বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > ইংল্যান্ডের ২০১০ ও ২০২২ বিশ্বকাপ জয়ের মধ্যে আশ্চর্য মিল, সৌজন্যে স্টোকস ও কিউসওয়েটার

ইংল্যান্ডের ২০১০ ও ২০২২ বিশ্বকাপ জয়ের মধ্যে আশ্চর্য মিল, সৌজন্যে স্টোকস ও কিউসওয়েটার

চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পরে বেন স্টোকস (ছবি-এএফপি)

ইংল্যান্ডের এই জয়ের মাঝেই ক্রেগ কিউসওয়েটারের করা রেকর্ড ছুঁয়ে ফেললেন বেন স্টোকস। এর আগে ২০১০ সালে বিশ্বকাপ ফাইনালে ইংল্যান্ডের ক্রেগ কিউসওয়েটার পঞ্চাশ করেছিলেন। এবার ১২ বছর পরে আবার ইংল্যান্ডের জার্সি গায়ে টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অর্ধশতরান করলেন বেন স্টোকস।

২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতেছে ইংল্যান্ড দল। ফাইনাল ম্যাচে পাকিস্তানকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে জোস বাটলারের দল। ইংল্যান্ডের জয়ের নায়ক ছিলেন অলরাউন্ডার বেন স্টোকস। ৪৯ বলে অপরাজিত ৫২ রানের ইনিংস খেলেন এই অলরাউন্ডার। আসলে, এর আগে ইংল্যান্ড দল ২০১৯ ওডিআই বিশ্বকাপ জিতেছিল,ইংল্যান্ড দলের সেই জয়ের পিছনে ছিল বেন স্টোকসেরও বড় অবদান। এভাবে ইংল্যান্ডকে ২টি বিশ্বকাপ জেতাতে বেন স্টোকস গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন।

আরও পড়ুন… Pak vs Eng: পাকিস্তানে যাওয়াটা কাজে এসেছে- চ্যাম্পিয়ন হয়ে কী বললেন জোস বাটলার?

২০১৯ সালের ওডিআই বিশ্বকাপ ফাইনাল ম্যাচে,ইংল্যান্ড দল নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ২৪২ রান তাড়া করছিল। সেই সময় বেন স্টোকস ৯৮ বলে অপরাজিত ৮৪ রানের ইনিংস খেলে ম্যাচে প্রত্যাবর্তন করেন। একই সময়ে,এই খেলোয়াড় ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালেও দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেছেন। এভাবেই ২য় বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের জয়ের নায়ক হয়ে উঠলেন বেন স্টোকস। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ফাইনাল ম্যাচে বেন স্টোকস ৪৯ বলে অপরাজিত ৫২ রানের গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলে ইংল্যান্ডকে ম্যাচে ফিরিয়ে আনেন এবং চ্যাম্পিয়ন করতে বড় ভূমিকা পালন করেন।

আরও পড়ুন… আপনি জাহাজের ক্যাপ্টেন, আপনি এটা করতে পারেন না- বাবরের ব্যাটিং দেখে হতাশ ভাজ্জি

ইংল্যান্ডের এই জয়ের মাঝেই ক্রেগ কিউসওয়েটারের করা রেকর্ড ছুঁয়ে ফেললেন বেন স্টোকস। এর আগে ২০১০ সালে বিশ্বকাপ ফাইনালে ইংল্যান্ডের ক্রেগ কিউসওয়েটার পঞ্চাশ করেছিলেন। এবার ১২ বছর পরে আবার ইংল্যান্ডের জার্সি গায়ে টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অর্ধশতরান করলেন বেন স্টোকস।

অন্যদিকে,এই ফাইনাল ম্যাচের কথা বলতে গেলে,ইংল্যান্ডের অধিনায়ক জোস বাটলার টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন। টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে পাকিস্তান দল নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৩৭ রান করে। এভাবে দ্বিতীয়বার চ্যাম্পিয়ন হতে ইংল্যান্ডের প্রয়োজন ছিল ১৩৮ রান। ইংল্যান্ড দল ১৯ ওভারে ৫ উইকেটে ১৩৮ রান করে ম্যাচ জিতে নেয়। এভাবে দ্বিতীয়বারের মতো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হল ইংল্যান্ড দল। এর আগে ২০১০ সালে এই শিরোপা জিতেছিল ইংল্যান্ড।

 

বন্ধ করুন