বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > 'বার্গার, পিৎজা চাইলে' বলুন, 'মারো মুঝে মারো’ নিয়ে পাকিস্তানকে খোঁচা Zomato-র
পাকিস্তানের অনুশীলনে বাবর আজম এবং ‘ও ভাই… মারো মুঝে মারো’ ভিডিয়োর যুবক। (ছবি সৌজন্য টুইটার @TheRealPCB এবং টুইটার)
পাকিস্তানের অনুশীলনে বাবর আজম এবং ‘ও ভাই… মারো মুঝে মারো’ ভিডিয়োর যুবক। (ছবি সৌজন্য টুইটার @TheRealPCB এবং টুইটার)

'বার্গার, পিৎজা চাইলে' বলুন, 'মারো মুঝে মারো’ নিয়ে পাকিস্তানকে খোঁচা Zomato-র

  • ২০১৯ সালের ‘ও ভাই… মারো মুঝে মারো’ ভিডিয়ো নিয়ে চূড়ান্ত খোঁচা।

এমনিতেই বিশ্বকাপে ভারতের বিরুদ্ধে ১২-০ ব্যবধানে পিছিয়ে পাকিস্তান। তারইমধ্যে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে মহারণের আগেরদিন পাকিস্তানকে ট্রোল করতে ছাড়ল না জোম্যাটো। ২০১৯ সালের ‘ও ভাই… মারো মুঝে মারো’ ভিডিয়ো নিয়ে ফুড ডেলিভারি সংস্থার খোঁচা, বার্গার বা পিৎজা চাইলে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড সরাসরি মেসেজ করতে পারে।

শনিবার সন্ধ্যার দিকে টুইটারে জোম্যাটোর তরফে বলা হয়, ‘প্রিয়, পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড, আজ রাতে যদি বার্গার বা পিৎজার খোঁজ করে থাকেন, তাহলে আমাদের একটি ডিএম (ডিরেক্ট মেসেজ) করলেই হবে।’ সেই টুইটে বাবর আজমদের পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডকেও ট্যাগ করা হয়। সঙ্গে খোঁচা হিসেবে চোখ মারার স্মাইলিও দেওয়া হয়।

কিন্তু আচমকা বার্গার ও পিৎজা নিয়ে খোঁচা কেন দিল জোম্যাটো?

সেই খোঁচার নেপথ্যে আছে ২০১৯ সালের বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের পরের একটি ভাইরাল ভিডিয়ো। যে ম্যাচে ডার্কওয়ার্থ লুইস মেথডে ৮৯ রানে জিতেছিল ভারত। ম্যাঞ্চেস্টারে প্রথমে ব্যাট করে পাঁচ উইকেটে ৩৩৬ রান তুলেছিলেন বিরাট কোহলিরা। জবাবে একটা সময় ভালো অবস্থায় থাকলেও আচমকা ধস নামে পাকিস্তানের। শেষপর্যন্ত বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে ৪০ ওভারে ছ'উইকেটে ২১২ রানের বেশি তুলতে পারেননি বাবর আজমরা। সেই ম্যাচের পর এক পাকিস্তানি ভক্ত রীতিমতো ক্ষোভের সুরে বলেছিলেন, 'যে দেশে এত সমস্যা আছে, অর্থনীতি ধুঁকছে, খাবার-জলের সমস্যা আছে, সেই দেশে ছোটো ছোটো যে খুশির জিনিস আছে, তার মধ্যে একটি হল ক্রিকেট। দিব্যি দিয়ে বলছি, আমি জানতে পেরেছি যে ওঁরা কাল রাতে বার্গার খাচ্ছিল। কাল রাতে ওঁরা পিৎজা খাচ্ছিলেন।' যে ভিডিয়ো ‘ও ভাই… মারো মুঝে মারো’-র জন্য তুমুল ভাইরাল হয়ে গিয়েছিল।

বন্ধ করুন