বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > Jos Buttler's celebration: ভিডিয়ো: WC জিতে শান্ত ছিলেন, সেই বাটলারই IPL জয়ের পর তোয়ালে পরে নেচেছিলেন

Jos Buttler's celebration: ভিডিয়ো: WC জিতে শান্ত ছিলেন, সেই বাটলারই IPL জয়ের পর তোয়ালে পরে নেচেছিলেন

২০১৭ সালের আইপিএল জয়ের পর জস বাটলারের উচ্ছ্বাস (ফাইল ছবি, সৌজন্যে ইনস্টাগ্রাম)। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ের পর বাটলার। (ছবি সৌজন্যে এএফপি)

Jos Buttler's celebration: ২০১৭ সালের আইপিএল এবং ২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ - পাঁচ বছরের ব্যবধানে জস বাটলারের সেলিব্রেশনের একেবারে ভিন্ন ছবি ধরা পড়ল। অন্যক্ষেত্রেও পার্থক্য আছে। ২০১৭ সালে এমনি খেলোয়াড় ছিলেন। এখন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক তিনি।

নেই কোনও বাড়তি উচ্ছ্বাস-উন্মাদনা। একেবারে ধীরস্থির থাকলেন। দেখে মনেই হচ্ছিল না যে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতেছেন। সেইসঙ্গে অনেকে অবাক হয়ে যাচ্ছেন, ইনিই কি সেই জস বাটলার, যিনি মুম্বই ইন্ডিয়ান্স আইপিএল জিততে এমন লাফিয়েছিলেন যে তোয়ালে প্রায় খুলেই যাচ্ছিল? হয়ে যাচ্ছিলেন উলঙ্গ?

রবিবার ঐতিহাসিক মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে পাকিস্তানকে হারিয়ে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতেছে বাটলারের ইংল্যান্ড। সাদা বলের ক্রিকেটে ইংল্যান্ডের স্থায়ী অধিনায়ক হওয়ার পর সেটাই ছিল বাটলারের প্রথম আইসিসি টুর্নামেন্ট। অথচ বিশ্বকাপ জয়ের পর টিভিতে বাাটলারের যে উচ্ছ্বাস ধরা পড়েছে, তা নিতান্তই সাদামাঠা।

বেন স্টোকসের পর জয়সূচক শটের পর স্যাম কারান, হ্যারি ব্রুকরা মাঠে চলে গেলেও ডাগ-আউটে দাঁড়িয়ে একগাল হাসছিলেন বাটলার। সঙ্গে হাততালি দিচ্ছিলেন। ইংল্যান্ডের কোচিং স্টাফরা যখন হার্ডল করে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করছিলেন, তখন সেই হার্ডলের উপর ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন বাটলার। তাছাড়া বিশ্বকাপ ট্রফি হাতে নেওয়া বা বিশ্বকাপ নিয়ে সাক্ষাৎকার দেওয়ার ক্ষেত্রেও তেমন উচ্ছ্বাস-উন্মাদনা ধরা পড়েনি বাটলারের শরীরী ভাষায়। অনেকটাই যেন মহেন্দ্র সিং ধোনির মতো মনে হচ্ছিল। যা দেখে কিছুটা অবাক হচ্ছিলেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ থেকে সমর্থকরা।

আরও পড়ুন: England creates history: ইতিহাস ইংল্যান্ডের, একইসঙ্গে ঝুলিতে ২ বিশ্বকাপ, সবথেকে কাছে ছিল ভারত-অস্ট্রেলিয়া

তারইমধ্যে নেটিজেনরা বাটলারের পুরনো একটি ভিডিয়ো খুঁজে বের করেন। যে ভিডিয়ো বাটলার নিজেই ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছিলেন। মুম্বই ইন্ডিয়ান্স আইপিএল জেতায় ২০১৭ সালের ২১ মে'র সেই ভিডিয়োয় বাটলারকে বাঁধভাঙা উচ্ছ্বাস প্রকাশ করতে দেখা গিয়েছিল। সেদিন ফাইনালে রাইজিং পুণে সুপারজায়েন্টকে এক রানে হারিয়ে আইপিএল জিতেছিল মুম্বই। শেষ বলে জয়ের জন্য চার রান দরকার ছিল পুণের। ডিপ মিড-উইকেটে মুম্বইয়ের মিসফিল্ডের ফলে পুণের ব্যাটাররা তৃতীয় রান নেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু রান-আউট হয়ে গিয়েছিলেন ড্যান ক্রিশ্চিয়ান।

সেই ভিডিয়োয় দেখা গিয়েছিল, তোয়ালে পরে টিভির সামনে দাঁড়িয়ে আছেন বাটলার। যিনি সেইসময় মুম্বইয়ে খেলতেন। শেষ বলে পুণে রান নেওয়ার সময় এতটাই উত্তেজিত হয়ে পড়েন যে তোয়ালে খুলে পিঠের কাছে তুলে নেন। শেষপর্যন্ত মুম্বইয়ের উইকেটকিপার পার্থিব প্যাটেল স্টাম্প ভেঙে দিতেই লাফাতে থাকেন বাটলার। এমনই উত্তেজিত হয়ে পড়েছিলেন যে তোয়ালে প্রায় খুলে যাচ্ছিল। সেজন্য ভিডিয়োর একাংশ ঢাকাও ছিল। যে ভিডিয়ো সেইসময় ভাইরাল হয়ে গিয়েছিল। ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ জেতার পর ফের সেই ভিডিয়ো ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

বন্ধ করুন