বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > Danushka Gunathilaka Controversies: দনুষ্কা-কাণ্ডে কমিটি গঠন লঙ্কা বোর্ডের, ধর্ষণের অভিযোগের আগেও হয়েছেন নির্বাসিত

Danushka Gunathilaka Controversies: দনুষ্কা-কাণ্ডে কমিটি গঠন লঙ্কা বোর্ডের, ধর্ষণের অভিযোগের আগেও হয়েছেন নির্বাসিত

দনুষ্কা গুণতিলকে। (ফাইল ছবি, সৌজন্যে এএফপি)

Danushka Gunathilaka Controversies: অতীতে একাধিকবার শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে বিতর্কে জড়িয়েছেন দনুষ্কা গুণতিলকে। নির্বাসিতও হয়েছেন। কিন্তু কোনও জাদুবলে সেই সাজা কমে গিয়েছে। তারইমধ্যে শ্রীলঙ্কার বোর্ডের তরফে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়।

দনুষ্কা গুণতিলকের গ্রেফতারি নিয়ে বিতর্ক অব্যাহত। তা নিয়ে তদন্তের জন্য তিন সদস্যের কমিটি গঠন করল শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট বোর্ড। সেইসঙ্গে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সময় অস্ট্রেলিয়ায় খেলোয়াড় এবং কর্তাদের একাংশের বিরুদ্ধে বাজে ব্যবহারের অভিযোগ উঠেছে, তা নিয়েও তদন্ত করবে ওই কমিটি।

মঙ্গলবার শ্রীলঙ্কার বোর্ডের তরফে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, গুণতিলকের বিরুদ্ধে যে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে, তা খতিয়ে দেখতে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। ওই কমিটিতে আছেন হাইকোর্টের এক অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতিও। সেইসঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার থাকার সময় একাধিক যে অভিযোগ উঠেছে, তাও তদন্ত করে দেখবে ওই কমিটি। ওইসব ঘটনা নিয়ে দলের ম্যানেজারের থেকে ব্যাখ্যা চাওয়া হবে।

তবে অন্য গুণতিলকে ছাড়া অন্য ক্রিকেটারদের বিরুদ্ধে কী অভিযোগ উঠেছে, সেই বিষয়ে শ্রীলঙ্কার বোর্ডের তরফে বিস্তারিতভাবে কিছু জানানো হয়নি। তবে সংবাদসংস্থা এএফপির প্রতিবেদন অনুযায়ী, একাধিক শ্রীলঙ্কার সংবাদমাধ্যমের রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে যে বিশ্বকাপের সময় ১৬ টি পার্টিতে যোগ দিয়েছিলেন দলের সদস্যরা। সেই পরিস্থিতিতে শ্রীলঙ্কার বোর্ডের তরফে জানানো হয়েছে, ওই কমিটির রিপোর্টের ভিত্তিতে দোষী সদস্যদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দনুষ্কা গুণতিলকের ঘটনার আপডেট

গত রবিবার ধর্ষণের অভিযোগে গত রবিবার সিডনি থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। খারিজ হয়ে গিয়েছে তাঁর জামিনের আর্জি। অস্ট্রেলিয়ায় গুণতিলকের আইনজীবী আনন্দ অমরনাথ জানিয়েছেন, সুপ্রিম কোর্টে আপিল করবেন ৩১ বছরের বাঁ-হাতি ব্যাটার। আপাতত সংশোধনাগারে আছেন তিনি। জামিন মঞ্জুর হলে তাঁকে সংশোধনাগার থেকে ছেড়ে দেওয়া হবে। 

তবে মামলাটির নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত তাঁকে অস্ট্রেলিয়ায় থাকতে হবে বলে জানিয়েছেন গুণতিলকের আইনজীবী। তিনি জানান, যেহেতু গুণতিলকের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ (অর্থাৎ ধর্ষণের অভিযোগ) উঠেছে, সেজন্য মামলার নিষ্পত্তি হতে এক বছরের বেশি লেগে যেতে পারে।

তারইমধ্যে দনুষ্কাকে নিয়ে শ্রীলঙ্কার অভ্যন্তরীণ রাজনীতিও জড়িয়ে গিয়েছে। শ্রীলঙ্কার এক সাংবাদিক দাবি করেন, অস্ট্রেলিয়ায় মামলা চালানোর জন্য দনুষ্কার যে খরচ হবে, তা শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট বোর্ডকে বহন করার নির্দেশ দিয়েছেন দ্বীপরাষ্ট্রের এক প্রথমসারির রাজনীতিবিদ। সিডনিতে জামিনের আবেদনের ক্ষেত্রেও তাঁকে অপর রাজনীতিবিদ সাহায্য করেছিলেন বলে অভিযোগ করেন ওই সাংবাদিক। সেইসঙ্গে তিনি দাবি করেন, দেশে অসংখ্য ‘গডফাদার’ আছেন দনুষ্কার। যাঁরা বছরের পর বছর ধরে দনুষ্কাকে রক্ষা করে গিয়েছেন।

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের আসরে যৌন হেনস্থার গুরুতর অভিযোগ, টিম হোটেল থেকেই গ্রেফতার শ্রীলঙ্কার তারকা ক্রিকেটার

যদিও শ্রীলঙ্কার বোর্ডের তরফে যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। দনুষ্কাকে নিজের আইনি ক্ষমতা ব্যবহারের সুযোগ দেওয়ার ক্ষেত্রে কোনও 'তৃতীয় পক্ষের' দ্বারা প্রভাবিত হয়নি বোর্ড। ওই সাংবাদিক পুরোপুরি ভিত্তিহীন টুইট করেছেন বলে শ্রীলঙ্কার বোর্ডের তরফে দাবি করা হয়। সেইসঙ্গে দনুষ্কাকে যে সবধরণের ক্রিকেট থেকে সাসপেন্ড করে দেওয়া হয়েছে বলে স্মরণ করিয়ে দিয়েছে বোর্ড।

গুণতিলকের বিতর্ক ইতিহাস পুরনো নয়

অতীতে একাধিকবার শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে বিতর্কে জড়িয়েছেন দনুষ্কা। অনুশীলনে যোগ না দেওয়ায়, সুরক্ষাবর্ম ছাড়াই ম্যাচ খেলতে আসায় এবং অনুশীলনের সময় বাজে আচরণের জন্য তাঁকে ২০১৭ সালের ৫ অক্টোবর সাসপেন্ড করে দিয়েছিল বোর্ড। কিন্তু কলম্বোয় শ্রীলঙ্কার বোর্ডের কার্যকরী কমিটির বৈঠকের পর ১৭ অক্টোবর তাঁর শাস্তি কমিয়ে অর্ধেক করে দেওয়া হয়েছিল।

আরও পড়ুন: T20 World Cup: ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া গুণতিলকেকে নির্বাসিত করল শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড

খেলোয়াড়দের আচরণবিধি ভঙ্গ করায় ২০১৮ সালের ২২ জুলাই তাঁকে ফের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে সাসপেন্ড করে দিয়েছিল শ্রীলঙ্কার বোর্ড। কিন্তু সেই সাসপেনশনও বেশিদিন স্থায়ী হয়নি। তারপর গত বছর এপ্রিলে তাঁকে কাউন্সেলিংয়ে যোগ দিতে বলা হয়েছিল। সেইসময় একটি অনুষ্ঠানে খারাপ আচরণের অভিযোগ উঠেছিল তাঁর বিরুদ্ধে।

বন্ধ করুন