বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > ‘নির্বাসনের সময়ে টিমের খারাপ ছেলে ছিলাম’, এখনও যন্ত্রণাটা রয়ে গিয়েছে হার্দিকের
হার্দিক পাণ্ডিয়া।
হার্দিক পাণ্ডিয়া।

‘নির্বাসনের সময়ে টিমের খারাপ ছেলে ছিলাম’, এখনও যন্ত্রণাটা রয়ে গিয়েছে হার্দিকের

  • নির্বাসনের শাস্তির কারণে শুধু মাঠেই নয়,মাঠের বাইরেও এর বড় প্রভাব পড়েছিল। সাধারণ মানুষও সেই সময়ে তীব্র ক্ষুব্ধ হয়েছিলেন হার্দিক এবং রাহুলের মন্তব্যের জন্য। সকলেই তাঁদের উপর ক্ষোভ উগড়ে দিচ্ছিলেন। সেই সময়ে বেশ কিছু এনডোর্সমেন্টের সঙ্গে হার্দিকের চুক্তিও বাতিল হয়ে গিয়েছিল।

বছর দুয়েক আগে টেলিভিশনের একটি জনপ্রিয় অনুষ্ঠানে গিয়ে নারীবিদ্বেষী মন্তব্যের জেরে নির্বাসিত হতে হয়েছিল লোকেশ রাহুল এবং হার্দির পাণ্ডিয়াকে। সেই সময়ে এই দুই ক্রিকেটারকে নিয়ে তুমুল সমালোচনার ঝড় হয়ে গিয়েছিল। ২০১৯ সালে সেই বিতর্ক চলাকালীন ভারতীয় ক্রিকেট রাহুল এবং হার্দিককে কার্যত একঘরে করে ফেলেছিল। এই পরিস্থিতিটা কতটা যন্ত্রণার ছিল হার্দিকের কাছে, সেই প্রসঙ্গেই এ বার তিনি মুখ খুলেছেন।

ইএসপিএন ক্রিকইনফোর মাসিক ক্রিকেট ম্যাগাজিনে হার্দিক বলেছেন, ‘যখন আমি শুনলাম আমকে নির্বাসিত করা হচ্ছে, অনেক ক্রিকেটার যারা আমাকে ব্যক্তিগত ভাবে চিনত এবং জানত আমি ঠিক কী রকম লোক, তারাও এই নিয়ে বাইরে সমালোচনা করেছিল। যেটা আমি মেনে নিয়েছিলাম। ওরা ভেবেছিল, আমি শেষ হয়ে গিয়েছি (কেরিয়ার শেষ হয়ে গিয়েছে)। আমি শুনেছি বহু লোকই বলতো, হার্দিক শেষ হয়ে গিয়েছে, এই ধাক্কাটা আর সামলাতে পারবে না। কারণ আমি তখন ভারতীয় ক্রিকেটের খারাপ ছেলে ছিলাম।’

সেই সময়ে হার্দিক পান্ডিয়া অস্ট্রেলিয়ার পুরো সফর এবং নিউজিল্যান্ড সফরের একটি বড় অংশ মিস করেছিলেন। শুধু মাঠেই নয়,মাঠের বাইরেও এর বড় প্রভাব পড়েছিল। সাধারণ মানুষও সেই সময়ে তীব্র ক্ষুব্ধ হয়েছিলেন হার্দিক এবং রাহুলের মন্তব্যের জন্য। সকলেই তাঁদের উপর ক্ষোভ উগড়ে দিচ্ছিলেন। সেই সময়ে বেশ কিছু এনডোর্সমেন্টের সঙ্গে হার্দিকের চুক্তিও বাতিল হয়ে গিয়েছিল।

সেই ধাক্কা কাটিয়ে ২০১৯ আইপিএলে ঘুরে দাঁড়িয়েছিলেন হার্দিক। সে বার মোট ৪০২ রান করেছিলেন তিনি। স্ট্রাইকরেট ছিল ১৯১.৪২। বল হাতে মোট ১৪টি উইকেট নিয়েছিলেন। আর সে বার মুম্বই ইন্ডিয়ার চতুর্থ বার আইপিএলও চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল।

বন্ধ করুন