বাংলা নিউজ > ময়দান > ডায়েপার বদলাতে শিখেছেন? ফাঁস করলেন কোহলি

ভারত-অস্ট্রেলিয়া সিরিজ শেষ হওয়ার দিনই জন্মগ্রহণ করে বিরাট-অনুষ্কা ভামিকা। শেষের মুহূর্তগুলি দেখতে পারেননি তিনি, কারণ তখন তাঁর নার্সিং হোমে ডাক পড়ে। এখন আবার ছোট্টো শিশু ও মা-কে বাড়িতে রেখে চেন্নাইয়ে টেস্ট খেলতে চলে গিয়েছেন তিনি। কিন্তু অল্প সময়ের মধ্যেই পিতৃত্বের অভিজ্ঞতা উপভোগ করছেন তিনি। 

তাঁকে প্রশ্ন করা হয় যে তিনি বাচ্চার ডায়েপার বদলাতে শিখে গিয়েছেন কি না। বিরাট বলেন যে তিনি কোনও নতুন কাজে সড়গড় হতে বেশি সময় নেন না। তাই খুব সহজেই এখন বাচ্চার ডায়েপার চেঞ্জ করতে পারছেন। তবে এখনও তিনি এক্সপার্ট হয়ে উঠতে পারেননি, সেটাও স্বীকার করে নেন ভারতীয় অধিনায়ক। তবে কোহলি বলেন ক্রিকেট মাঠে তিনি যেমন নতুন চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করেছেন, তেমন ভাবে এটাও মোকাবিলা করছেন তিনি। বাচ্চার জন্মের আগে তিনি টিভিতে ক্রিকেট দেখছিলেন, উত্তেজিতও হয়ে যাচ্ছিলেন বলে জানান কোহলি। তবে মাঠের মতো ওরকম চিৎকার করেননি, সেই কথাও জানান তিনি। ভামিকার জন্মগ্রহণ যে তাঁর জীবনের সেরা মুহূর্ত, ম্যাচ শুরুর আগে সেই কথা বলেন ভারতীয় অধিনায়ক। 

অন্যদিকে স্টার স্পোর্টসের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে তাঁর পাশেই বসেছিলেন কোচ রবি শাস্ত্রী। তিনি বলেন যে তাঁর মনে হয় বিরাটের খুব একটা শক্ত লাগবে না এই রোলে মানিয়ে নিতে। তিনি বলেন ২০১৪-১৫ সাল থেকে তিনি বিরাটকে কাছ থেকে দেখছেন। তখন তিনি ছিলেন হিরে, যেটায় জেল্লা দেওয়া হয়নি। সেই থেকে একজন ক্রিকেটার ও মানুষ হিসেবে বিরাটের পরিণত হওয়ার কথাটি তুলে ধরেন শাস্ত্রী। 

 

বন্ধ করুন