বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > কাপুরুষ পালাবি না- পাক সাংবাদিকের এই টুইট কি সত্যিই BCCI লাইক করেছে?

কাপুরুষ পালাবি না- পাক সাংবাদিকের এই টুইট কি সত্যিই BCCI লাইক করেছে?

বিসিসিআই-এর সভাপতির সঙ্গে জয় শাহরা (ছবি-এএনআই)

ভারতের সর্বোচ্চ ক্রিকেট সংস্থা বিসিসিআই-কে উদ্দেশ্য করে নিজের টুইটারে সৈয়দ লিখেছেন, ‘কাপুরুষ পালাবি না। খেলাধুলাকে রাজনীতি থেকে দূরে রাখুন।’ তারপর এই টুইটটি নাকি বিসিসিআই-এর হ্যান্ডেল থেকে লাইক করা হয়েছে, এমনটাই দাবি করেছেন পাকিস্তানের সাংবাদিক।

পাকিস্তানের সাংবাদিক সৈয়দ সমর আব্বাস একটি স্ক্রিনশট টুইট করেছেন,যা বর্তমানে বেশ ভাইরাল হচ্ছে। বোর্ড অফ কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া সচিব তথা এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের (ACC) সভাপতি জয় শাহের একটি বিবৃতিতে পাকিস্তান ভক্তরা খুব একটা খুশি হতে পারেননি। তারা প্রত্যেকেই বেশ চটেছিলেন। তাদের ক্ষুব্ধ হওয়ার কারণ ছিল যে ২০২৩ এশিয়া কাপ পাকিস্তান থেকে একটি নিরপেক্ষ ভেন্যুতে স্থানান্তরিত করানোর কথা বলেছে তিনি।

জয় শাহ স্পষ্ট জানিয়েছিলেন যে টিম ইন্ডিয়া ২০২৩ এশিয়া কাপে অংশ নিতে পাকিস্তানে যাবে না। তিনি এর পাশাপাশি বলেছিলেন যে টুর্নামেন্টটি যেন একটি নিরপেক্ষ ভেন্যুতে স্থানান্তরিত করা হয়। এর পরে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) এসিসিকে একটি চিঠি লিখে নিন্দা জানিয়ে বলেছে যে যদি এটি ঘটে তবে পাকিস্তান দল ২০২৩ বিশ্বকাপে ভারতে যেতে অস্বীকার করতে পারে। পুরো বিষয়টি নিয়ে একটি টুইট করেছেন পাকিস্তানের সাংবাদিক সৈয়দ সমর আব্বাস।

আরও পড়ুন… পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের প্লেয়িং একাদশ বাছলেন হরভজন, দেখুন জায়গা পেলেন কারা

ভারতের সর্বোচ্চ ক্রিকেট সংস্থা বিসিসিআই-কে উদ্দেশ্য করে নিজের টুইটারে সৈয়দ লিখেছেন, ‘কাপুরুষ পালাবি না। খেলাধুলাকে রাজনীতি থেকে দূরে রাখুন।’ তারপর এই টুইটটি নাকি বিসিসিআই-এর হ্যান্ডেল থেকে লাইক করা হয়েছে, এমনটাই দাবি করেছেন পাকিস্তানের সাংবাদিক। যদিও এই টুইটটি বর্তমানে বিসিসিআই টুইটার হ্যান্ডেলের লাইকে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে না। বিসিসিআই-এর লাইক করার পরে স্ক্রিনশটটি তুলে রেখেছিলেন পাকিস্তানের সাংবাদিক। পরে সেই টুইটে বোর্ডের প্রতিক্রিয়া ভাগ করে নেন তিনি। এরপরে সৈয়দ টুইট করে লিখেছেন,‘আমার টুইটটিকে সমর্থন করে ভারতকে এক্সপোজ করার জন্য বিসিসিআইকে ধন্যবাদ।’

আরও পড়ুন… দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়কের উচ্চতা নিয়ে উপহাস! বেঙ্গল টাইগার্সের টুইট ঘিরে বিতর্ক

ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে রাজনৈতিক সম্পর্ক নিয়ে বারবার প্রশ্ন উঠেছে। ২০০৮ এশিয়া কাপের পর থেকে টিম ইন্ডিয়া কখনও পাকিস্তানে যায়নি। ভারত ও পাকিস্তানের দল দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলে না। উভয় দলই একে অপরের বিপক্ষে খেলে আইসিসি ও এসিসি-র বড় কোন টুর্নামেন্টে। তবে সেটিও নিউট্রাল ভেন্যুতে এশিয়া কাপ বা আইসিসি টুর্নামেন্টে। আসছে রবিবার টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২২-এর গ্রুপ-2 ম্যাচে পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে ভারত। তবে তার মধ্যেই জমে উঠেছে মাঠের বাইরের লড়াই। এখন প্রশ্ন হল বিসিসিআই কি সত্যিই পাকিস্তানেরসাংবাদিকের লেখা‘কাপুরুষ’টুইটটি লাইক করেছে?সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল ছবি ঘিরে বিতর্ক চলছে।

বন্ধ করুন