বাংলা নিউজ > ময়দান > ICC ODI Rankings: অজিদের কাছে হেরে শীর্ষস্থান হারাল কিউয়িরা, ভারত কত নম্বরে?
ওডিআই র‍্যাঙ্কিংয়ে ধাক্কা খেল নিউজিল্যান্ড।

ICC ODI Rankings: অজিদের কাছে হেরে শীর্ষস্থান হারাল কিউয়িরা, ভারত কত নম্বরে?

  • অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডের মধ্যে চলতি তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের দু'টি ম্যাচ এখন পর্যন্ত খেলা হয়েছে এবং দুটি ম্যাচেই হেরেছে সফরকারী দল নিউজিল্যান্ড। টানা দুই ম্যাচ হেরে ওয়ানডে ক্রিকেটে এক নম্বর জায়গা হারিয়েছে কিউয়িরা।

আইসিসি ওয়ানডে টিম র‍্যাঙ্কিংয়ে বড় পরিবর্তন হয়েছে। ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ে বড় ধাক্কা খেয়েছে নিউজিল্যান্ড। একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কিউয়ি টিম এখন আর এক নম্বর দল নয়। অস্ট্রেলিয়ার কাছে হারের পর, নিউজিল্যান্ড ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ে বড় ধাক্কা খেয়েছে, অন্যদিকে কিউয়ি দলের হারে উপকৃত হয়েছে ইংল্যান্ড এবং ব্রিটিশ টিম এখন ওডিআই ক্রিকেটে শীর্ষস্থান দখল করেছে। ইংল্যান্ড বর্তমানে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন।

অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডের মধ্যে চলতি তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের দু'টি ম্যাচ এখন পর্যন্ত খেলা হয়েছে এবং দুটি ম্যাচেই হেরেছে সফরকারী দল নিউজিল্যান্ড। টানা দুই ম্যাচ হেরে ওয়ানডে ক্রিকেটে এক নম্বর জায়গা হারিয়েছে কিউয়িরা। ইংল্যান্ড এখন ১১৯ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে। এবং নিউজিল্যান্ড ১১৭ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে। ১১১ পয়েন্ট নিয়ে তিন নম্বরে রয়েছে ভারত।

আরও পড়ুন: জাম্পা সাইক্লোন- তাসের ঘরের মতো ধসে পড়ল কিউয়িরা, ১১৩ রানে জয় অজিদের

আইসিসি ওডিআই টিম র‍্যাঙ্কিংয়ে, পাকিস্তান ১০৭ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে রয়েছে, যেখানে অস্ট্রেলিয়া পাঁচ নম্বরে রয়েছে, যার সংগ্রহে ১০৪ পয়েন্ট রয়েছে। ১০১ পয়েন্ট নিয়ে ছয় নম্বরে রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। এ ছাড়া কোনও দলেরই ১০০ বা তার বেশি রেটিং পয়েন্ট নেই। এ দিকে ইংল্যান্ডের সামনে দীর্ঘ দিন এক নম্বর জায়গা ধরে রাখার সুযোগ রয়েছে। কারণ আগামী সময়ে খুব কম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে তারা।

বৃহস্পতিবার টসে জিতে অস্ট্রেলিয়াকে ব্যাট করতে পাঠায় নিউজিল্যান্ড। প্রথমে ব্যাট করতে নেমেই কিউয়ি বোলারদের দাপটে কোণঠাঁসা হয়ে পড়েন ডেভিড ওয়ার্নার, অ্যারন ফিঞ্চরা। ২৬ রানের মধ্যে অজিরা ৪ উইকেট হারিয়ে বসে। আর ৫৪ রানের ভিতর হারায় ৫ উইকেট। সর্বোচ্চ রান করেন স্টিভ স্মিথ। তিনি ৯৪ বলে ৬১ করেন। আর নয় নম্বরে ব্যাট করতে নেমে মিচেল স্টার্ক ৪৫ বলে অপরাজিত ৩৮ রানের দায়িত্ববান একটি ইনিংস খেলেন। আর জোস হ্যাজেলউড ১১ নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ১৬ বলে অপরাজিত ২৩ রান করেন। দুই টেল এন্ডারের জন্য অস্ট্রেলিয়ার স্কোর কোনও মতে টেনেটুনে নির্দিষ্ট ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৯৫ রানে পৌঁছয়। এ ছাড়া ৫০ বলে ২৫ করেছিলেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। বাকিরা কেউ ২০ রানের গণ্ডি টপকাননি।

আরও পড়ুন: কেন-কনওয়ের কমেডি অফ এররস, তবুও আউট করতে পারলেন না ক্যারি- ভিডিয়ো

নিউজিল্যান্ডের ট্রেন্ট বোল্ট ৪ উইকেট নিয়েছেন। ৩ উইকেট নিয়েছেন ম্যাট হেনরি। ১টি করে উইকেট নিয়েছেন টিম সাউদি এবং মিচেল স্যান্টনার।

রান তাড়া করতে নেমে কিউয়ি ব্যাটাররা কেউই ক্রিজে টিকতে পারেননি। কোনও ব্যাটারই ২০ রানের গণ্ডিই টপকাননি। জাম্পাদের দাপটে ৩৩ ওভারে মাত্র ৮২ রানে অল আউট হয়ে যায় নিউজিল্যান্ড। কিউয়ি ব্যাটারদের মধ্যে সর্বোচ্চ রান ১৭। করেছেন অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। এ ছাড়া মিচেল স্যান্টনার ১৬ করে অপরাজিত থাকেন। বাকিদের অবস্থা তথৈবচ।

৫ উইকেট তুলে নেন অস্ট্রেলিয়ার জাম্পা একাই। ২টি করে উইকেট নিয়েছেন স্টার্ক এবং অ্যাবট। ১ উইকেট নিয়েছেন মার্কাস স্টোইনিস। ১১৩ রানে দ্বিতীয় ম্যাচ জিতে সিরিজ পকেটে পুড়ে ফেলল অস্ট্রেলিয়া। এ বার তৃতীয় তথা শেষ ওডিআই জিতে কিউয়িদের হোয়াইটওয়াশ করার সুযোগ রয়েছে অস্ট্রেলিয়ার সামনে। সেটা হলে র‍্যাঙ্কিংয়ে আরও বড় ধাক্কা খাবে নিউজিল্যান্ড।

বন্ধ করুন