বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > মেয়েদের IPL নিয়ে মাথা না ঘামিয়ে বিশ্বকাপে মন দিক সবাই, মিতালির বক্তব্যে চাঞ্চল্য
মিতালি রাজ।
মিতালি রাজ।

মেয়েদের IPL নিয়ে মাথা না ঘামিয়ে বিশ্বকাপে মন দিক সবাই, মিতালির বক্তব্যে চাঞ্চল্য

  • ২০২২-এর মার্চ-এপ্রিলে নিউজিল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে আইসিসি মহিলা ওয়ানডে বিশ্বকাপ। যেখানে ভারতীয় দল অন্যতম ফেভারিট। টুর্নামেন্টটি আসলে ২০২১-এ খেলার কথা ছিল। কিন্তু কোভিড মহামারীর কারণে তা পিছিয়ে যায়।

গত কয়েক বছর ধরেই মেয়েদের আইপিএল নিয়ে বিস্তর চর্চা হচ্ছে। এমন খবরও শোনা যাচ্ছে যে, খুব তাড়াতাড়িই এই টুর্নামেন্ট শুরু হতে চলেছে। আসলে ভারত এবং বিশ্বের বহু তারকা ক্রিকেটারই মেয়েদের আইপিএল যাতে শীঘ্রই শুরু করা হয়, তার জন্য সরব হয়েছেন। তবে ভারত অধিনায়ক মিতালি রাজ আবার অন্য কথা বলছেন। তাঁর মতে, মেয়েদের আইপিএল নিয়ে না ভেবে এখন আসন্ন বিশ্বকাপ নিয়ে সকলের ভাবা উচিত।

একটি সংবাদমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে মিতালি বলেছেন, বিসিসিআই সঠিক সময়ে এই টুর্নামেন্টের আয়োজন করবে। তা ছাড়া তিনি মনে করেন, এই টুর্নামেন্ট করা ছাড়াও, বোর্ডের অনেক কিছুর যত্ন নেওয়া উচিত। মিতালির মতে, ‘এই মুহূর্তে, আমি মনে করি আইপিএল নিয়ে কথা বলার পরিবর্তে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ বিশ্বকাপে ফোকাস করা। কারণ এটি একটি বড় ইভেন্ট। এই মুহূর্তে বিশ্বকাপের জন্য দলকে প্রস্তুত করা আমার জন্য গুরুত্বপূর্ণ। দলটি যদি বিশ্বকাপে ভালো করে, তা হলে তা দেশের খেলাধুলার জন্য এবং ভারতীয় প্লেয়ারদের জন্যও একটি বড় উৎসাহের কারণ হবে।’

২০২২-এর মার্চ-এপ্রিলে নিউজিল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে আইসিসি মহিলা ওয়ানডে বিশ্বকাপ। যেখানে ভারতীয় দল অন্যতম ফেভারিট। টুর্নামেন্টটি আসলে ২০২১-এ খেলার কথা ছিল। কিন্তু কোভিড মহামারীর কারণে তা পিছিয়ে যায়। সে যাই হোক, আপাতত মিতালির লক্ষ্য বিশ্বকাপে ভালো পারফরম্যান্স করা। আইপিএল খেলেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বিরাট কোহলিরা যে হতশ্রী পারফরম্যান্স করেছে, তা দেখার পর, মিতালি যেন আরও বেশি সতর্ক। নিঃসন্দেহে মিতালির এই কথার যুক্ত রয়েছে। তবে অনেকেই আবার এর মধ্যে বিতর্কের গন্ধ পাচ্ছে।

অনেকেই মনে করছেন, কোহলিদের খারাপ পারফরম্যান্সের জন্য ঘুরিয়ে তিনি আইপিএল-কে দায়ী করেছেন। আবার অনেকের মতে, ৩৮ বছরের মিতালি নিজে আইপিএলে খেলতে পারবেন না বলেই, সেই টুর্নামেন্ট নিয়ে তাঁর বিশেষ মাথাব্যথা নেই। তবে এটাও ঘটনা, বিশ্বকাপটা যে কোনও দেশের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

বন্ধ করুন