বাংলা নিউজ > ময়দান > কিউয়িদের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টের প্রথম দিন বাংলাদেশ বোলারদের পারফরম্যান্সে খুশি গিবসন
টম লাথামের উইকেট নেওয়ার পর শরিফুল ইসলামের উচ্ছ্বাস।

কিউয়িদের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টের প্রথম দিন বাংলাদেশ বোলারদের পারফরম্যান্সে খুশি গিবসন

  • প্রথম দিন শেষে কিউয়িদের স্কোর ৫ উইকেটে ২৫৮ রান। ডেভন কনওয়ে ছাড়া নিউজিল্যান্ডের অন্য ব্যাটারদের রান করতে যথেষ্ট বেগ পেতে হয়। বাঁ-হাতি ব্যাটার কনওয়ে এ দিন ১২২ রান করেন।

শুভব্রত মুখার্জি: ২০২১ সালের শেষটা একেবারেই ভালো হয়নি বাংলাদেশ ক্রিকেটের। টি-২০ বিশ্বকাপে সুপার-১২ পর্যায় থেকে বিদায়ের পরে দেশের মাটিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ হারের ব্যর্থতা তাদের সঙ্গী হয়েছিল। ফলে নতুন বছরের শুরুটা তারা খুব ভালো ভাবে করতে চেয়েছিল। ২০২২ সালের শুরুতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম দিন তাদের পারফরম্যান্স মোটের উপর বেশ ভালো বলা যেতে পারে। আর টাইগার বোলারদের পারফরম্যান্সে রীতিমতো খুশি বাংলাদেশ দলের পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসন।

প্রথম দিন শেষে কিউয়িদের স্কোর ৫ উইকেটে ২৫৮ রান। ডেভন কনওয়ে ছাড়া নিউজিল্যান্ডের অন্য ব্যাটারদের রান করতে যথেষ্ট বেগ পেতে হয়। বাঁ-হাতি ব্যাটার কনওয়ে এ দিন ১২২ রানের একটি ইনিংস উপহার দেন। ওপেনার উইল ইয়ং ৫২ রান করে তাঁকে যোগ্য সঙ্গত করেছেন। অন্য ওপেনার ও অধিনায়ক টম লাথামকে সাজঘরে ফেরান বাংলাদেশের পেসার শরিফুল ইসলাম। অভিজ্ঞ রস টেলরকে ৩১ রানে সাজঘরের রাস্তা দেখান শরিফুল। দিনের শেষে উইকেটরক্ষক টম ব্লান্ডেলকে বোল্ড করেন এবাদত হোসেন। কনওয়ের গুরুত্বপূর্ণ উইকেটটি নিয়েছেন অধিনায়ক মুমিনুল হক। বল হাতে ভালো পারফরম্যান্স করেছেন তাসকিন আহমেদ এবং মেহেদি হাসান মিরাজও।

প্রথম দিন বাংলাদেশি বোলারদের এমন পারফরম্যান্সে খুশি গিবসন। নিউজিল্যান্ড থেকে এক ভিডিয়ো কলে গিবসন জানিয়েছেন, ‘টসের সময় মনে হয়েছিল, নতুন বল কিছুটা মুভমেন্ট করবে, সেটাই হয়েছে। বেশ গরম ছিল। উইকেটের আর্দ্রতা দ্রুত শেষ হয়ে গিয়ে সেই উইকেট ব্যাটিংয়ের জন্য উপযোগী হয়ে পড়ে। ছেলেরা তার পরেও দুরন্ত লড়াই করেছে। আমি গর্বিত পেসাররা হাল ছাড়েননি। মিরাজ এক পাশ আটকে রেখেছিল। অন্য প্রান্ত থেকে পেসারদের বল করার সুযোগ করে দিয়েছে ও। গোটা দিন ধরে আমরা যে লড়াই চালিয়ে গিয়েছি, এতে আমি গর্বিত। কঠিন কন্ডিশনে পেসাররা ভালো বল করেছে। ওদের জন্য পরিবেশ ছিল অচেনা। এবাদত ভালো বল করেছে। নতুন বলে সকালে দুর্দান্ত শুরু করে। তবে আরও কয়েকটি উইকেট হয়তো পেতে পারতাম আমরা।’

গিবসন এর সঙ্গে আরও যোগ করেছেন, ‘বল সুইং করানো নিয়ে কাজ করছি আমরা। সবাই সুইং করানোর চেষ্টা করেছে। সফলও হয়েছে। সকালের কন্ডিশন কাজে লাগাতে পেরেছি, তাতেই আমি সন্তুষ্ট।’

বন্ধ করুন