বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > T20 WC-এ শামিকে বাদ দিয়ে বড় ভুল করল ভারত- নেট পাড়ায় ক্ষোভের বিস্ফোরণ
মহম্মদ শামি।

T20 WC-এ শামিকে বাদ দিয়ে বড় ভুল করল ভারত- নেট পাড়ায় ক্ষোভের বিস্ফোরণ

  • এশিয়া কাপে ভারতের বোলিং আক্রমণের অবস্থা খুবই খারাপ ছিল। ভুবনেশ্বর কুমার এই টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রহকারী হলেও, দরকারের সময়ে কাজে লাগেননি। একেবারে দানছত্র খুলে রান বিলিয়েছেন। এর পরেও তিনি রয়েছেন মূল দলে। রিজার্ভে জায়গা হয়েছে শামির।

২০২২ আইপিএলে ১৬ ম্যাচে ২০ উইকেট নিয়ে নজর কেড়েছিলেন মহম্মদ শামি। ইকোনমিরেট ছিল ৮.১০। সেরা বোলিং ২৫ রানে ৪ উইকেট। আর গড় ছিল ১৮.৮৫। এমন কী গুজরাট টাইটান্সকে চ্যাম্পিয়ন করার পিছনে বড় ভূমিকা ছিল তাঁর। তার পরেও ভারতের টি-টোয়েন্টি দলে জায়গা হল না শামির। তাঁকে রাখা হল রিজার্ভ দলে। তবে শামিকে এ ভাবে প্রধান টিমে না রাখাটা মানতে পারছেন না ক্রিকেট ভক্তরা। এর জন্য নেট পড়ায় ক্ষোভ উগড়ে দিচ্ছেন নেটিজেনরা। সকলেরই দাবি, শামিকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দলে না রেখে বড় ভুল করল ভারত।

এশিয়া কাপে ভারতের বোলিং আক্রমণের অবস্থা খুবই খারাপ ছিল। ভুবনেশ্বর কুমার এই টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রহকারী হলেও, দরকারের সময়ে কাজে লাগেননি। একেবারে দানছত্র খুলে রান বিলিয়েছেন। এর পরেও তিনি রয়েছেন মূল দলে। রিজার্ভে জায়গা হয়েছে শামির।

আরও পড়ুন: Asia Cup-এর ব্যর্থতা কাটাতে T20 WC-এর আগে ১১টি ম্যাচ খেলবে ভারত, জেনে নিন সূচি

প্রশ্ন উঠেছে, কেন তাঁর মতো অভিজ্ঞ পেসারকে ব্রাত্য করে রাখা হচ্ছে? শামিকে স্ট্যান্ড বাই ক্রিকেটার হিসেবে রাখা নিয়ে ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তোলপাড় শুরু হয়ে গিয়েছে। ক্রিকেট অনুরাগীরা প্রশ্ন তোলা শুরু করেছে, মূল দলে কেন শামির মতো বোলারকে রাখা হল না?

আরও পড়ুন: দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সিরিজে খেলবেন না রোহিতরা, ফের নতুন অধিনায়ক?

ভারতীয় ধারাভাষ্যকার হর্ষ ভোগলে টিম ম্যানেজমেন্টের এই সিদ্ধান্ত হতবাক। তাঁর মতে, ইন্ডিয়া টিমের উচিত ছিল মহম্মদ শামি ভারতীয় টিমে জায়গা পাওয়ার যোগ্য কিনা সেই চ্যালেঞ্জটা ওকে নিতে দেওয়ার জন্য। জিম্বাবোয়ে সফরে দলে ছিলেন না শামি। ইংল্যান্ড সফরেও তাঁকে রাখেনি টিম ম্যানেজমেন্ট। এমন কী এশিয়া কাপেও ভারতীয় দলে শামিকে রাখা হয়নি। হর্ষের মতে, এই সকল সিরিজ, টুর্নামেন্টে শামিকে রেখে ভারতীয় টিমের দেখা উচিত ছিল, তিনি কেমন পারফর্ম করছেন। আর তাতে যদি তিনি প্রত্যাশা মতো পারফর্ম না করতে পারতেন, তা হলে না হয় তাঁকে বাদ দেওয়া হত। এক প্রকার সুযোগ না দিয়েই স্ট্যান্ড বাইয়ে রেখে কেন বাদ দেওয়া হল শামিকে, উত্তর হাতড়াচ্ছেন ক্রিকেট ভক্তরাও।

২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দলেও ছিলেন মহম্মদ শামি। দুবাইতে ২০২১ সালের ৮ নভেম্বর নামিবিয়ার বিরুদ্ধে দেশের জার্সি গায়ে চাপিয়ে শেষ বার টি-টোয়েন্টি ম্যাচে নেমেছিলেন। কিন্তু তার পর থেকে আইপিএল খেললেও, ভারতের টি-টোয়েন্টি দলে সুযোগ পাননি তিনি। টেস্ট এবং ওয়ান ডে ক্রিকেটে সামিকে খেলানো হলেও, টি-টোয়েন্টিতে তাঁকে আর খেলানো হচ্ছে না। দীর্ঘ দিন ধরে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের বাইরে রয়েছেন ভারতের নির্ভরযোগ্য পেসার। আর এ বার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূল দলেও জায়গা হল না শামির।

বন্ধ করুন