বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > 'হিন্দুদের মাঝে নমাজ'- ধর্মান্ধের মতো এমন মন্তব্য করার জন্য ওয়াকারকে ক্ষমা চাইতে বললেন হর্ষ
হিন্দুদের মধ্যে মাঠে নমাজ পড়েছেন রিজওয়ান, ওয়াকারের সেটাই নাকি সবথেকে ভালো লেগেছে। (ছবি সৌজন্য পিটিআই এবং রয়টার্স ফাইল)
হিন্দুদের মধ্যে মাঠে নমাজ পড়েছেন রিজওয়ান, ওয়াকারের সেটাই নাকি সবথেকে ভালো লেগেছে। (ছবি সৌজন্য পিটিআই এবং রয়টার্স ফাইল)

'হিন্দুদের মাঝে নমাজ'- ধর্মান্ধের মতো এমন মন্তব্য করার জন্য ওয়াকারকে ক্ষমা চাইতে বললেন হর্ষ

  • ওয়াকার ইউনিস জানিয়েছেন, মাঠে হিন্দুদের মাঝে রিজওয়ানের নমাজ পড়া তাঁকে সবথেকে বেশি খুশি করেছে।

পাক কিংবদন্তি ওয়াকার ইউনিসের ধর্মান্ধের মতো মন্তব্যে বেজায় চটেছেন হর্ষ ভোগলে। প্রাক্তন পাক তারকার কাছ থেকে এমন মন্তব্য কখনই আশা করা যায় না বলে মত প্রখ্যাত ধারাভাষ্যকারের। এমনকি ধর্মের নিরিখে বিভেদমূলক মন্তব্য করার জন্য ওয়াকারের ক্ষমা চাওয়া উচিত বলেও দাবি করেন ভোগলে।

রবিবার দুবাইয়ে ভারত-পাক ম্যাচের মাঝেই নমাজ পড়তে দেখা যায় মহম্মদ রিজওয়ানকে। পাক উইকেটকিপারের মাঠে নমাজ পড়ার ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। ভারতের বিরুদ্ধে বিশ্বকাপে পাকিস্তানের প্রথম জয় নিয়ে সোমবার ARY News-এর এক অনুষ্ঠানে কথা বলছিলেন ওয়াকার ইউনিস এবং শোয়েব আখতার। সেই অনুষ্ঠানে ওয়াকার জানান, মাঠে হিন্দুদের মাঝে রিজওয়ানের নমাজ পড়া তাঁকে সবথেকে বেশি খুশি করেছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ওয়াকারের এমন মন্তব্যেরই সমালোচনা করলেন হর্ষ। তিনি নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে লেখেন, ‘ওয়াকারের মানের একজন ব্যক্তিত্ব বলছেন রিজওয়ানকে হিন্দুদের সামনে নমাজ পড়তে দেখা তাঁর কাছে স্পেশাল, এটা আমার শোনা সবথেকে হতাশাজনক বিষয়। আমাদের মধ্যে অনেকেই যখন বিভেদ দূরে সরিয়ে খেলাটাকে সামনে নিয়ে আসতে চান, তখন এমন মন্তব্য ভয়ানক।’

 

হর্ষ আরও লেখেন, ‘আমি সত্যিই আশা করছি যে, পাকিস্তানের যথার্থ ক্রীড়াপ্রেমীরা এমন মন্তব্যের ভয়ঙ্কর দিকটি উপলব্ধি করবেন এবং আমার মতোই হতাশা প্রকাশ করবেন। বোঝা উচিত যে, ক্রিকেটাররা, আমাদের খেলাটার যারা প্রকৃত দূত, তাঁদের আরও দায়িত্বশীল হতে হবে। আমি নিশ্চিত ওয়াকার এমন মন্তব্যের জন্য দুঃখ প্রকাশ করবেন। ক্রিকেটবিশ্বকে একজোট করা দরকার। ধর্মের নিরিখে বিচ্ছিন্ন করা নয়।’

বন্ধ করুন