বাংলা নিউজ > ময়দান > ‘আমার জন্য বড় ত্যাগ করেছে ও’, বিরাটের কোন ত্যাগের কথা বলেছেন সূর্যকুমার?
সূর্যকুমার যাদব এবং বিরাট কোহলি।
সূর্যকুমার যাদব এবং বিরাট কোহলি।

‘আমার জন্য বড় ত্যাগ করেছে ও’, বিরাটের কোন ত্যাগের কথা বলেছেন সূর্যকুমার?

  • নামিবিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচে ৩ নম্বরে সূর্যকুমারকে নামিয়ে দিয়েছিলেন বিরাট কোহলি। যাতে গেম টাইম বেশি পান সূর্য। আর এই ঘটনাই সূর্যর মন ছুঁয়ে গিয়েছিল। বিরাট কোহলির এই আত্মত্যাগটা তিনি কখনও ভুলতে পারবেন না বলে জানিয়েছেন সূর্যকুমার।

আবার চেনা ছন্দে দেখা গিয়েছে সূর্যকুমার যাদবকে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তিনি ফর্মে ছিলেন না। কিন্তু বুধবার জয়পুরে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ভারতকে জেতাতে বড় ভূমিকা নেন সূর্যকুমার যাদব। ৪০ বলে ৬২ রানের দুরন্ত একটি ইনিংস খেলেন তিনি। ভারতীয় ক্রিকেটারদের মধ্যে এটাই ছিল তাঁর সর্বোচ্চ রান। যে ইনিংসটা কিনা ভারতকে ৫ উইকেটে জিততে সাহায্য করে।

তবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে খেলতে না পারার আফসোসটা ষোল আনা রয়ে গিয়েছে সূর্যকুমারের। হঠাৎ করেই পিঠে ব্যথা বাড়ার কারণে কিউয়িদের বিরুদ্ধে খেলতে পারেননি সূর্যকুমার। আর ওই ম্যাচেই হেরে বিশ্বকাপ থেকে কার্যত ছিটকে গিয়েছিল ভারত। যে কারণে বড় আফসোস রয়েছে সূর্যর। তিনি তাই বলেছেন, ‘আমি সত্যিই হতাশ হয়েছিলাম যখন আমি পিঠে ব্যথার কারণে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে খেলাটা মিস করি।’

তবে নামিবিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচে ৩ নম্বরে সূর্যকুমারকে নামিয়ে দিয়েছিলেন বিরাট কোহলি। যাতে গেম টাইম বেশি পান সূর্য। আর এই ঘটনাই সূর্যর মন ছুঁয়ে গিয়েছিল। বিরাট কোহলির এই আত্মত্যাগটা তিনি কখনও ভুলতে পারবেন না বলে জানিয়েছেন সূর্যকুমার। সে কথা মাথায় রেখে তিনি বলেছেন, ‘আমি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে একটা কিছু করে দেখাতে চেয়েছিলাম। সত্যিই এটা ওর (বিরাট কোহলি) বড় ত্যাগ ছিল।’

সূর্যকুমার ১৯ বলে অপরাজিত ২৫রান করেন সেই ম্যাচে। বুধবার নিউজিল্যান্ড ম্যাচের পর সূর্যকুমার বলছিলেন, ‘আমার এখনও মনে আছে, যখন আমার ব্যাটিংয়ে অভিষেক হয়, তখন ও (কোহলি) নিজের ৩ নম্বর জায়গায় আনাকে নামিয়ে দিয়ছিল। নিজে না নেমে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। আরও ৪ নম্বরে নিজে ব্যাট করেছিল। সে দিনের ঘটনাটাও (নামিবিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচ) একই ছিল। ও জিজ্ঞাসা করেছিল যে, আমি বিশ্বকাপে গেম টাইম পেতে চাই কিনা। এটা ওর উদারতার বড় দিক। আর সে দিন আমি অপরাজিত থেকে টিমকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়াটা উপভোগ করেছিলাম।’

বন্ধ করুন