বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > ২০১৫ ODI WC ফাইনালের প্রথম বলের রিক্যাপ ২০২১ T20 WC ফাইনালে, জানুন কী ভাবে
মিচেল স্টার্ক। ছবি: এএনআই
মিচেল স্টার্ক। ছবি: এএনআই

২০১৫ ODI WC ফাইনালের প্রথম বলের রিক্যাপ ২০২১ T20 WC ফাইনালে, জানুন কী ভাবে

  • মিচেল স্টার্কই প্রথম বোলার যিনি এই দুই বিশ্বকাপের প্রথম বল করেছেন। এ রকম ঘটনা আর কোনও বোলারের সঙ্গে আগে ঘটেনি। নিঃসন্দেহে নয়া নজির গড়ে ফেলেছেন তিবি। এখানেই শেষ নয়, ২০১৫ সালে মার্টিন গাপ্তিলই প্রথম স্ট্রাইকে নিয়েছিলেন। আর এ বারও তিনিই স্ট্রাইক নেন। মিচেল স্টার্কের মতো তিনিও তাই নজির গড়ে ফেলেন।

এক আজব নজির হয়তো নিজেদের অজান্তেই গড়ে ফেলেছেন অস্ট্রেলিয়ার মিচেল স্টার্ক এবং নিউজিল্যান্ডের মার্টিন গাপ্তিল। ২০১৫ সালের ওডিআই বিশ্বকাপ ফাইনালের প্রথম বলেরই যেন পুনরাবৃত্তি ঘটল ২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে। সে বারও মিচেল স্টার্ক ফাইনাল ম্যাচের প্রথম বলটি করেছিলেন। চলতি বিশ্বকাপের ফাইনালেও ঘটল একই ঘটনা। মিচেল স্টার্কই রবিবার টি-টোয়েন্টি ফাইনালের প্রথম বলটি করেন। ২০১৫ হোক বা ২০২১, এই দুই বিশ্বকাপেই প্রথম বলে কোনও রান হয়নি।

মিচেল স্টার্কই প্রথম বোলার যিনি এই দুই বিশ্বকাপেই প্রথম বল করেছেন। এ রকম ঘটনা আর কোনও বোলারের সঙ্গে আগে ঘটেনি। নিঃসন্দেহে নয়া নজির গড়ে ফেলেছেন অস্ট্রেলিয়ার তারকা বোলার।

এখানেই শেষ নয়, ২০১৫ সালে মার্টিন গাপ্তিলই প্রথম স্ট্রাইকে ছিলেন। আর এ বারও তিনিই স্ট্রাইক নেন। মিচেল স্টার্কের মতো তিনিও তাই নজির গড়ে ফেলেন। কারণ এর আগে দুই বিশ্বকাপে এ ভাবে প্রথম বলে আর কোনও ক্রিকেটার স্ট্রাইক নেননি।

মিচেল স্টার্ক প্রথম ওভারে কোনও রান না দিলেও, সেই ওভারে তিনি মোট ৯ রান দেন। তবে ৪ ওভারে এ দিন মোট ৬০ রান দিয়ে লজ্জার নজির গড়েছেন স্টার্ক। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের নক আউটে সবচেয়ে বেশি রান দেওয়ার লজ্জার নজির গড়েছেন তিনি। এ দিকে গাপ্তিল ৩৫ বলে ২৮ রান করে আউট হয়ে যান।

বন্ধ করুন