বাংলা নিউজ > ময়দান > ‘ভাগ্যবান এখনও বেঁচে আছি, জানি না ভবিষ্যতে আমি কোন পথে এগোব’: ক্রিস কেয়ার্নস
ক্রিস কেয়ার্নস।
ক্রিস কেয়ার্নস।

‘ভাগ্যবান এখনও বেঁচে আছি, জানি না ভবিষ্যতে আমি কোন পথে এগোব’: ক্রিস কেয়ার্নস

  • দীর্ঘ তিন মাস মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করতে হয়েছে কেয়ার্নসকে। ৫১ বছর বয়সী ক্রিস কেয়ার্নসের কোমর থেকে পুরোপুরি ভাবে প্যারালাইজড হয়ে গিয়েছে। একাধিক জটিল অস্ত্রোপচারের মধ্যে দিয়ে যাওয়ার পরে প্রাণে বাঁচলেও তাঁর প্যারালিসিস হওয়ার ফলে বর্তমানে তাঁকে হুইল চেয়ারের সাহায্যেই চলাফেরা করতে হচ্ছে।

শুভব্রত মুখার্জি: নিউজিল্যান্ড দলের প্রাক্তন অলরাউন্ডার তথা কিউয়িদের এখনও পর্যন্ত একমাত্র চ্যাম্পিয়ান্স ট্রফি জয়ের প্রধান কারিগর হলেন ক্রিস কেয়ার্নস। বর্তমানে এই প্রাক্তন অলরাউন্ডার নিজের বেঁচে থাকাকেই সৌভাগ্য মনে করছেন। কারণ মাত্র কয়েক মাস আগেই তিনি কার্যত মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এসেছেন।

উল্লেখ্য দীর্ঘ তিন মাস মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করতে হয়েছে কেয়ার্নসকে। ৫১ বছর বয়সী ক্রিস কেয়ার্নসের কোমর থেকে পুরোপুরি ভাবে প্যারালাইজড হয়ে গিয়েছে। একাধিক জটিল অস্ত্রোপচারের মধ্যে দিয়ে যাওয়ার পরে প্রাণে বাঁচলেও তাঁর প্যারালিসিস হওয়ার ফলে বর্তমানে তাঁকে হুইল চেয়ারের সাহায্যেই চলাফেরা করতে হচ্ছে।

কেয়ার্নস জানান, ‘আমরা জানি না ভবিষ্যতে আমাদের জন্য কি অপেক্ষা করছে। আমি জানি না আমি আর হাঁটতে পারব কিনা। আমি জানি না আমি আর হাঁটতে পারব কিনা। হয়ত আমি হাঁটতে পারব ,চলা ফেরা করতে পারব। বেঁচে থাকতে পেরে আমি ভাগ্যবান। বলা ভাল অত্যন্ত সৌভাগ্যবান।’

নিউজিল্যান্ডের আরেক কিংবদন্তি ক্রিকেটার লান্স কেয়ার্নসের পুত্র ক্রিস ‘অ্যাওর্টিক ডিসেকশনে’ আক্রান্ত হন। অগস্টে তাকে সিডনির স্পেশালিস্ট হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। দেহের প্রধান আর্টারি অরটিকের ভিতরের আস্তরণে চোট লাগার ফলেই এই ঘটনা ঘটেছিল। দেশের হয়ে ১৯৮৯-২০০৬ পর্যন্ত ক্রিস ৬২টি টেস্ট এবং ২১৫টি ওয়ান-ডে ম্যাচে প্রতিনিধিত্ব করেছেন।

বন্ধ করুন