বাংলা নিউজ > ময়দান > মেলবোর্নে ভারতীয়দের দাপটে ক্লান্তির ফল, বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে যেতে পারল না অস্ট্রেলিয়া
ভারতের বিরুদ্ধে সিরিজ হারের ক্ষত আরও বাড়ল টিম পেইনদের। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
ভারতের বিরুদ্ধে সিরিজ হারের ক্ষত আরও বাড়ল টিম পেইনদের। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

মেলবোর্নে ভারতীয়দের দাপটে ক্লান্তির ফল, বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে যেতে পারল না অস্ট্রেলিয়া

ক্রিকেট মহলের টিপ্পনি, কাটা গায়ে নুনের ছিটে সম্ভবত একেই বলে।

মেলবোর্ন-আতঙ্ক যেন কিছুতেই কাটছে না অস্ট্রেলিয়ার। এমনিতেই সেই ম্যাচে ভারত যেভাবে প্রত্যাবর্তন করেছিল, সেই আত্মবিশ্বাস অজিঙ্কা রাহানের সিরিজ জয়ে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিল। আর এবার সেই মেলবোর্ন টেস্টেই স্লো ওভার-রেটের কারণে অস্ট্রেলিয়াকে যে সাজা পেতে হয়েছিল, তার জেরে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের দৌড় থেকে কার্যত ছিটকে যেতে বসেছেন টিম পেইনরা।

অ্যাডিলেডে ৩৬ রানের ধাক্কা নিয়ে এবার বক্সিং ডে টেস্টে খেলতে নেমেছিল ভারত। আর আত্মবিশ্বাসের তুঙ্গে ছিল অস্ট্রেলিয়া। তারইমধ্যে প্রথম ইনিংসে ১১৫.১ ওভার বল করেছিলেন প্যাট কামিন্স, জোস হেজেলউডরা। অথচ একটা সময় ভারতের স্কোর ছিল ৫৯.১ ওভারে পাঁচ উইকেটে ১৭৩। সেখানে রাহানের দুর্দান্ত ১১২ রান এবং রবীন্দ্র জাদেজার ৫৭ রানের ইনিংসের সৌজন্যে মিচেল স্টার্কদের আরও ৫৬ ওভার বল করতে হয়েছিল। রাহানে এবং জাদজো জুটি রীতিমতো তাঁদের কালঘাম ছুটিয়ে দিয়েছিল। ক্লান্ত হয়ে গিয়েছিলেন কামিন্সরা। দ্বিতীয় ইনিংসে অবশ্য তাঁদের মাত্র ১৫.৫ ওভার হাত ঘোরাতে হয়েছিল। কারণ সেই ৯৫ বলেই জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় রান তুলে নিয়েছিল ভারত।

কিন্তু স্লো ওভার-রেটের কারণে ম্যাচ শেষে শাস্তির মুখে পড়তে হয়েছিল অস্ট্রেলিয়াকে। ম্যাচ ফি তো কাটা গিয়েছিল। সঙ্গে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের চার পয়েন্ট কেটে নেওয়া হয়েছিল। আর সেজন্য দক্ষিণ আফ্রিকা সফর স্থগিত হওয়ার পর অজি খেলোয়াড়দের কার্যত মাথার চুল ছিড়তে হচ্ছে। ওই চার পয়েন্ট যদি পেইনদের ঝুলিতে থাকত, তাহলে নিউজিল্যান্ডের পরিবর্তে প্রথম দল হিসেবে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে পৌঁছে যেত অস্ট্রেলিয়া।

কীভাবে?

আপাতত ৩৩২ পয়েন্ট নিয়ে ৬৯.১৬ শতাংশ পয়েন্ট (পিসিটি) আছে পেইনদের দখলে। যদি চার পয়েন্ট কাটা না যেত, তাহলে অস্ট্রেলিয়ার পিসিটি দাঁড়াত ৭০ শতাংশ। তার ফলে নিউজিল্যান্ডের একবিন্দুতে চলে আসত। আপাতত নিউজিল্যান্ডের ৪২০ পয়েন্ট বা ৭০ শতাংশ পয়েন্ট (পিসিটি) আছে। কিউয়িদের হাতে যেহেতু কোনও ম্যাচ পড়ে নেই, তাই তাঁদের পিসিটি ওঠানামার কোনও সম্ভাবনা নেই। আর রান প্রতি উইকেটের অনুপাত ভালো হওয়ার সুবাদে লর্ডসের ফাইনালে পৌঁছে যেতেন স্টিভ স্মিথরা। কিন্তু তা তো হয়নি। উলটে ভারত-ইংল্যান্ড সিরিজের দিকে তাঁদের তাকিয়ে থাকতে হবে। ভারত-ইংল্যান্ড সিরিজের ফলাফল যদি ১-০, ২-২, ১-১, ০-০, ০-১, ১-২ হয়, তবে ফাইনালে যেতে পারবে অস্ট্রেলিয়া। তা থেকে ক্রিকেট মহলের টিপ্পনি, কাটা গায়ে নুনের ছিটে সম্ভবত একেই বলে।

বন্ধ করুন