বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > বয়স বাদ দিন, কোহলির ফিটনেসও কারও নেই- ক্ষোভ উগরালেন '৮৩-র বিশ্বকাপজয়ী তারকা

বয়স বাদ দিন, কোহলির ফিটনেসও কারও নেই- ক্ষোভ উগরালেন '৮৩-র বিশ্বকাপজয়ী তারকা

বিরাট কোহলি।

ভারতের এই লজ্জার হারের পর ভারতীয় দল রীতমতো সমালোচনায় জেরবার হচ্ছে। যেখানে প্রাক্তন ক্রিকেটাররা দল নির্বাচনের সিদ্ধান্ত এবং ‘ওয়ার্কলোড ম্যানেজমেন্ট’ আজুহাতের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের কাছে ১০ উইকেটে লজ্জাজনক ভাবে হেরেছে টিম ইন্ডিয়া। ইংল্যান্ডের দুই ওপেনার জস বাটলার (অপরাজিত ৮০) এবং অ্যালেক্স হেলস (অপরাজিত ৮৬) অপরাজিত ১৭০ রানের পার্টনারশিপের রেকর্ড গড়ে ভারতকো গো-হারান হারিয়েছে। ভারতীয় বোলারদের কঙ্কালসার চেহারাটা বের করে দিয়ে ফাইনালে উঠেছে ইংল্যান্ড। রবিবার ফাইনালে পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে তারা।

আরও পড়ুন: টানা ৫ দিন ধরে ঝড়বৃষ্টির পূর্বাভাস, T20 WC-এর ফাইনাল ঘিরে তীব্র অনিশ্চয়তা

আর ভারতের এই লজ্জার হারের পর ভারতীয় দল রীতমতো সমালোচনায় জেরবার হচ্ছে। যেখানে প্রাক্তন ক্রিকেটাররা দল নির্বাচনের সিদ্ধান্ত এবং ‘ওয়ার্কলোড ম্যানেজমেন্ট’ আজুহাতের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন।

ভারতের প্রাক্তন খেলোয়াড় কীর্তি আজাদ, যিনি ১৯৮৩ সালের বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য ছিলেন, তিনিও ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের ব্যর্থতার পর কীর্তি আজাদ দাবি করেছেন, একাধিক অধিনায়ক বিভ্রান্তির দিকেই টিমকে ঢেলে দেয়।

আরও পড়ুন: পাকিস্তানের দুই ওপেনার শক্তি আবার দুর্বলতাও, পেসাররা ভরসা, মিডল অর্ডার যন্ত্রণার

তাঁর দাবি, ‘আমি বলছি না যে বিভিন্ন ফরম্যাটে আলাদা আলাদা ক্যাপ্টেন থাকতে পারে না। কিন্তু আপনার যদি অনেক ক্যাপ্টেন থাকে, এটা বিভ্রান্তিকর পরিস্থিতি তৈরি হয়। এটা একেবারেই ঠিক নয়।’

এর সঙ্গেই তিনি ভারতীয় দলের ফিটনেস নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। তাঁর বক্তব্য খুব স্পষ্ট, বিরাট কোহলির দলের বাকিদের ফিটনেস নেই। আজাদ বলেওছেন, ‘আপনি বয়স সম্পর্কে যদি বলেন, আপনি যদি এই সমস্ত খেলোয়াড়দের কোহলির বিরুদ্ধে ফিটনেস পরীক্ষায় নামতে বলে, তবে কোহলিই জিতবেন।’ আজাদের দাবি, ভারতীয় দলে বয়স-সম্পর্কিত বিতর্কের চেয়ে ফিটনেসকে অগ্রাধিকার দেওয়া উচিত।

বন্ধ করুন