বাড়ি > ময়দান > BCCI-এর চাপিয়ে দেওয়া আজীবন নির্বাসন নিয়ে মুখ খুললেন আজহারউদ্দিন
মহম্মদ আজহারউদ্দিন। ছবি- টুইটার।
মহম্মদ আজহারউদ্দিন। ছবি- টুইটার।

BCCI-এর চাপিয়ে দেওয়া আজীবন নির্বাসন নিয়ে মুখ খুললেন আজহারউদ্দিন

  • অভিযোগ থেকে মুক্তি পেতে দীর্ঘ ১২ বছর আইনি লড়াই চালাতে হয় প্রাক্তন ভারত অধিনায়ককে।

১২ বছরের দীর্ঘ আইনি লড়াইয়ের পর অভিযোগ থেকে মুক্তি পেয়েছেন শেষমেশ। তবে তাঁর বিরুদ্ধে বিসিসিআইয়ের অভিযোগ কী ছিল, তা ভারতীয় ক্রিকেটের সঙ্গে পরিচিত সকলের জানা। শুধু প্রকৃত কারণটা আজও বুঝে উঠতে পারেননি মহম্মদ আজহারউদ্দিন নিজে। এমনটাই দাবি করেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক।

পাক ওয়েবসাইটকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে দেশের হয়ে ৯৯টি টেস্ট খেলা আজহারউদ্দিন জানান, তিনি সত্যিই জানেন না কেন তাঁকে নির্বাসিত করা হয়েছিল।

ম্যাচ গড়াপেটায় যুক্ত থাকার অভিযোগে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড ২০০০ সালের ডিসেম্বরে মহম্মদ আজহারউদ্দিনকে আজীবন নির্বাসিত করে। ১২ বছর ধরে বোর্ডের নির্বাসনের শাস্তির বিরুদ্ধে আইনি লড়াই চালান আজহার। শেষে ২০১২ সালে অন্ধ্রপ্রদেশ হাইকোর্ট আজহারকে গড়াপেটার অভিযোগ থেকে মুক্তি দিলে বোর্ড নির্বাসন তুলে নেয় টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন অধিনায়কের উপর থেকে।

পাক সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে আলোচনা প্রসঙ্গে আজহার বলেন, ‘যা ঘটেছে, তার জন্য আমি কাউকে দোষ দিতে চাই না। তবে আমি সত্যিই জানি না আমাকে নির্বাসিত করার কারণ কী ছিল।’

সঙ্গে তিনি যোগ করেন, 'তবে আমি লড়াইয়ের সিদ্ধান্ত নিই। ঈশ্বরের কাছে কৃতজ্ঞ যে, ১২ বছর পরে আমি অভিযোগ থেকে মুক্তি পাই। আমি অত্যন্ত তৃপ্ত ছিলাম, যখন হায়দরাবাদ ক্রিকেট সংস্থার সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর বোর্ডের বার্ষিক সাধারণ সভায় যোগ দিতে যাই।'

নির্বাসন থেকে মুক্ত হওয়ার পর ভারতীয় ক্রিকেটের মূল স্রোতে পুনরায় বিচরণ চোখে পড়ে আজহারের। কলকাতায় ইডেন বেল বাজিয়ে ম্যাচ শুরুর নির্দেশ দিতে দেখা যায় আজহারকে। গত বছর রাজীব গান্ধী আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে তাঁর নামে একটি স্ট্যান্ডের নামকরণও করা হয়।

বন্ধ করুন