বাংলা নিউজ > ময়দান > 'জানার চেষ্টা করেছিলাম, কেন বাদ পড়তে হয়েছে, কেউ উত্তর দেয়নি', ঘুরিয়ে ধোনির দিকে আঙুল ভাজ্জির
হরভজন সিং ও মহেন্দ্র সিং ধোনি। ছবি- গেটি।
হরভজন সিং ও মহেন্দ্র সিং ধোনি। ছবি- গেটি।

'জানার চেষ্টা করেছিলাম, কেন বাদ পড়তে হয়েছে, কেউ উত্তর দেয়নি', ঘুরিয়ে ধোনির দিকে আঙুল ভাজ্জির

  • অন্যায়ভাবে জাতীয় দল থেকে বাদ না পড়লে অন্তত ৫০০ টেস্ট উইকেট নিতেন বলে দাবি হরভজনের।

সব ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসর ঘোষণার পরেই হরভজন সিংয়ের মধ্যে একটা চাপা আক্ষেপ লক্ষ্য করা যাচ্ছে নিজের আন্তর্জাতিক কেরিয়ার নিয়ে। যদিও সেই আক্ষেপটা এখন আর চাপা নেই। বরং ভাজ্জির কথায় ঠিকরে বেরোচ্ছে নিজের ক্ষোভ।

প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির কাছ থেকে যে তেমন একটা সমর্থন পাননি, সেটা বুঝে নিতে অসুবিধা হয় না তাঁর কথায়। খেলা ছাড়ার কথা ঘোষণার পরেই সর্দার দাবি করেছিলেন যে, সৌরভের জমানায় যে সমর্থনটা পেয়েছেন, পরবর্তী সময়ে দরকার থাকলেও কেউ পাশে দাঁড়াননি।

এবার টার্বুনেটর সরাসরি ক্ষোভ প্রকাশ করেন কোনও কারণ ছাড়াই তাঁকে জাতীয় দল থেকে বাদ পড়তে হওয়ায়। তাঁর দাবি, অন্যায়ভাবে বাদ না পড়লে কেরিয়ারে আরও ১০০ উইকেট পেতে পারতেন তিনি।

India TV-কে হরভজন বলেন, ‘আমি যখন ৪০০ টেস্ট উইকেট নিই, তখন আমার বয়স ৩১। যদি ৩১ বছর বয়সে ৪০০ উইকেট নিতে পারি, তবে পরের ৮-৯ বছরে অন্তত আরও ১০০ উইকেট নিতে পারতাম বলে মনে করি। তার পর থেকে আমি ম্যাচে সুযোগও পেতাম না, দলে নির্বাচিতও হতাম না। ৪০০ উইকেট নেওয়া একজন বোলারকে কীভাবে বাতিলের খাতায় ফেলা যায়, সেটা আজও আমার কাছে রহস্য। যে রহস্য আজও উন্মোচিত হয়নি। আসলে কী এমন ঘটেছিল, তা ভেবে আমি আজও অবাক হই। আমি দলে থাকলে কার এমন অসুবিধা হতো? সেটা আজও আমার কাছে ধাঁধা।'

ক্যাপ্টেন ধোনির তরফে কোনও কমিউনিকেশন দেখা গিয়েছিল কিনা, এমন প্রশ্নের উত্তরে ভাজ্জি বলেন, ‘আমি শুরুর দিকে জিজ্ঞাসা করার চেষ্টা করেছিলাম যে, কারণটা কী? তবে আমাকে কোনও কারণ জানানো হয়নি। আমি বুঝতে পারি, আমার সঙ্গে এমন ব্যবহারের কারণ কী এবং এর পিছনে কে রয়েছে, তা জানতে চাওয়া বৃথা। কেননা, তুমি যতই জানতো চাও, কেউ উত্তর দেবে না। তাই বিষয়টা ছেড়ে দেওয়াই ভালো।’

বন্ধ করুন