বাংলা নিউজ > ময়দান > ICC Men's Player of the Month: বাংলাদেশের 'ব্র্যাডম্যান'-কে হারালেন প্রাক্তন KKR তারকা, হলেন মে'র সেরা খেলোয়াড়
বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা সিরিজে দারুণ ফর্মে ছিলেন মুশফিকুর রহিম এবং অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। (ফাইল ছবি, সৌজন্যে এএফপি)

ICC Men's Player of the Month: বাংলাদেশের 'ব্র্যাডম্যান'-কে হারালেন প্রাক্তন KKR তারকা, হলেন মে'র সেরা খেলোয়াড়

  • ICC Men's Player of the Month May 2022: ২০২১ সালের জানুয়ারি থেকে সেই পুরস্কার প্রদান করা হচ্ছে। তারপর থেকে এই প্রথম শ্রীলঙ্কার কোনও ক্রিকেটার সেই পুরস্কার পেলেন। যে তিনজনকে প্রাথমিকভাবে বেছে নেওয়া হয়েছিল, তাঁদের মধ্যে মুশফুিকুর রহিম এবং শ্রীলঙ্কার দু'জন ছিলেন।

তীরে এসে তরী ডুবল বাংলাদেশের 'ব্র্যাডম্যান' মুশফিকুর রহিমের। মে'তে আইসিসির সেরা পুরুষ খেলোয়াড় নির্বাচিত হলেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। শ্রীলঙ্কার প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে সেই পুরস্কার জিতলেন কলকাতা নাইট রাইডার্সের (কেকেআর) তারকা। গত বছরের জানুয়ারি থেকে যে পুরস্কার প্রদান করা হচ্ছে।

এবার আইসিসির মাসের সেরা খেলোয়াড়ের দৌড়ে ছিলেন ম্যাথিউস, মুশফিকুর এবং শ্রীলঙ্কার অসিথা ফার্নান্দো। সেই লড়াইয়ে শেষ হাসি হেসেছেন ম্যাথিউস। যিনি বাংলাদেশের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজে দারুণ ছন্দে ছিলেন। দুটি টেস্টে ৩৪৪ রান করে সিরিজের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হয়েছিলেন। হাঁকিয়েছিলেন দুটি শতরান। চট্টগ্রামের মাত্র এক রানের দ্বিশতরান ফস্কে গিয়েছিল। আউট হয়ে গিয়েছিলেন ১৯৯ রানে।

আরও পড়ুন: IPL Media Rights: ম্যাচপিছু ৫৭.৫ কোটি টাকা, মোট ২৩,৫৭৫ কোটিতে বিক্রি IPL-র টিভি স্বত্ব: রিপোর্ট

এমনিতে সেই সিরিজে দুর্দান্ত ফর্মে ছিলেন মুশফিকুরও। সিরিজের প্রথম টেস্টে শতরানের পর বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে অন্যতম সেরা খেলোয়াড় মুশফিকুর বলেছিলেন, ‘আমি সেঞ্চুরি করলেই লোকে বাংলাদেশের মানুষ আমায় ব্র্যাডম্যানের সঙ্গে তুলনা করেন। কিন্তু যখন আমি রান করতে ব্যর্থ হই, তখনই আমায় নিয়ে সমালোচনা শুরু হয়।’

আরও পড়ুন: এক ম্যাচেও খেলায়নি KKR, সেই তারকাই জেতাচ্ছেন দেশকে! ২২ বলে করলেন ৪৩, পেলেন উইকেট

মহিলাদের মাসের সেরা 

আইসিসির মাসের সেরা খেলোয়াড় হয়েছেন পাকিস্তানের টুবা হাসান। তিনিও পাকিস্তানের প্রথম মহিলা ক্রিকেটার সেই পুরস্কার জিতেছেন। যিনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকেই ঝড় তুলেছিলেন। গত মাসে নিজের অভিষেক ম্যাচে চার ওভারে একটি মেডেন দিয়ে তিন উইকেট নিয়েছিলেন। দিয়েছিলেন মাত্র আট রান। সবমিলিয়ে সেই সিরিজে তিন ম্যাচে পাঁচটি উইকেট নিয়েছিলেন। গড় ছিল ৮.৮। ইকোনমি রেট ছিল ৩.৬৬।

বন্ধ করুন