বাংলা নিউজ > ময়দান > AFC Asian Cup: বিশ্বকাপের রাস্তা বন্ধ হলেও এশিয়ান কাপের দরজা এখনও খোলা ভারতের সামনে, দেখুন সমীকরণ
এশিয়ান কাপের যোগ্যতা অর্জন করতে মরিয়া ছেত্রীরা। ছবি- টুইটার (@IndianFootball)
এশিয়ান কাপের যোগ্যতা অর্জন করতে মরিয়া ছেত্রীরা। ছবি- টুইটার (@IndianFootball)

AFC Asian Cup: বিশ্বকাপের রাস্তা বন্ধ হলেও এশিয়ান কাপের দরজা এখনও খোলা ভারতের সামনে, দেখুন সমীকরণ

  • দেখুন কোন অঙ্কে এএফসি এশিয়ান কাপ ২০২৩-এর যোগ্যতা অর্জন করতে পারেন সুনীল ছেত্রীরা।

২০২২ ফিফা বিশ্বকাপ ও ২০২৩ এএফসি এশিয়ান কাপের যুগ্ম যোগ্যতা অর্জন পর্বের লড়াইয়ে ক্রমশ চাপ বাড়ছে ভারতের উপর। ই-গ্রুপে ভারত ৬ ম্যাচে মাত্র ৩ পয়েন্ট নিয়ে আপাতত লিগ টেবিলের চতুর্থ স্থানে রয়েছে। বাকি রয়েছে দু'টি ম্যাচ। শেষ দু'টি ম্যাচে জিতলেও ওয়ার্ল্ড কাপ কোয়ালিফায়ারের পরবর্তী রাউন্ডে যাওয়ার কোনও সুযোগ নেই ভারতের সামনে। কেননা, গ্রুপের প্রথম দু'টি স্থানে থাকা কাতার ও ওমানকে ছোঁয়া সম্ভব নয় ভারতের পক্ষে। যদিও এএফসি এশিয়ান কাপে যোগ্যতা অর্জনের সুযোগ রয়েছে সুনীল ছেত্রীদের সামনে। দেখে নেওয়া যাক কীভাবে।

এশিয়ান কাপে যোগ্যতা অর্জনের নিয়ম:-
১. কোয়ালিফায়ারের দ্বিতীয় রাউন্ডের ৮টি গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন দল সরাসরি মূলপর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে।
২. গ্রুপে দ্বিতীয় স্থানে থাকা সেরা ৪টি দল সরাসরি মূলপর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে।
৩. গ্রুপের লিগের বাকি চারটি দ্বিতীয় স্থানাধিকারী দল, ৮টি তৃতীয় স্থানে থাকা দল এবং সেরা চারটি চতুর্থ স্থানে থাকা দল এশিয়ান কাপের কোয়ালিফায়ারের তৃতীয় রাউন্ডে প্রবেশ করবে এবং পুনরায় লড়াই চালাবে মূলপর্বের যোগ্যতা অর্জনের জন্য।
৪. বাকি ৪টি চতুর্থ স্থানাধিকারী ও ৮টি পঞ্চম স্থানাধিকারী দলকে কোয়ালিফায়ারের তৃতীয় রাউন্ডের প্লে-অফ খেলতে হবে।

ই-গ্রপের পয়েন্ট টেবিল:-
১. কাতার ৭ ম্যাচে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের শীর্ষে রয়েছে।
২. ওমান ৫ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে।
৩. আফগানিস্তান ৬ ম্যাচে ৫ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে।
৪. ভারত ৬ ম্যাচে ৩ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে রয়েছে।
৫. বাংলাদেশ ৬ ম্যাচে ২ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের পাঁচ নম্বরে রয়েছে।

ভারতের সম্ভাবনা:-
১. ভারতের পক্ষে লিগ চ্যাম্পয়ন হওয়া বা সেরা চারটি দ্বিতীয় স্থানাধিকারীর মধ্যে থেকে মূলপর্বে সরাসরি যোগ্যতা অর্জন করা সম্ভব নয়।
২. বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে লিগের বাকি দু'টি ম্যাচ জিতলে তৃতীয় স্থানে থাকা নিশ্চিত করবে ভারত। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে যদি ড্র করে ভারত, তবে শেষ ম্যাচে আফগানিস্তানকে হারাতেই হবে ছেত্রীদের। যদি ভারত লিগ টেবিলের তৃতীয় স্থানে শেষ করতে পারে, তবে ২০২৩ এএফসি এশিয়ান কাপ কোয়ালিফায়ারের তৃতীয় রাউন্ডের যোগ্যতা অর্জন করবে।
৩. চতুর্থ স্থানে থেকে লিগ শেষ করলেও সব গ্রুপ মিলিয়ে সেরা চার চতুর্থ স্থানাধিকারীর মধ্যে জায়গা করে নিলে এশিয়ান কাপ কোয়ালিফায়ারের তৃতীয় রাউন্ডে যোগ্যতা অর্জন করতে পারে ভারত।
৫. নাহলে তাদের খেলতে হবে কোয়ালিফায়ারের তৃতীয় রাউন্ডের প্লে-অফ।

বন্ধ করুন