বাংলা নিউজ > ময়দান > আকাশ দীপের কনকাশন পরিবর্ত হিসাবে মাঠে গীত পুরি! দ্বিতীয় দিনের পরে চাপে বাংলা

আকাশ দীপের কনকাশন পরিবর্ত হিসাবে মাঠে গীত পুরি! দ্বিতীয় দিনের পরে চাপে বাংলা

আকাশ দীপের কনকাশন পরিবর্ত হিসাবে মাঠে গীত পুরি

রঞ্জি ট্রফির কোয়ার্টার ফাইনালে আগেই নিজেদের জায়গা নিশ্চিত করেছে বাংলা। ওড়িশার বিরুদ্ধে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে নকআউটের মহড়াটা সেরে নিতে চেয়েছিল মনোজ তিওয়ারি অ্যান্ড কোম্পানি।

রঞ্জি ট্রফির কোয়ার্টার ফাইনালে আগেই নিজেদের জায়গা নিশ্চিত করেছে বাংলা। ওড়িশার বিরুদ্ধে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে নকআউটের মহড়াটা সেরে নিতে চেয়েছিল মনোজ তিওয়ারি অ্যান্ড কোম্পানি। তাতেও যেন একের এক ধাক্কা। ম্য়াচের আগের দিন পিচে অতিরিক্ত জল দেওয়ার ফলে অবাক করা কান্ড ঘটল ইডেনে। প্রথম দিন পিচ ভেজা থাকায় চার ঘণ্টা দেরীতে শুরু হল খেলা। প্রথম দিন মাত্র ৩৫ ওভার খেলা হল। দ্বিতীয় দিন বাংলার বোলারদের নিয়ন্ত্রিত পারফরম্যান্স দেখা গেলেও। প্রতিপক্ষ ওড়িশাকে ২৬৫ রানেই অলআউট করে বাংলা। এই ম্যাচে পারফরম্যান্সের চেয়ে বাংলাকে ভোগাচ্ছে চোট।

আরও পড়ুন… মহিলা ক্রিকেটের নতুন র‌্যাঙ্কিং প্রকাশ করল ICC, হরমনপ্রীত-দীপ্তির বড় সাফল্য

এই ম্যাচে মাথায় চোট পেলেন বাংলার পেসার আকাশ দীপ। পরিস্থিতি এমনই ছিল যে, আকাশ দীপের কনকাশন পরিবর্ত নিতে হল মনোজ তিওয়ারিকে। আকাশ দীপের পরিবর্তে নামেন গীত পুরি। এ ছাড়াও জোড়া চোট। অভিষেক কারী পেস বোলিং অলরাউন্ডার আকাশ ঘটক। তবে বাংলা শিবিরে বড় চিন্তা অনুষ্টুপ মজুমদারের চোট। ওড়িশা অধিনায়ক শুভ্রাংশু সেনাপতির জোরালো কভার ড্রাইভ আটকাতে যান বাংলার ক্রাইসিস ম্যান অনুষ্টুপ। হঠাৎই লাফিয়ে ওঠা বলে আঙুলে চোট পান অনুষ্টুপ মজুমদার। হাতে ব্যান্ডেজ বাঁধা রয়েছে। বাংলার কোচ লক্ষ্মীরতন শুক্লা দিনের খেলার শেষে জানিয়েছেন, অনুষ্টুপের স্ক্যানের রিপোর্টে গুরুতর চোট ধরা পড়েনি। চোটের জায়গা ফোলা এবং ব্যাথাও রয়েছে। ব্যাটিং করবেন অনুষ্টুপ। তবে নিজের পজিশনে নয়, অনুষ্টুপ ব্যাটিং করবেন একটু নীচের দিকে। কোয়ার্টার ফাইনালের আগে যা বাংলাকে নিঃসন্দেহে চাপে রাখবে। এ দিন খেলায় একাধিক চোট পেয়েছে বাংলা ক্রিকেটাররা। সেই কারণেই মনোজদের নিতে হয়েছে কনকাশন পরিবর্তও।

আরও পড়ুন… ICC Awards 2022: গত বছর ৪০ উইকেট শিকার করে বর্ষসেরা ঝুলনের যোগ্য উত্তরসূরি রেণুকা সিং

ম্যাচের কথা বললে, প্রথম দিনের শেষে ওড়িশার স্কোর ছিল ৩৫ ওভারে ২ উইকেটে ৯৬। দেরীতে খেলা শুরু হওয়ায় প্রথম সেশনের সুবিধা নিতে পারেননি বাংলার পেসাররা। দ্বিতীয় দিন বাংলা নিয়ন্ত্রিত বোলিং পারফরমেন্স দেখায়। ওড়িশার প্রথম ইনিংস শেষ হল ২৬৫ রানেই। ওড়িশা ইনিংসে উল্লেখযোগ্য় ১২৭ বলে ৬৭ রান করেন ওড়িশার অধিনায়ক শুভ্রাংশু সেনাপতির। বাংলা বোলারদের মধ্যে নজর কাড়লেন ইশান পোড়েল ও প্রীতম চক্রবর্তী। দু-জনই তিনটি করে উইকেট নিয়েছেন। ব্যাটিংয়ে নেমে বাংলা শিবিরও ধাক্কা খায়। ওপেনার করণ লাল ৩০ রানে ও তিন নম্বরে নামা সুদীপ ঘরামির উইকেট হারিয়েছে বাংলা। দিনের শেষে বাংলার স্কোর ২ উইকেটে ৩৯। এদিকে কোয়ার্টার ফাইনালের আগে চাপে বাংলা শিবির। মুকেশ কুমার, শাহবাজ আহমেদরা জাতীয় দলে, এর মাঝে আকাশ দীপ ও অনুষ্টুপ মজুমদারদের চোট ভাবাচ্ছে লক্ষ্মী-মনোজদের।

 

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বন্ধ করুন