বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > কিউয়িদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দলে আমূল পরিবর্তনের পিছনে ধোনির হাত নেই, দাবি গম্ভীরের
ধোনি এবং গম্ভীর।
ধোনি এবং গম্ভীর।

কিউয়িদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দলে আমূল পরিবর্তনের পিছনে ধোনির হাত নেই, দাবি গম্ভীরের

  • পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারত ১০ উইকেটে হারের সম্মুখীন হয় ভারত। যে কারণে অনেকেই মনে করেন, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে হারের পরেই ভারত শঙ্কাগ্রস্ত হয়েই দলে এই আমূল পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নেয়।

শুভব্রত মুখার্জি: দীর্ঘ দিন জাতীয় দলে একসাথে খেলেছেন ভারতের বিশ্বকাপজয়ী প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি এবং গৌতম গম্ভীর। এত দিন একসাথে খেলার অভিজ্ঞতা থেকে গম্ভীরের দাবি, ‘নিউজিল্যান্ড দলের বিরুদ্ধে ভারতের দলে যে একাধিক পরিবর্তন করা হয়েছিল, তার পিছনে ধোনির হাত নেই বলেই আমি মনে করি।’ উল্লেখ্য কেন উইলিয়ামসনের দলের বিরুদ্ধে ভারত ওপেনিং জুটি থেকে শুরু করে তাদের মিডল অর্ডারে একাধিক পরিবর্তন করেছিল।

চলতি টি-২০ বিশ্বকাপে দুবাই ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে ৩১ শে অক্টোবর মুখোমুখি হয়েছিল ভারত ও নিউজিল্যান্ড দুই দল। উল্লেখ্য পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারত ১০ উইকেটে হারের সম্মুখীন হয়। তার পরের ম্যাচেই কিউয়িদের বিরুদ্ধে ৮ উইকেটে হারের সম্মুখীন হয় বিরাট বাহিনী। অনেকেই মনে করেন পাকিস্তানের বিরুদ্ধে হারের পরেই ভারত শঙ্কাগ্রস্ত হয়েই দলে এই আমূল পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নেয়।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে গম্ভীর বলেন, ‘পরিকল্পনাকারী হিসেবে আমি বিরাটকে নিয়ে কখনও-ই খুশি ছিলাম না। এই রবিবারের ম্যাচেও ওর অধিনায়কত্ব আমাকে হতাশ করেছে। প্রথম ক্ষেত্রে একটা কথা বলতে পারি ও পাকিস্তান ম্যাচের পরবর্তীতে দলে কেন আমূল পরিবর্তন করল তা আমার মাথায় ঢোকেনি। ব্যাটিং অর্ডার ও হুট করে পরিবর্তন করা হয়। রোহিতের বদলে ইশান কিষান ওপেন করতে চলে আসেন। ধোনির সাথে দীর্ঘদিন খেলার সুবাদে একথা বলতে পারি এইধরনের সিদ্ধান্ত ও নেবে না। আমি যতটুকু বুঝি বলতে পারি কোহলির সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করার ক্ষমতা দলের অন্য কারুর এবং অন্য কোন কোচিং স্টাফের ও নেই।’

বন্ধ করুন