বাংলা নিউজ > ময়দান > ‘কোনও শট খেলতে পারেনা, কী করে সুযোগ পেল’, দ্রাবিড়কে নিয়ে এমনই ধারণা ছিল রিভের
রাহুল দ্রাবিড়।
রাহুল দ্রাবিড়।

‘কোনও শট খেলতে পারেনা, কী করে সুযোগ পেল’, দ্রাবিড়কে নিয়ে এমনই ধারণা ছিল রিভের

  • কাউন্টি ক্রিকেটে কেন্টের হয়ে ২০০০ সালের মরসুমে খেলেছিলেন 'দি ওয়াল'। সেই সময় কেন্ট বনাম সমারসেট ম্যাচে সমারসেটের হয়ে পরিবর্ত ফিল্ডার হিসেবে ফিল্ডিং করতে নেমেছিলেন ডারমট রিভ। তিনি দ্রাবিড়কে সেই ম্যাচে ক্রমাগত স্লেজিং করেন। পরবর্তীতে দ্রাবিড়ও জানিয়েছেন, ওই ঘটনা তাঁর উপর মানসিক চাপ তৈরি করেছিল।

শুভব্রত মুখার্জি : শুধুমাত্র ভারতীয় ক্রিকেট নয়, বিশ্ব ক্রিকেটের ইতিহাসেওে অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান কিংবদন্তি রাহুল দ্রাবিড়। সাদা বল হোক কিংবা লাল বল, দু' ধরনের ক্রিকেটেই ভারতের হয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন তিনি। এমন কী দলের প্রয়োজনে ওয়ানডে ক্রিকেটে সামলেছেন উইকেট রক্ষকের দায়িত্বও। তবে দ্রাবিড়ের ক্রিকেট ক্যারিয়ারের প্রথম দিকে তাঁর মন্থর ব্যাটিং নিয়ে অনেক সময় তাঁকে সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে। সেই প্রসঙ্গে বলতে গিয়েই প্রাক্তন ইংরেজ অলরাউন্ডার ডারমট রিভের বক্তব্য, ‘আমি যখন প্রথম বার দ্রাবিড়কে দেখি, তখন বুঝে উঠতে পারিনি ও কী করে ভারতের হয়ে খেলার সুযোগ পেল! কারণ ওর হাতে সেই ভাবে কোনও শট ছিল না।’

কাউন্টি ক্রিকেটে কেন্টের হয়ে ২০০০ সালের মরসুমে খেলেছিলেন 'দি ওয়াল'। সেই সময় কেন্ট বনাম সমারসেট ম্যাচে সমারসেটের হয়ে পরিবর্ত ফিল্ডার হিসেবে ফিল্ডিং করতে নেমেছিলেন ডারমট রিভ। তিনি দ্রাবিড়কে সেই ম্যাচে ক্রমাগত স্লেজিং করেন। পরবর্তীতে দ্রাবিড়ও জানিয়েছেন, ওই ঘটনা তাঁর উপর মানসিক চাপ তৈরি করেছিল।

রিভ বলেন, দ্রাবিড় তাঁকে পরবর্তীতে বলেছিলেন, ‘তুমি প্রথম এবং একমাত্র ব্যক্তি, যিনি ভারতীয় দলের প্রাচীরে (রাহুল দ্রাবিড়ের ডিফেন্সে ) ফাটল ধরাতে সক্ষম হয়েছো। ভারতীয় দলের প্রাচীর (ওয়াল) হিসেবে পরিচিত সেই সময় দ্রাবিড় পরিচিত ছিল। ও আমাকে বলেছিল আমার স্লেজিংয়ের চাপে পড়েই ও বাইরে বলটি মারতে গিয়ে আউট হয়ে যায়।’ রিভ আরও যোগ করেন, ক্রিকেটার রাহুল দ্রাবিড়কে নিয়ে তাঁর প্রাথমিক ধারণা একেবারেই ভাল ছিল না। 

তবে ১৯৯৯ সালের বিশ্বকাপে ভাল পারফরম্যান্স করার পরে প্রাক্তন এই তারকা ক্রিকেটার ভারতীয় দলে সেই সময় জায়গা পাকা করে নিয়েছিলেন। রিভ জানান, ‘আমি মনে করেছিলাম কী করে এই ছেলেটি (দ্রাবিড়) ভারতীয় দলের হয়ে খেলছে ! ভারতীয় নির্বাচন কমিটিতে নিশ্চয় ওর কোনও আত্মীয় রয়েছে। ওর হাতে তো কোন শটই নেই। খালি ক্রিকেট বলটাকে ব্লক করতেই শিখেছে। আমি তার পরেই ওকে ক্রমাগত স্লেজ করতে থাকি, যাঁর ফাদে পা দিয়ে ও আউট হয়‌ । আমি ২২ গজে তো বন্ধুত্ব পাতাতে নামিনি। ইংল্যান্ডের হয়ে ম্যাচ জিততেই নেমেছিলাম। আমার এই ব্যবহার আমাকে সবার কাছে অপ্রিয় করে তুলেছিল।’

বন্ধ করুন