বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > ১৪ রানে ২ উইকেট, অশ্বিনের অভাবনীয় কামব্যাকে উচ্ছ্বসিত কোহলি
অশ্বিনকে অভিনন্দন কোহলির। ছবি- আইসিসি।
অশ্বিনকে অভিনন্দন কোহলির। ছবি- আইসিসি।

১৪ রানে ২ উইকেট, অশ্বিনের অভাবনীয় কামব্যাকে উচ্ছ্বসিত কোহলি

  • রবিচন্দ্রন অশ্বিনের দলে ফেরাকে সবথেকে ইতিবাচক দিক হিসেবে বর্ণনা করলেন বিরাট।

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে গত টেস্ট সিরিজে রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে প্রথম একাদশে সুযোগ না দেওয়ার জন্য বিস্তর সমালোচনা হজম করতে হয় বিরাট কোহলিকে। এমনকি অশ্বিনের সঙ্গে ব্যক্তিগত সম্পর্ক ভালো না হওয়ায় কোহলি তাঁকে দিনের পর দিন মাঠের বাইরে বসিয়ে রেখেছেন, এমন অপবাদও শুনতে হয় ভারত অধিনায়ককে।

চলতি টি-২০ বিশ্বকাপের প্রথম দু'টি ম্যাচে অশ্বিনকে মাঠে নামায়নি ভারত। ফলে ফের উত্থাপিত হয় একই প্রসঙ্গ। অবশেষে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে তৃতীয় ম্যাচে বরুণ চক্রবর্তী চোট পাওয়ায় শিকে ছেঁড়ে অশ্বিনের ভাগ্যে। পড়ে পাওয়া সুযোগ অশ্বিন কীভাবে কাজে লাগান, সেটা তাঁর পারফর্ম্যান্স দেখলেই বোঝা যায়।

অশ্বিন ৪ ওভারে মাত্র ১৪ রান খরচ করে ২টি উইকেট তুলে নেন। স্বাভাবিকভাবেই টি-২০ ক্রিকেটে এমন বোলিং পারফর্ম্যান্স যে কোনও ক্যাপ্টেনকে খুশি করবে। কোহলিও ব্যতিক্রমী নন। মরণ-বাঁচন ম্যাচে অশ্বিনের এমন বোলিংয়ে আপ্লুত ভারত অধিনায়ক। ম্যাচের শেষ অশ্বিন প্রসঙ্গে নিজের উচ্ছ্বাস চেপে রাখলেন না কোহলি। তিনি স্পষ্ট জানান, অশ্বিনকে নিয়ে সবথেকে বেশি খুশি তিনি।

কোহলি বলেন, ‘আমি অশ্বিনকে নিয়ে সবথেকে বেশি খুশি। ওকে ফিরে আসতে দেখে ভালো লাগছে। মাঝের ওভারগুলোয় ও রানের গতি নিয়ন্ত্রণ করতে পারে এবং সেই সঙ্গে উইকেটও নিতে পারে। অশ্বিনের ফিরে আসা যথার্থ ইতিবাচক দিক। ফিরে আসার জন্য ও কঠোর পরিশ্রম করেছে। আইপিএলেও ও একই রকম নিয়ন্ত্রণ ও ছন্দে বোলিং করেছে। ও একজন উইকেটটেকার এবং স্মার্ট বোলার।’

বন্ধ করুন