বাংলা নিউজ > ময়দান > বিদায় বেলায় সৌরভকে কৃতজ্ঞতা জানালেন পার্থিব, মন ছোঁয়া বার্তা BCCI সভাপতির
সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও পার্থিব প্যাটেল। ছবি- রয়টার্স।
সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও পার্থিব প্যাটেল। ছবি- রয়টার্স।

বিদায় বেলায় সৌরভকে কৃতজ্ঞতা জানালেন পার্থিব, মন ছোঁয়া বার্তা BCCI সভাপতির

  • তারকা উইকেটকিপারের ভূয়সী প্রশংসা করেন জাতীয় দলে তাঁর প্রথম অধিনায়ক।

বুধবারই ১৮ বছরের দীর্ঘ আন্তর্জাতিক কেরিয়ারে ইতি টেনেছেন পার্থিব প্যাটেল। সোশ্যাল মিডিয়ায় বিজ্ঞপ্তি জারি করে সব ধরণের ক্রিকেট থেকে নিজের অবসরের কথা জানিয়ে দিয়েছেন তারকা উইকেটকিপার।

১৭ বছর বয়সে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আত্মপ্রকাশ করা পার্থিব বিসিসিআইকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন কিশোর বয়সে তাঁকে ভারতীয় দলের যোগ্য মনে করার জন্য। তবে বিদায় বেলায় ৩৫ বছর বয়সী উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান বিশেষ ধন্যবাদ জানাতে ভোলেননি জাতীয় দলে তাঁর প্রথম ক্যাপ্টেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে।

সৌরভের জন্যই যে পার্থিবের অত কম বয়সে জাতীয় দলের হয়ে খেলা সম্ভব হয়, ভারতীয় ক্রিকেটমহলে একথা সবার জানা। স্বাভাবিকভাবেই নিজের বিজ্ঞপ্তিতে পার্থিব কৃতজ্ঞতা জানান দাদার প্রতি।

টুইটারে পার্থিব লেখেন, ‘যে সব ক্যাপ্টেনের অধীনে আমি খেলেছি, তাদের প্রত্যেকের কাছে আমি কৃতজ্ঞ। তবে আমি বিশেষভাবে ঋণী আমার প্রথম ক্যাপ্টেন দাদার কাছে, যে আমার উপর অভাবনীয় আস্থা দেখিয়েছে।’

বিসিসিআইয়ের বিজ্ঞপ্তিতে বোর্ড সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় পার্থিবকে ভবিষ্যৎ জীবনের জন্য শুভকামনা জানিয়েছেন। যদিও এক্ষেত্রে তিনি নিজের ক্যাপ্টেন সত্ত্বাকে দূরে সরিয়ে রাখতে পারেননি। পার্থিবকে যথাযথ টিম ম্যান আখ্যা দিয়ে সৌরভ জানান, ১৭ বছর বয়সে আন্তর্জাতিক অভিষেকের সময় পার্থিবকে নেতৃত্ব দেওয়া ছিল তাঁর কাছে অত্যন্ত আনন্দের। সৌরভ এও জানান যে, গুরজরাত ক্রিকেটে পার্থিবের অবদান চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। গুজরাতকে প্রথমবার রঞ্জি ট্রফি এনে দিতে ফাইনালে যে ভূমিকা নিয়েছিলেন পার্থিব, তা ভোলা সম্ভব নয়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় পার্থিবকে অবসরোত্তর জীবনের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সচিন তেন্ডুলকর, বীরেন্দ্র সেহওয়াগরা। আইসিসিও পার্থিবকে তাঁর অনবদ্য ক্রিকেট কেরিয়ারের জন্য অভিনন্দন জানিয়েছে।

২০০২ সালের ইংল্যান্ড সফরে আন্তর্জাতিক অভিষেক হয় পার্থিবের। নটিংহ্যামে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট অভিষেক হয় তাঁর। পরের বছর জানুয়ারিতেই কুইন্সটাউনে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে দেশের হয়ে প্রথম ওয়ান ডে খেলেন পার্থিব। ২০১১ সালে পোর্ট অফ স্পেনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে খেলেন কেরিয়ারের প্রথম আন্তর্জাতিক টি-২০ ম্যাচ।

পার্থিব শেষবার দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেন ২০১৮ সালে। জোহানেসবার্গে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে কেরিয়ারের শেষ টেস্টে মাঠে নামেন তিনি।

১৮ বছরের কেরিয়ারে পার্থিব দেশের জার্সিতে ২৫টি টেস্ট, ৩৮টি ওয়ান ডে ও ২টি আন্তর্জাতিক টি-২০ খেলেছেন। টেস্টে ৯৩৪, ওয়ান ডে ক্রিকেটে ৭৩৬ ও আন্তর্জাতিক টি-২০ ক্রিকেটে ৩৬ রান করেন তিনি। টেস্টে ৬২টি ক্যাচ নিয়েছেন। স্টাম্প করেছেন ১০টি। ওয়ান ডে ক্রিকেটে ৩০টি ক্যাচ ধরেছেন। স্টাম্প করেছেন ৯টি।

বন্ধ করুন