বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > বিশ্বকাপে ফাইনালে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে খেলার যোগ্যতাই ছিল না, কটাক্ষ শোয়েবের

বিশ্বকাপে ফাইনালে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে খেলার যোগ্যতাই ছিল না, কটাক্ষ শোয়েবের

শোয়েব আখতার ও রোহিত শর্মা

শোয়েব আখতার নিজের ইউটিউব চ্যানেলে মন্তব্য করেন 'ভারতের কাছে তো অত্যন্ত দ্রুতগতির পেসারই নেই। দুরন্ত স্পিন করাতে পারে এমন স্পিনারও নেই। দ্বিধাগ্রস্ত দল নির্বাচন নিয়ে ওরা তো বিশ্বকাপ খেলতে গিয়েছিল।

শুভব্রত মুখার্জি: চলতি টি-২০ বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল থেকেই ছিটকে গিয়েছে ভারতীয় দল। সেমিফাইনালে রোহিত শর্মাদের একেবারে খড়কুটোর মতন উড়িয়ে দিয়েছে ইংল্যান্ড দল। আবার অন্যদিকে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে ফাইনালে চলে গিয়েছে প্রতিবেশি দেশ পাকিস্তান। আর এই মুহূর্তটাকেই যেন কাজে লাগিয়েছেন প্রাক্তন পাক পেসার শোয়েব আখতার। ভারতকে খোঁচা দিতে ছাড়েননি তিনি। তাঁর স্পষ্ট বক্তব্য জিম্বাবোয়ে, নেদারল্যান্ডসের মতন দলকে হারিয়ে সেমিফাইনালে ওঠার মধ্যে কোনও কৃতিত্ব নেই। এমনভাবেই রোহিত বাহিনীকে খোঁচা দিতে ছাড়েননি শোয়েব আখতার। কটাক্ষের সুরে তাঁর বক্তব্য আমাদের বিরুদ্ধে মেলবোর্নে ফাইনাল খেলার যোগ্যতাই ওর ছিল না।

শোয়েব আখতার নিজের ইউটিউব চ্যানেলে মন্তব্য করেন 'ভারতের কাছে তো অত্যন্ত দ্রুতগতির পেসারই নেই। দুরন্ত স্পিন করাতে পারে এমন স্পিনারও নেই। দ্বিধাগ্রস্ত দল নির্বাচন নিয়ে ওরা তো বিশ্বকাপ খেলতে গিয়েছিল। ফলে প্রচণ্ড মার (সেমিফাইনালে) খেয়েছে ওরা। পরিস্থিতি অনুযায়ী বল করতে পারেন। পরিস্থিতি ওদের পক্ষে গেলে ওরা ম্যাচ জেতাতে সক্ষম। না হলেই সব জারিজুরি শেষ। তবে ভারতের থেকে সেমিফাইনালে বেশ হতাশাজনক পারফরম্যান্স পেয়েছি আমরা। মেলবোর্নের ফাইনালে ওরা আমাদের বিরুদ্ধে খেলার যোগ্যই ছিল না। কারণ আজ ওদের ক্রিকেট বাজেভাবে সবার সামনে উঠে এসেছে।'

তিনি আরও যোগ করেন 'সেমিফাইনালে যাওয়া আর এমন কি বড় ব্যাপার! চারটে তো মোটে ভালো দল রয়েছে। আর তার মধ্যেই নেদারল্যান্ডসকে হারাও, জিম্বাবোয়েকে হারাও বেশ সেমিফাইনালে পৌঁছে যাবে। ভারতীয় ক্রিকেট তাঁর সবথেকে খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। আইসিসির ইভেন্টে তো ওঁরা কিছুই করে উঠতে পারছে না। ওদের অধিনায়কত্বের বিষয়টিও দেখতে হবে। ম‌্যানেজমেন্টকে দায়িত্ব নিতে হবে। কোথা থেকে হঠাৎ শামিকে উঠিয়ে নিয়ে চলে এল।' উল্লেখ্য ২০১৩ সালে ভারত তাঁদের শেষ আইসিসি ট্রফি জিতেছে। মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বাধীন ভারতীয় দল সেবার চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জিতেছিল ইংল্যান্ডের মাটিতে।

বন্ধ করুন