বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > বাবরদের বিরুদ্ধে ২টি T20 ম্যাচ বেশি খেলে ড্যামেজ কন্ট্রোলের চেষ্টা ইংল্যান্ডের
পাকিস্তান সফরে গিয়ে দু'টি অতিরিক্ত টি-টোয়েন্টি খেলবে ইংল্যান্ড।
পাকিস্তান সফরে গিয়ে দু'টি অতিরিক্ত টি-টোয়েন্টি খেলবে ইংল্যান্ড।

বাবরদের বিরুদ্ধে ২টি T20 ম্যাচ বেশি খেলে ড্যামেজ কন্ট্রোলের চেষ্টা ইংল্যান্ডের

  • দিন দুয়েক আগেই পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের তরফে জানানো হয়েছিল, একটি বড় খবর। পরের বছর পাক সফরে যাবে অস্ট্রেলিয়া। আর এ বার পাকিস্তান সফরে যেতে রাজি হয়ে গেল ইংল্যান্ডও। রামিজ রাজার বোর্ড জানিয়েছে, আগামী বছর সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার কথা পাকিস্তান এবং ইংল্যান্ডের।

এ যেন মেঘ না চাইতে দল। যে দলটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ঠিক আগে পাকিস্তান সিরিজ বাতিল করেছিল, তারাই একেবারে রাতারাতি যেন ভোলবদলে ফেলেছে। এখন শুধু পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সিরিজই খেলবে না ইংল্যান্ড, বাড়তি দু'টো টি-টোয়েন্টি ম্যাচও খেলবে তারা। অনেকেই বলতে শুরু করেছেন, বিশ্বকাপে পাকিস্তানের দুরন্ত পারফরম্যান্স দেখার পরেই নাকি ইংল্যান্ড তাদের ভাবনা বদলাতে বাধ্য হয়েছে।

দিন দুয়েক আগেই পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের তরফে জানানো হয়েছিল, একটি বড় খবর। তিন ফরম্যাটের ক্রিকেট খেলতে পরের বছর পাক সফরে যাবে অস্ট্রেলিয়া। আর এ বার পাকিস্তান সফরে যেতে রাজি হয়ে গেল ইংল্যান্ডও। রামিজ রাজার বোর্ড জানিয়েছে, আগামী বছর সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার কথা পাকিস্তান এবং ইংল্যান্ডের। আর রামিজ রাজার সঙ্গে ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের সিইও টম হ্যারিসন মঙ্গলবার দেখা করেন। এবং তখনই ঠিক হয়, বাবর আজমদের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত দু’ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে ইংল্যান্ড। শুধু তাই নয়, অস্ট্রেলিয়ায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পরে আবার পাক সফরে যাবেন ব্রিটিশ ক্রিকেটাররা। নভেম্বর-ডিসেম্বরে তাঁরা খেলবেন তিনটি টেস্ট ম্যাচ।

অথচ এই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরুর আগেই পাক সফরে গিয়ে নিরাপত্তার দোহাই দিয়ে খেলার শুরুর ঠিক আগে মুহূর্তে সফর বাতিল করেছিল নিউজিল্যান্ড। কিউয়িদের দেখাদেখি ইংল্যান্ডও সিরিজ বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয়। এমন কী ইংল্যান্ডের মহিলা দলেরও পাক সফরে যাওয়ার কথা ছিল। যে সফরও বাতিল করে দেয় ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড। এতে যে শুধু পিসিবি-র আর্থিক ক্ষতি হয় তা নয়, ক্রিকেটারদের কাছেও এটা চরম মানসিক ধাক্কা ছিল। এর পরে বিশ্বকাপে সেই যন্ত্রণার, সেই অপমানের জবাব দিয়ে চলেছে পাকিস্তান। দুরন্ত ছন্দে থেকে সেমিফাইনালে পৌঁছে গিয়েছে। এই মুহূর্তে বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার অন্যতম দাবীদার হয়ে উঠেছেন বাবর আজমরাই।

বন্ধ করুন