বিরাট কোহলি। ছবি- এএনআই
বিরাট কোহলি। ছবি- এএনআই

বাবা ঘুষ দেননি বলে একবার দলে জায়গা পাননি বিরাট, বিস্ফোরক অভিযোগ ভারত অধিনায়কের

  • কোহলি জানান, দিল্লিতে এমন অসাধু কাজ হামেশাই হয়ে থাকে।

ভারতে খেলাধুলো নিয়ে নিচু স্তরে যে রকম দুর্নীতি চলে এখনও, তা বোঝা গেল বিরাট কোহলির কথায়। ভারত অধিনায়ক নিজেই জানালেন, একদা তাঁকে এমনই দুর্নীতির শিকার হতে হয়েছিল। তবে বিরাট এটাও জানান যে, বাস্তবিক জীবনের সুপার হিরো তাঁর বাবাই দুর্নীতির কাছে মাথা নত করতে দেননি তাঁকে।

ভারতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক সুনীল ছেত্রীর সঙ্গে ইনস্টাগ্রাম লাইভে কথা বলার সময় কোহলি জানান, যোগ্য হওয়া সত্ত্বেও একদা দল নির্বাচনে তাঁর নাম বিবেচনা করা হয়নি তাঁর বাবা ঘুষ দিতে অস্বীকার করেছিলেন বলেই।

কোহলি কোন পর্যায়ের দল নির্বাচনের কথা উল্লেখ করলেন, সে সম্পর্কে নির্দিষ্ট কোনও তথ্য দেননি। তবে এটা স্পষ্ট করে দেন যে, দিল্লিতে এমন অসাধু কাজকর্ম হামেশাই হয়ে থাকে।

কোহলি বলেন, ‘আমার রাজ্যে অনেক সময় এমন কিছু কাজকর্ম হয়ে থাকে, যেগুলি কখনই ঠিক নয়। একসময় দল নির্বাচনের মাপকাঠি নিয়ে এমনই কেউ একজন নিয়মের তোয়াক্কা করেননি। তিনি আমার বাবাকে বলেছিলেন, আমার সুযোগ পাওয়ার মতো দক্ষতা রয়েছে। তবে দলে জায়গা নিশ্চিত করার জন্য উপরি কিছুর (সম্ভবত ঘুষ) প্রয়োজন। আমার বাবা একজন সৎ মধ্যবিত্ত মানুষ, যিনি সারা জীবন কঠোর পরিশ্রম করেছেন সফল আইনজীবী হওয়ার জন্য। উনি বুঝতেই পারেননি এই বাড়তি কিছুর মানেটা কী। আমার বাবা স্পষ্ট জানিয়ে দেন, যদি বিরাটকে দলে নিতে হয়, তবে সেটা নিখাদ দক্ষতার উপর ভিত্তি করেই নির্বাচন করতে হবে। আমি আপনাদের বাড়তি কিছু দিতে রাজি নই।’

কোহলি পরক্ষণেই বলেন, ‘সেবার আমি দলে জায়গা পাইনি। খুব কেঁদেছিলাম। ভেঙে পড়েছিলাম। তবে সেই ঘটনা আমাকে অনেক কিছু শিখিয়েছে। সেদিন বুঝেছিলাম, সফল হওয়ার জন্য আমাকে আসাধারণ হয়ে উঠতে হবে। আজ আমি যা কিছু পেয়েছি, নিতান্ত আমার কঠোর পরিশ্রম ও প্রচেষ্টার ফলে। আমার বাবাই আমাকে সঠিক পথের হদিশ দিয়েছিলেন।’

বন্ধ করুন