্ব-১২ টেনিস প্রতিযোগিতা খেলতে ইন্ডিয়ান টেনিস ফেডারেশন (আইটিএফ) নবীন খেলোয়াড়দের একটি দল পাকিস্তানে গিয়েছে। তাদের সুরক্ষা,স্বাস্থ্য এবং আতিথেয়তার ব্যাপারে কোন খামতি রাখা হচ্ছে না পাকিস্তানের তরফে। বলা ভাল রাজকীয় আতিথেয়তা পাচ্ছে ভারতীয় ক্রীড়াবিদরা।

১৯৬৪ সালের পর থেকে পাকিস্তানের মাটিতে পা রাখেনি ভারতের ডেভিস কাপ দল। ২০০৭ সালে লাহোরে ফ্রেন্ডশিপ টুর্নামেন্টে শেষ বার খেলেছিল দুই দেশের সিনিয়র টেনিস তারকারা। সেই কারণেই ১২ বছর বয়সী ভারতীয় ছেলে এবং মেয়েদের হোস্ট করতে পেরে উচ্ছ্বসিত পাকিস্তানও। ছেলেদের দলে রয়েছে আরব চাওলা, ওজাস মেহাওয়াত এবং রুদ্র বাথাম। মহিলা দলে রয়েছে মায়া রেবতি, হরিতশ্রী ভেঙ্কটেশ এবং জাহ্নবী কাজলা।

উল্লেখযোগ্য ভাবে ২০০৭ সালে ফ্রেন্ডশিপ সিরিজে ভারতীয় দলে থাকা আশুতোষ সিং এই মূহুর্তে ভারতীয় ছেলেদের দলের কোচ হয়ে পাকিস্তানে গিয়েছেন। দোহা বিমানবন্দরে নামার পর থেকেই ভারতীয়দের নিয়ে পাকিস্তানের জনসাধারণের উচ্ছ্বাসের কথা জানিয়েছেন আশুতোষ। ইমিগ্রেশন ডেস্কে পৌঁছানোর আগেই পাকিস্তান টেনিস ফেডারেশনের তরফে সমস্ত ক্লিয়ারেন্সের আয়োজন করে রাখা হয়েছিল। সুরক্ষা বলয় সব সময় তাঁদের খেয়াল রাখছে। ফলে ছেলে-মেয়েদের বাবা-মায়েরাও যথেষ্ট খুশি ছিলেন। মেয়েদের কোচ নমিতা বলও আয়োজন নিয়ে তাঁর সন্তোষের কথা স্পষ্ট করেই জানিয়েছেন। ছোট থেকে ছোট জিনিসের খেয়াল রাখছেন আয়োজকরা।

জাহ্নবী নিরামিষ খান। তার জন্য আলাদা করে ব্যবস্থা করা হয়েছে। সবার হয়ে অনুশীলনের জন্য কোর্টের ব্যবস্থা করা থেকে শুরু করে জলের ব্যবস্থা সব কিছুই সামাল দিচ্ছে পাকিস্তানের টেনিস ফেডারেশন। দক্ষিণ এশিয়ার রিজিওনাল কোয়ালিফাইং ইভেন্টে খেলবে ভারতীয় দল। প্রথম দুটি দল পরের রাউন্ডে নভেম্বর মাসে কাজাকিস্তানে খেলার সুযোগ পাবে।

বন্ধ করুন