বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > দলের ব্যর্থতার মাঝেই ২০১৯ WC-এর তুলনা টেনে শাকিবের স্ত্রীর পোস্ট ঘিরে বিতর্ক
স্ত্রীর সঙ্গে শাকিব আল হাসান।
স্ত্রীর সঙ্গে শাকিব আল হাসান।

দলের ব্যর্থতার মাঝেই ২০১৯ WC-এর তুলনা টেনে শাকিবের স্ত্রীর পোস্ট ঘিরে বিতর্ক

  • ২০১৯ বিশ্বকাপে স্পিডস্টার মাশরফি ৩৬১ রান দিয়ে মাত্র ১ উইকেট নিয়েছিলেন। অন্য দিকে শাকিব সেই বছর বিশ্বকাপে ১১ উইকেট নিয়েছিলেন। দেশের সেরা ওপেনার তামিম ইকবাল ৮ ইনিংস খেলে রান করেছিলেন ২৩৫। সেখানে শাকিবের রান ছিল ৬০৬।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পরপর দুই ম্যাচ হেরে বেশ চাপে পড়ে গিয়েছে বাংলাদেশ। তাদের খারাপ পারফরম্যান্স নিয়ে রীতিমতো সমালোচনার ঝড় বয়ে চলেছে। এই পরিস্থিতি শাকিব আল হাসানের স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশিরের একটি পোস্ট ঘিরে তীব্র বিতর্ক শুরু হয়েছে। একেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে টাইগাররা কোণঠাঁসা। তার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় শিশিরের পোস্ট যেন আগুনে ঘি ঢেলেছে।

শাকিবের স্ত্রী শিশির ২০১৯ বিশ্বকাপের প্রসঙ্গ টেনে ফেসবুকে একটি পোস্ট করেছিলেন। সেখানে তিনি ২০১৯ বিশ্বকাপ দলের ব্যর্থতা টেনে লিখেছিলেন, ‘আমরা কি ২০১৯ বিশ্বকাপ নিয়ে একটু কথা বলতে পারি? আমি ভাবছি কী ভাবে আমরা ভারত, পাকিস্তান, ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ডের মতো বড় দলের বিপক্ষে জিততে পারিনি; যখন আমাদের স্পিডস্টাররা এবং তথাকথিত সেরা ওপেনিং জুটি ছিল! কী ভুল হয়েছিল ওই ম্যাচগুলোতে? কৌতুহলী মন জানতে চায়! যদি আমরা সেই ভুলগুলো নিয়ে আলোচনা করার জন্য তখন কিছু টক শো করতাম, তাহলে আজ আমাদের ব্যর্থ হতে হতো না!’

যদিও এই পোস্টটি পরে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। তবে তার আগেই এই পোস্টকে ঘিরে তুমুল বিতর্ক শুরু হয়ে গিয়েছেে বাংলাদেশে। অনেকেরই ধারণা এই পোস্টটি শাকিব নিজেই স্ত্রীর ফেসবুক প্রোফাইল থেকে করেছেন। আসলে শিশির সেই সময়কার অধিনায়ক মাশরফি মোর্তাজা এবং ওপেনার তামিম ইকবালকেই ইঙ্গিত করেছেন বলে সকলের ধারণা। 

২০১৯ বিশ্বকাপে স্পিডস্টার মাশরফি ৩৬১ রান দিয়ে মাত্র ১ উইকেট নিয়েছিলেন। অন্য দিকে শাকিব সেই বছর বিশ্বকাপে ১১ উইকেট নিয়েছিলেন। দেশের সেরা ওপেনার তামিম ইকবাল ৮ ইনিংস খেলে রান করেছিলেন ২৩৫। সেখানে শাকিবের রান ছিল ৬০৬।

এই বিশ্বকাপে বাংলাদেশ ব্যর্থ হলেও দারুণ ছন্দে রয়েছেন শাকিব। কোয়ালিফাইং রাউন্ড নিয়ে ৫ ম্যাচে ৯৫ রান দিয়ে শাকিব ১১ উইকেট নিয়ে ফেলেছেন। ব্যাট হাতে ৫ ম্যাচে ১২২ রান করেছেন। তাঁর দুরন্ত পারফরম্যান্সের কারণে আইসিসি-র টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিংয়ে এক নম্বর অলরাউন্ডারের মর্যাদা ফিরে পেয়েছেন তিনি।

বন্ধ করুন