বাংলা নিউজ > ময়দান > টুর্নামেন্টের সেরা হয়ে মেয়েদের বিগ ব্যাশে ইতিহাস লিখলেন হরমনপ্রীত
হরমনপ্রীত কাউর।

টুর্নামেন্টের সেরা হয়ে মেয়েদের বিগ ব্যাশে ইতিহাস লিখলেন হরমনপ্রীত

  • হরমনপ্রীত আগে সিডনি থান্ডারের হয়ে বিগ ব্যাশে খেলেছেন। মাঝে দু' বছর তিনি এই টুর্নামেন্ট খেলেননি। এ বার আবার বিগ ব্যাশে খেলতে এসে অসাধারণ ছন্দে নিজেকে মেলে ধরেছেন ভারতের তনয়া। আর সেই সঙ্গে টুর্নামেন্টের সেরা হয়ে ভারতকে গর্বিত করেছেন।

এই বছর মেয়েদের বিগ ব্যাশ লিগে ভারতীয় তনয়ারা দুরন্ত পারফরম্যান্স করেছেন। জেমিমা রডরিগেজ, স্মৃতি মন্ধানা, দীপ্তি শর্মা, রিচা ঘোষ, পুনম যাদবরা প্রত্যেকেই বিগ ব্যাশে নজর কেড়েছেন। তবে হরমনপ্রীত সকলকে ছাপিয়ে গিয়েছেন। টুর্নামেন্টের সেরা প্লেয়ার হয়ে তিনি লিখে ফেলেছেন ইতিহাস। ভারতের প্রথম মহিলা প্লেয়ার হিসেবে বিগ ব্যাশ লিগে টুর্নামেন্টের সেরা প্লেয়ার হলেন হরমনপ্রীত। হরমনপ্রীতের আগে ভারতের আর কোনও মেয়ের এই নজির নেই।

হরমনপ্রীত এ বার বিগ ব্যাশে তাঁর দলের হয়ে মোট ১২টি ম্যাচ খেলেছেন। তাঁর মধ্যে ১১টি ইনিংসে ব্যাট করেছেন। তাঁর সংগ্রহ ৩৯৯ রান। গড় ৬৬.৫০। স্ট্রাইকরেট ১৩৫.২৫। আর ১২ ম্যাচে তিনি মোট ১৫টি উইকেট নিয়েছেন। মেলবোর্ন রেনেগেডসের হয়ে ব্যাটে-বলে সবেতেই শীর্ষে রয়েছেন হরমনপ্রীত। এমন কী তিনি সর্বোচ্চ ১৮টি ছক্কাও হাঁকিয়েছেন। 

হরমনপ্রীত আগে সিডনি থান্ডারের হয়ে বিগ ব্যাশে খেলেছেন। মাঝে দু' বছর তিনি এই টুর্নামেন্ট খেলেননি। এ বার আবার বিগ ব্যাশে খেলতে এসে অসাধারণ ছন্দে নিজেকে মেলে ধরেছেন ভারতের তনয়া। আর সেই সঙ্গে টুর্নামেন্টের সেরা হয়ে ভারতকে গর্বিত করেছেন।

প্রতিটি ম্যাচেই স্থায়ী আম্পায়ারদের দ্বারা হরমনপ্রীতকে টুর্নামেন্টের সেরা প্লেয়ার হিসাবে ভোট দেওয়া হয়েছিল। মোট ৩১টি ভোট পেয়েছেন হরমনপ্রীত। পারথ স্কর্চার্সের বেথ মুনি এবং সোফি ডিভাইন ২৮টি করে ভোট পেয়েছেন। এ ছাড়াও গ্রেস হ্যারিস পেয়েছেন ২৫টি ভোট। জর্জিয়া রেডমায়েন, মিগনন দু' প্রিজ ২৪টি করে ভোট পেয়ে প্রথম ছয়ের মধ্যে রয়েছেন।

একটি বিবৃতিতে হরমনপ্রীত বলেছেন, ‘আমি খুব খুশি। এটা অর্জন করা আমার কাছে অনেক বড় বিষয়। আমার দল এবং আমাকে সাহায্য করেছেন যাঁরা, তাঁদের প্রত্যেকের কাছে আমি কৃতজ্ঞ থাকব। এটা আমার একার কৃতিত্ব নয়। সম্পূর্ণ ভাবে পুরো দলের প্রচেষ্টা। আমি শুধু সেই কাজটি করেছি, যেটা দলের জন্য করাটা প্রয়োজন ছিল।’

বন্ধ করুন