বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > Matthew Mott wins 2 World Cups within a year: সাড়ে ৭ মাসের মধ্যে ২ বিশ্বকাপ জয় ইংল্যান্ডের কোচের! ভারত কি দায়িত্ব দেবে?

Matthew Mott wins 2 World Cups within a year: সাড়ে ৭ মাসের মধ্যে ২ বিশ্বকাপ জয় ইংল্যান্ডের কোচের! ভারত কি দায়িত্ব দেবে?

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হাতে ইংল্যান্ডের কোচ ম্যাথু মট (বাঁদিকে, সৌজন্যে এএফপি), অস্ট্রেলিয়াকে ৫০ ওভারের বিশ্বকাপ জেতানোর পর ম্যাথু (ডানদিকে, সৌজন্যে আইসিসি)

Matthew Mott wins 2 World Cups within a year: ম্যাথু মট যখন অস্ট্রেলিয়া মহিলা দলের কোচ ছিলেন, তখন বিশ্বকে শাসন করেছেন অজিরা। ইংল্যান্ডের দায়িত্ব পাওয়ার কয়েক মাসের মধ্যে ইংরেজদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতালেন।

একই ক্যালেন্ডার বর্ষে জোড়া বিশ্বকাপ জয়ের নজির গড়লেন ম্যাথু মট। বছরের শুরুতে তাঁর কোচিংয়েই ৫০ ওভারের বিশ্বকাপ জিতেছিল অস্ট্রেলিয়া মহিলা দল। এবার প্রাক্তন ক্রিকেটারের কোচিংয়েই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতল ইংল্যান্ডের পুরুষ দল।

গত এপ্রিলে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে ৫০ ওভারের বিশ্বকাপ জিতেছিল অস্ট্রেলিয়া মহিলা দল। প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে পাঁচ উইকেটে ৩৫৬ রান তুলেছিলেন মেগ ল্যানিংরা। ১৩৮ বলে ১৭০ রানের ইনিংস খেলেছিলেন অ্যালিসা হিলি। রান তাড়া করতে নেমে ন্যাট স্কিভার ছাড়া কোনও ইংরেজ দাঁড়াতে পারেননি। ১২১ বলে ১৪৮ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি। ৭১ রানে জিতেছিল অস্ট্রেলিয়া।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে অস্ট্রেলিয়ার মহিলা দলের কোচের পদে বসেছিলেন ম্যাথু। তারপর সাত বছর অস্ট্রেলিয়ার মহিলা দলের দায়িত্বে ছিলেন কুইন্সল্যান্ড এবং ভিক্টোরিয়ার প্রাক্তন ওপেনার। সেইসময় মহিলা ক্রিকেটকে শাসন করেছিলেন অজিরা। জিতেছিলেন দুটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। শুধু তাই নয়, পরপর চারটি অ্যাসেজে জিতেছিলেন। টানা ২৬ টি একদিনের ম্যাচও অস্ট্রেলিয়া জিতেছিল ম্যাথুর আমলে। যা পুরুষ বা মহিলা ক্রিকেট মিলিয়ে রেকর্ড। তারইমধ্যে ২০১৭ সালের ৫০ ওভারের বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে হরমনপ্রীত কৌরের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ের কারণে ছিটকে গিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। তবে ২০২২ সালে আবারও সিংহাসন দখল করেছেন অজিরা। সেই জয়ের পর অস্ট্রেলিয়ার মহিলা দলের দায়িত্ব ছেড়ে দেন ম্যাথু।

যে ইংল্যান্ডের মহিলা দলকে হারিয়ে ম্যাথুর অস্ট্রেলিয়া ৫০ ওভারের বিশ্বকাপ জিতেছিল, সেই দেশের পুরুষ দলের কোচ হন। টেস্ট ক্রিকেটে ব্রেন্ডন ম্যাককালাম কোচ আছেন। মে'তে সাদা বলের ক্রিকেটে ম্যাথুকে কোচিংয়ের দায়িত্ব দেয় ইংল্যান্ড বোর্ড। দায়িত্ব নেওয়ার ছয় মাসের মধ্যেই ইংল্যান্ডকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতালেন ম্যাথু। 

আরও পড়ুন: England creates history: ইতিহাস ইংল্যান্ডের, একইসঙ্গে ঝুলিতে ২ বিশ্বকাপ, সবথেকে কাছে ছিল ভারত-অস্ট্রেলিয়া

তবে কাজটা সহজ ছিল না ম্যাথুর কাছে। নয়া অধিনায়ক জস বাটলারকে নিয়ে তাঁকে যাত্রা শুরু করতে হয়েছিল। প্রাথমিকভাবে অধিনায়ক বাটলারের গ্রাফ উত্থান-পতনের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছিল। সেখানেই ম্যাথুর ম্যাজিক কাজ করেছে। তাঁর ছোঁয়ায় অনেক বেশি পরিণত হয়ে উঠেছেন বাটলার। যা এবারের পুরুষদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেই বোঝা গিয়েছে। বিশেষত চোটের জন্য সেমিফাইনাল ও ফাইনালে সেরা বোলার মার্ক উড খেলতে না পারার পর যেভাবে দলের বোলিং লাইন-আপ সামলেছেন বাটলার, তা নজর কেড়েছে সকলের।

আরও পড়ুন: Shami hits back at Shoaib Akhtar: 'কর্মফল ভোগ করছ ভাই', ভারতীয়দের হেয় করা শোয়েবকে শুনিয়ে দিলেন শামি

সেই পরিস্থিতিতে ভারত কি ম্যাথুকে কোচ হিসেবে আনতে চাইবে? কারণ এবারের বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল থেকে ছিটকে যাওয়ার পর টি-টোয়েন্টিতে ভারতীয় দলে আমূল পরিবর্তনের দাবি তুলেছেন অনেকে। যদিও ইংল্যান্ড যে ম্যাথুকে এত সহজে ছাড়বে না, তা কার্যত নিশ্চিত বলে মত সংশ্লিষ্ট মহলের।

বন্ধ করুন