বাংলা নিউজ > ময়দান > ভারতের বিরুদ্ধে গড়াপেটায় অভিযুক্ত পাঁচ অজি ও ইংলিশ ক্রিকেটারকে আইসিসির ক্লিনচিট
আইসিসি। ছবি- রয়টার্স। (REUTERS)
আইসিসি। ছবি- রয়টার্স। (REUTERS)

ভারতের বিরুদ্ধে গড়াপেটায় অভিযুক্ত পাঁচ অজি ও ইংলিশ ক্রিকেটারকে আইসিসির ক্লিনচিট

  • ভারত-অস্ট্রেলিয়া এবং ভারত-ইংল্যান্ড সিরিজে গড়াপেটার অভিযোগ এনেছিল কাতারে সংবাদ চ্যানেল আল জারিরা।

২০১৮ সালে কাতারের সংবাদ চ্যানেল আল জারিরা ‘ক্রিকেটস ম্যাচ ফিক্সার্স’ বলে এক তথ্য সম্বন্বিত ডকুমেন্টারি প্রকাশ করেন যেখানে ২০১৬ সালে চেন্নাইতে ভারত বনাম ইংল্যান্ড ও ২০১৭ সালে রাঁচিতে ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট দুইটির কিছু সেশন ফিক্সড বলে দাবি করা হয়। 

পাশাপাশি আরও দাবি করা হয় দুই অস্ট্রেলিয়ান এবং তিনজন ইংল্যান্ডের ক্রিকেটার গড়াপেটার সাথে যুক্ত। সেই ডকুমেন্টারির ওপর ভিত্তি করে ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থা আইসিসি চারজন স্বনির্ভর বেটিং এবং ক্রিকেট বিশেষজ্ঞকে যেসব সেশনগুলি নিয়ে প্রশ্ন ওঠে, তার তদন্তভার দেয়। পাশাপাশি যে পাঁচজন ক্রিকেটারের দিকে অভিযোগের আঙুল ওঠে, তাঁদেরও ডেকে পাঠানো হয়। তবে সবদিক বিচার বিবেচনা করে আইসিসি ম্যাচ গড়াপেটার পক্ষে কোন সাক্ষ্য না পাওয়ায় এবং চার সদস্যের কমিটিও প্রশ্নের মুখে পড়া ওই সেশনগুলির খেলাকে সম্পূর্ণ সাধারণ ক্লিনচিট দেওয়ায় গড়াপেটার অভিযোগ খারিজ করা হয়।

আইসিসির জেনারেল ম্যানেজার অ্যালেক্স মার্শেল জানানস, ‘আমাদের খেলায় গড়াপেটার কোনরকম স্থান নেই। কেউ যদি কোন ম্যাচে সন্দেহজনক কিছু দেখতে পায়, সেক্ষেত্রে তাঁদের করা রিপোর্টকে আমরা সম্পূর্ণ স্বাগত জানাচ্ছি। তবে অভিযুক্তিদের বিরুদ্ধে যথেষ্ট সাক্ষ্যপ্রমাণ আছে কি না, সেই দিকেও আমাদের লক্ষ্য রাখতে হবে। সংশ্লিষ্ট অনুষ্ঠানে দেখানো জায়গাগুলিতে পোক্ত প্রমাণের অভাব ও আমার তদন্তের ভিত্তিতে আমরা কোনরকম সন্দেহজনক গতিবিধির টের পায়নি।’

মার্শাল আরও জানান যদি নতুন কোন পোক্ত প্রমাণ সামনে আসে, তবে তিনি পুনরায় তদন্ত চালু করতে রাজি। কিন্তু বর্তমানে সবদিক বিবেচনার পর তদন্তের সিদ্ধান্তে তিনি সন্তুষ্ট।

বন্ধ করুন