বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > IND vs ENG Semi-Final: 'সেকেন্ড হ্যান্ড' পিচ থেকে সূর্যকুমার, সেমিফাইনালের ভাগ্য নির্ধারণ করতে পারে এই ৫টি বিষয়

IND vs ENG Semi-Final: 'সেকেন্ড হ্যান্ড' পিচ থেকে সূর্যকুমার, সেমিফাইনালের ভাগ্য নির্ধারণ করতে পারে এই ৫টি বিষয়

সূর্যকুমার যাদব। ছবি- এএফপি (AFP)

India vs England T20 World Cup 2022 2nd Semi-Final:ভারত বনাম ইংল্যান্ড টি-২০ বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে প্রভাব ফেলতে পারে যে বিষয়গুলি, দেখে নেওয়া যাক একনজরে।

চলতি টি-২০ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে মাঠে নামার আগে ভারত-ইংল্যান্ড উভয় দলকেই কার্যত সমান শক্তিশালী দেখাচ্ছে। স্বাভাবিকভাবেই ব্যাট-বলের জোর টক্কর দেখা যাবে অ্যাডিলেডে, এমনটাই প্রত্যাশিত। তবে এমন হাই-ভোল্টেজ নক-আউট ম্যাচে যে বিষয়গুলি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়াতে পারে, দেখে নেওয়া যাক একনজরে।

১. এমনিতেই অ্যাডিলেডের বাইশগজ তুলনায় স্লো বোলারদের সাহায্যে করে। সেই অর্থে উপমহাদেশের বাইশগজের সঙ্গে মিল রয়েছে অ্যাডিলেড ওভালের পিচের। তার উপর পুরনো পিচে খেলা হবে ভারত-ইংল্যান্ড দ্বিতীয় সেমিফাইনাল। একই পিচে ৪ নভেম্বর অস্ট্রেলিয়া-আফগানিস্তান ম্যাচ খেলা হয়েছিল। পিচ মেরামত করার জন্য হাতে বেশ কিছুদিন সময় পাওয়া গেলেও হঠাৎ করে বাইশগজ তরতাজা হয়ে উঠবে, এমনটা আশা করা বোকামি। সুতরাং, বাইশগজ থেকে বাড়তি সুবিধা আদায় করে নিতে পারে ভারত। ইংল্যান্ডের হাতেও ভালো মানের স্পিনার রয়েছে। তবে ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা এমন পিচে খেলতে অভ্যস্ত বলেই তা টিম ইন্ডিয়ার কাছে প্লাস পয়েন্ট হিসেবে বিবেচিত হতে পারে। পিচ ও টস এক্ষেত্রে ম্যাচের ফলাফলে প্রভাব ফেলতে পারে।

আরও পড়ুন:- T20 World Cup 2022: পাকিস্তানের বিরুদ্ধে রুদ্ধশ্বাস জয় থেকে জিম্বাবোয়ে ম্যাচে একতরফা দাপট, কোন পথে সেমিফাইনালে ভারত?

২. বিশ্বকাপের নক-আউট ম্যাচের সঙ্গে দ্বি-পাক্ষিক টি-২০ সিরিজের কোনও তুলনা হয় না। তবে কোনও প্রতিপক্ষকে শেষ চারটি টি-২০ সিরিজে পরাজিত করলে যে কোনও দল বাড়তি আত্মবিশ্বাস নিয়ে মাঠে নামবে। ভারত ঘরে-বাইরে শেষ ৪টি আন্তর্জাতিক টি-২০ সিরিজে হারিয়ে দিয়েছে ইংল্যান্ডকে। তাছাড়া বিশ্বকাপেও মুখোমুখি লড়াইয়ে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে টিম ইন্ডিয়া।

৩. সেমিফাইনালের আগে ভারতীয় শিবিরের প্রত্যেকেই যেখানে পুরোপুরি ম্যাচ ফিট, ইংল্যান্ড শিবির ভুগছে চোট-আঘাত সমস্যায়। ডেভিড মালান ও মার্ক উডের চোট রয়েছে। শেষ পর্যন্ত দুই তারকা মাঠে নামতে না পারলে প্রথম পছন্দের ১১ জনকে নিয়ে লড়াইয়ে নামা সম্ভব হবে না ইংল্যান্ডের পক্ষে। সেক্ষেত্রে মানসিকভাবে চাপে থাকবেন বাটলাররা।

আরও পড়ুন:- IND vs ENG: স্পিনারদের বিরুদ্ধে পালটা দিতে বাঁ-হাতি চাই! পন্ত নাকি কার্তিক, কী ইঙ্গিত দিলেন রোহিত?

৪. সেমিফাইনালে একাই তফাৎ গড়ে দিতে পারেন সূর্যকুমার যাদব। ভারত ও ইংল্যান্ড, উভয় দলেই দারুণ মানের পেসার রয়েছেন। স্পিন বোলিং মন্দ নয় উভয় দলেরই। ব্যাটিং লাইন-আপও শক্তিশালী দু'দেশের। তবে ভারতের মিডল অর্ডারে সূর্যকুমার যাদব যেমন খেলছেন, তার ধারে-কাছে পৌঁছনো মুশকিল লিয়াম লিভিংস্টোনদের পক্ষে। ব্রিটিশ বোলাররা সূর্যকুমারকে নিয়ে আলাদা করে দুশ্চিন্তায় থাকতে বাধ্য।

৫. ফিল্ডিং সেমিফাইনালের ভাগ্য নির্ধারণের ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নিতে পারে। ভারতীয় দলের গ্রাউন্ড ফিল্ডিং আগের থেকে ভালো হলেও ক্যাচ পড়ছে প্রায় প্রতি ম্যাচেই। ক্যাচ ছেড়েছেন ব্রিটিশ তারকারাও। এক্ষেত্রে সেমিফাইনালের মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে যে দলের ফিল্ডাররা বোলারদের যথাযথ সহায়তা করতে পারবনে, ফাইনালের টিকিট উঠতে পারে তাদের হাতেই।

বন্ধ করুন