বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > Indian Team Transition: ছেঁটে ফেলা হবে একাধিক সিনিয়রকে, T20-তে ভারতের অধিনায়ক হতে পারেন হার্দিক, দাবি রিপোর্টে

Indian Team Transition: ছেঁটে ফেলা হবে একাধিক সিনিয়রকে, T20-তে ভারতের অধিনায়ক হতে পারেন হার্দিক, দাবি রিপোর্টে

রোহিত শর্মার হাত থেকে ভারতের টি-টোয়েন্টি দলের ব্যাটন রোহিত শর্মার হাতে যাবে? (ছবি সৌজন্যে এপি)

Indian Team Transition: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বিপর্যয়ের পর ভারতীয় দলে ছাঁটাই শুরু হতে চলেছে। তেমনই দাবি করা হয়েছে একটি রিপোর্টে। ওই রিপোর্ট অনুযায়ী, বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মাদের ছাঁটাই করা হবে না। তাঁরা নিজেদের টি-টোয়েন্টি ভবিষ্যৎ নির্ধারণ করার সুযোগ পেতে পারেন।

বিশ্বকাপে ধাক্কার পর পরিবর্তনের ঢেউ আছড়ে পড়তে চলেছে ভারতের টি-টোয়েন্টি দলে। আগামী দু'বছরে তরুণ খেলোয়াড়দের হাতে টি-টোয়েন্টি দলের ব্যাটন তুলে দেওয়া হবে। তবে একলপ্তে সেটা করা হবে না। বরং ধাপে-ধাপে রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি, রবিচন্দ্রন অশ্বিনরা জাতীয় দলের টি-টোয়েন্টি বৃত্ত থেকে সরে যাবেন। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সূত্র উদ্ধৃত করে এমনই জানিয়েছে সংবাদসংস্থা পিটিআই।

বৃহস্পতিবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ভারতের লজ্জাজনক হারের পর থেকেই পরিবর্তনের ডাক উঠেছে। কেএল রাহুল, রোহিত, মহম্মদ শামি, ভুবনেশ্বর কুমারদের মতো যে সিনিয়ররা ছন্দে ছিলেন না, তাঁদের ছেঁটে ফেলার দাবি উঠেছে। ওই মহলের বক্তব্য, পরবর্তী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে ভারতীয় বোর্ডের হাতে দু'বছর আছে। ওই সময়ের মধ্যে ভারতের টি-টোয়েন্টি দলের খোলনলচে বদলে ফেলতে হবে। এবারের বিশ্বকাপের কয়েকজনকে (সূর্যকুমার যাদব, হার্দিক পান্ডিয়া, আর্শদীপ সিংয়ের মতো খেলোয়াড়) রেখে সঞ্জু স্যামসন, ইশান কিষানদের মতো খেলোয়াড়দের নিয়ে ভারতের টি-টোয়েন্টি দল গড়ে তোলার দাবি উঠেছে।

ওই সংবাদসংস্থার প্রতিবেদন অনুযায়ী, আগামিদিনে সেটাই হতে চলেছে বলে দাবি করেছেন বিষয়টির সঙ্গে অবহিত কর্তারা। তাঁরা জানিয়েছেন, আগামী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য একেবারে নয়া দল গড়ে তোলা হবে। দীর্ঘমেয়াদি অধিনায়ক হিসেবে হার্দিককে বিবেচনা করা হচ্ছে। যে হার্দিকের অধিনায়কত্বে অভিষেক মরশুমেই আইপিএল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে গুজরাট টাইটানস। ভারতের হয়েও অধিনায়কত্ব করেছেন হার্দিক। নিউজিল্যান্ড সফরেও টি-টোয়েন্টি সিরিজের ভারতীয় দলের অধিনায়কত্ব করবেন।

সেই পরিস্থিতিতে টি-টোয়েন্টি থেকে রোহিতদের কি সোজাসুজি বাদ দেওয়া হবে? সূত্র উদ্ধৃত করে ওই সংবাদসংস্থার প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম ফর্ম্যাটে ভারতীয় দলের হয়ে অশ্বিন এবং দীনেশ কার্তিক শেষ ম্যাচ খেলে ফেলেছেন বলে মনে করা হচ্ছে। যাঁদের বয়স ২০২৪ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সময় প্রায় ৪০ হয়ে যাবে। তবে বর্তমান অধিনায়ক রোহিত এবং বিরাটকে (এবারের বিশ্বকাপে এখনও পর্যন্ত সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক) নিজেদের টি-টোয়েন্টি ভবিষ্যৎ নির্ধারণের সুযোগ দেবে ভারতীয় বোর্ড।

নাম গোপন রাখার শর্তে বোর্ডের এক সূত্রকে উদ্ধৃত করে পিটিআই বলেছেন, 'বিসিসিআই কোনওদিন কাউকে অবসর নিতে বলে না। ওটা পুরোপুরি ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। ২০২৩ সালে (২০২৩ সালে ৫০ ওভারের বিশ্বকাপ আছে) হাতেগোনা কয়েকটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ থাকায় ওই সময় অধিকাংশ সিনিয়র ক্রিকেটার একদিনের ম্যাচ এবং টেস্টে মনোনিবেশ করবেন। আপনি যদি অবসর ঘোষণা না করতে চান, তাহলে আপনাকে করতে হবে না। (কিন্তু) আগামী বছর অধিকাংশ সিনিয়রকে টি-টোয়েন্টি খেলতে দেখব না আমরা।'

আরও পড়ুন: Rahul Dravid on Foreign Leagues: বিদেশি T20 লিগে খেললে ভারতীয়দের লাভ হবে, তবে টেস্ট ক্রিকেট শেষ হয়ে যাবে: রাহুল

যদিও বিষয়টি নিয়ে প্রকাশ্যে কিছু বলতে চাননি ভারতীয় দলের হেড কোচ রাহুল দ্রাবিড়। যিনি নিজে এখনও ‘হানিমুন’ পিরিয়ডে থাকলেও তাঁর আমলে ভারতীয় দলের পারফরম্যান্স নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। বৃহস্পতিবার ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে লজ্জাজনক হারের পর দ্রাবিড় বলেন, ‘এটা (টি-টোয়েন্টি রোহিত, বিরাট, ভুবিদের ভবিষ্যৎ কী হবে) বলার এখনও সময় আসেনি। বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে হারের ঠিক পরেই (এটা নিয়ে কথা বলা যায় না)। ওরা ভারতের হয়ে বছরের পর বছর ধরে দুর্দান্ত খেলে এসেছে।' 

আরও পড়ুন: India's timid approach against England: Intent, Process-এর গপ্পো, শেষে ভীতুর ডিমের মতো খেলা, রোহিতদের নিয়ে উঠল প্রশ্ন

ভারতীয় দলের হেড কোচ আরও বলেন, 'আপনি (যে সাংবাদিক প্রশ্ন করেছিলেন, তাঁকে উদ্দেশ্য করে) যেমন বললেন, পুরোটা বিবেচনা করার জন্য আমাদের হাতে বছরদুয়েক আছে। আমাদের দুর্দান্ত সব খেলোয়াড় আছে। এই বিষয় নিয়ে কথা বলা বা এই বিষয় নিয়ে ভাবনাচিন্তা করার সঠিক সময় নয় এটা। আগামীদিনে আমাদের হাতে যথেষ্ট ম্যাচ আছে। যে সময় পরবর্তী (টি-টোয়েন্টি) বিশ্বকাপের জন্য তৈরি করা যাবে।’

বন্ধ করুন