বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > শাস্ত্রীর পরিবর্তে দ্রাবিড় কি সত্যিই বিরাটদের কোচ হচ্ছেন? বড় আপডেট দিলেন সৌরভ
রাহুল দ্রাবিড় এবং সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

শাস্ত্রীর পরিবর্তে দ্রাবিড় কি সত্যিই বিরাটদের কোচ হচ্ছেন? বড় আপডেট দিলেন সৌরভ

  • রবি শাস্ত্রীর পরিবর্ত হিসেবে রাহুল দ্রাবিড় যে কোচ হচ্ছেন, এমনটাই শোনা যাচ্ছিল বেশ কিছু দিন ধরে। বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় অবশ্য জানিয়েছেন, দ্রাবিড় যে কোচ হচ্ছেনই, এমনটা এখনও নিশ্চিত নয়। তবে এই প্রস্তাবটি নিয়ে বিসিসিআই আলোচনা করছে।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর জাতীয় দলের দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়াতে চলেছেন বিরাট কোহলিদের হেড কোচ রবি শাস্ত্রী। তাঁর পরিবর্ত হিসেবে রাহুল দ্রাবিড় যে কোচ হচ্ছেন, এমনটাই শোনা যাচ্ছিল বেশ কিছু দিন ধরে। বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় অবশ্য জানিয়েছেন, দ্রাবিড় যে কোচ হচ্ছেনই, এমনটা এখনও নিশ্চিত নয়। তবে এই প্রস্তাবটি নিয়ে বিসিসিআই আলোচনা করছে।

সর্বভারতীয় এক চ্যানেলের একটি জনপ্রিয় অনুষ্ঠানে সৌরভ বলেছেন, ‘এই বিষয়টি (দ্রাবিড়ের কোচ হওয়া) এখনও নিশ্চিত নয়। আমি সংবাদপত্রে পড়েছি বিষয়টি। এর যথাযথ প্রক্রিয়া রয়েছে। বিজ্ঞাপনে দেওয়া হয়েছে। যদি ও আবেদন করে করবে।’

এ দিকে বেশ কিছু দিন ধরেই বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে দাবি করা হচ্ছে যে, টি -টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর প্রধান কোচের দায়িত্ব নেওয়ার বিষয়ে সৌরভ এবং বিসিসিআই সচিব জয় শাহকে আশ্বস্ত করেছেন দ্রাবিড়। দুবাইয়ে এই নিয়ে দ্রাবিড়ের সঙ্গে বৈঠকও হয়েছে। তবে বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট দাবি করেছেন, দুবাইয়ের বৈঠকটি ছিল জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমীর (এনসিএ) ভবিষ্যত রোডম্যাপ তৈরি করার বিষয় নিয়ে, যার নেতৃত্বে রয়েছেন দ্রাবিড়।

সৌরভ সাফ বলে দিয়েছেন, ‘এই মুহূর্তে ও এনসিএ-র ডিরেক্টর। ও দুবাইয়ে এসেছিল আমাদের সঙ্গে এনসিএ-র বিষয়ে কথা বলতে। কী ভাবে এটা এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায়, এই বিষয়ে। আমরা প্রত্যেকেই বিশ্বাস করি, ভারতীয় ক্রিকেটের ভবিষ্যৎ গড়ে তোলার জন্য এনসিএ-র বড় ভূমিকা রয়েছে। পরবর্তী প্রজন্মের ক্রিকেটারদের তৈরি করে এনসিএ। যে কারণে ও এই সব নিয়েই আলোচনা করতে গিয়েছিল।’

এর সঙ্গেই অবশ্য সৌরভ যোগ করেছেন,  ‘সিনিয়র দলের কোচিংয়ের দায়িত্ব নিতে চায় কিনা, সেই নিয়ে আগেও আমরা ওর সঙ্গে কথা বলেছিলাম। কিন্তু ওকে তেমন আগ্রহী মনে হয়নি। ওর অবস্থান এখনও পর্যন্ত অনেকটা একই রকম। তবে ও কিছু়টা সময় চেয়েছে। দেখা যাক, কী হয়!’