বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > ENG vs SL: অল্প রান তাড়া করতেও ঘাম ছুটল ইংল্যান্ডের, স্টোকসের দৌলতে পাকা সেমির

ENG vs SL: অল্প রান তাড়া করতেও ঘাম ছুটল ইংল্যান্ডের, স্টোকসের দৌলতে পাকা সেমির

শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি হয়েছে ইংল্যান্ড (ছবি-এএফপি)

শ্রীলঙ্কাকে চার উইকেটে হারিয়ে সেমিফাইনালের টিকিট পাকা করল ইংল্যান্ড। এরফলে সেমির দৌড় থেকে ছিটকে গেল ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। শ্রীলঙ্কার দেওয়া ১৪২ রানের লক্ষ্যে পৌঁছাতে ৬ উইকেট হারায় ইংল্যান্ড। শেষ পর্যন্ত ১৯.৪ ওভারে নিজেদের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ব্রিটিশরা। 

শ্রীলঙ্কাকে চার উইকেটে হারিয়ে সেমিফাইনালের টিকিট পাকা করল ইংল্যান্ড। এরফলে সেমির দৌড় থেকে ছিটকে গেল ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। শ্রীলঙ্কার দেওয়া ১৪২ রানের লক্ষ্যে পৌঁছাতে ৬ উইকেট হারায় ইংল্যান্ড। শেষ পর্যন্ত ১৯.৪ ওভারে নিজেদের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ব্রিটিশরা। বেন স্টোকস শেষ পর্যন্ত ক্রিজে টিকে থেকে ম্যাচ জয়ী ইনিংস খেলেন। স্টোকস এদিনের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ৩৬ বলে ৪২ রান করেন। এদিনের ম্যাচের সেরা হয়েছেন আদিল রশিদ। চার ওভার বল করে ১৬ রান দিয়ে ১ উইকেট নিয়েছিেলন। তবে শেষে বেন স্টোকস গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস না খেললে খেলার ফল অন্য হতেই পারত। 

আরও পড়ুন… আপনাদের ওখানে তো সকলে... ভারতীয় ভক্তের প্রশ্নের উত্তরে আক্রমের খোঁচা দেওয়া জবাব 

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ৩৯তম ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৪১ রান করেছিল শ্রীলঙ্কা। শ্রীলঙ্কাকে এই স্কোরে নিয়ে যেতে ওপেনার নিসাঙ্কা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন। তিনি ৪৫ বলে ২ চার ও ৫টি ছক্কার সাহায্যে ৬৭ রানের ইনিংস খেলেন। নিসাঙ্কা ছাড়াও, শুধুমাত্র ভানুকা রাজাপক্ষে ২২ বলে ২২ রানের ইনিংস খেলেন। ভানুকাই শ্রীলঙ্কার দ্বিতীয় ব্যাটার যিনি এদিন ২০ রানের সীমা অতিক্রম করতে সক্ষম হয়েছিলেন। এছাড়া কুশাল মেন্ডিস ১৪ বলে ১৮ রান করেছিলেন। এই তিন ব্যাটার ছাড়া শ্রীলঙ্কার আর কোনও ব্যাটার এদিন ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে দুই অঙ্কের রান টপকাতে পারেননি। এদিন ইংল্যান্ডের হয়ে তিনটি উইকেট নেন মার্কউড। সেমিফাইনালে উঠতে ইংল্যান্ডের প্রয়োজন ছিল ১৪২ রান।

আরও পড়ুন… দক্ষিণ আফ্রিকার ‘মিনি IPL’ –এ খেলবেন পাক ক্রিকেটাররা! সবুজ সংকেত দিল PCB

১৪২ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে জোস বাটলার এবং অ্যালেক্স হেলস ইংল্যান্ডের হয়ে দারুণ শুরু করেছিলেন। পাওয়ারপ্লেতে ইংল্যান্ড কোনও উইকেট না হারিয়ে ৭০ রান যোগ করেছিল। ৭৫ রানে বাটলারের রূপে প্রথম ধাক্কা খায় ইংল্যান্ড। ব্যক্তিগত ২৩ বলে ২৮ রান করে  হাসরাঙ্গার শিকার হন বাটলার। এরপর ১০ম ওভারে ব্যক্তিগত ৪৭ রানে হেলসকে আউট করে ইংল্যান্ডকে দ্বিতীয় ধাক্কা দেন শ্রীলঙ্কার স্পিনার হাসারাঙ্গা। ইংল্যান্ড শীঘ্রই তৃতীয় ও চতুর্থ ধাক্কা পায়। ব্রুকস চার রান করে ও লিভিংস্টোনও চার রান করে সাজঘরে ফেরেন। ধনঞ্জয় আউট করেন ব্রুকসকে। লিভিংস্টোনকে ফেরান লাহিরু কুমারা। এরপরে মইন আলি ৫ বলে ১ রান করে ধনঞ্জয়ের শিকার হন। ১৪.৩ ওভারেই ১১১ রানে ৫ উইকেট হারিয়েছিল ইংল্যান্ড। এরপরে ১১ বলে ৬ রান করে সাজঘরে ফেরেন স্যাম কারান। তবে শেষ পর্যন্ত অপরাজিত ইনিংস খেলেন বেন স্টোকস। স্টোকস এদিনের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ৩৬ বলে ৪২ রান করেন। ম্যাচে ৫ রান করে অপরাজিত থাকেন ক্রিস   

চলতি টি-২০ বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল এশিয়া চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কার। তবে তারা নিজেদের সঙ্গে ওয়ান ডে-র বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ডকেও টুর্নামেন্টের বাইরে টেনে নিয়ে যেতে মরিয়া ছিল। শ্রীলঙ্কার জন্য সুপার টুয়েলভের ম্যাচটি নিছক সম্মানরক্ষার ছিল। তবে ইংল্যান্ডের কাছে এটি ডু-অর-ডাই লড়াই ছিল। হারলেই বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যেত ইংল্যান্ড। জিতলে সেমিফাইনালের টিকিট নিশ্চিত হত। কারণ ইংল্যান্ড যদি শ্রীলঙ্কার কাছে এই ম্যাচ হেরে যেত, তবে সেমিফাইনালে চলে যেত অস্ট্রেলিয়া। এমন অবস্থায় টানটান ম্যাচে জয় নিশ্চিত করে সেমিফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করল ইংল্যান্ড। 

বন্ধ করুন