বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > পাকিস্তানকে কেউ আটকাতে পারবে না- বাবরদের নিয়ে নিশ্চিত ইনজামাম

পাকিস্তানকে কেউ আটকাতে পারবে না- বাবরদের নিয়ে নিশ্চিত ইনজামাম

পাকিস্তান দলকে নিয়ে ইনজামাম উল হকের বড় দাবি

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে ওঠার আগে বাবরের নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান আইসিসি ইভেন্টের সেমিফাইনালে কেন উইলিয়ামসনের নেতৃত্বাধীন নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে একটি জয় নিশ্চিত করেছে।

বাবর আজমের নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান দলকে নিয়ে বড় দাবি করলেন কিংবদন্তি পাকিস্তানি ক্রিকেটার ইনজামাম-উল-হক। ২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনাল বার্থ নিশ্চিত করেছেন মহম্মদ রিজওয়ান-বাবর আজমরা। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে ওঠার আগে বাবরের নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান আইসিসি ইভেন্টের সেমিফাইনালে কেন উইলিয়ামসনের নেতৃত্বাধীন নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে একটি জয় নিশ্চিত করেছে। 

আরও পড়ুন… IPL-এ ভারতীয় তরুণরা এত পয়সা পাচ্ছে যে ভালো খেলার খিদে মরে যাচ্ছে, দাবি আক্রমের

এই জয়ের পরে এবং পাকিস্তান দল ফাইনাল ওঠার পরে নিজের ইউটিউব চ্যানেলে বাবর আজমদের নিয়ে বড় মতামত দিয়েছেন ইনজামাম উল হক। তিনি বলেছেন, ‘পাকিস্তানকে এই মুহূর্তে অপ্রতিরোধ্য মনে হচ্ছে। টুর্নামেন্টে তাদের বোলিং ভালো হয়েছে। মিডল অর্ডার পারফর্ম করতে শুরু করেছে (এই বিশ্বকাপে), কিন্তু টপ-অর্ডার ছিল না। আজ সেটাও জায়গায় পড়ে গেছে। সবকিছুই ঠিক আছে মনে হচ্ছে। এখন সবটাই আমাদের পক্ষে। আমি মনে করি পাকিস্তানকে এখন জয় থেকে কেউ আটকাতে পারবে না।’

আরও পড়ুন… আমরা আমাদের স্বপ্ন পূরণ করতে পারিনি- সেমিতে হেরে হতাশ কোহলি

কিংবদন্তি পাকিস্তানি ব্যাটার এবং গ্রিন আর্মির প্রাক্তন অধিনায়কও বাবরের প্রশংসা করেছেন। যিনি বিশ্বকাপ ফাইনালে পাকিস্তানের বার্থ সিল করেছিলেন। বুধবার সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে (এসসিজি) উইলিয়ামসনের নেতৃত্বাধীন নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে পাকিস্তানের ৭ উইকেটের জয়ে পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর ৪৩ বলে ৫৩ রান করেন এবং উইকেটরক্ষক-ব্যাটার রিজওয়ান সর্বোচ্চ ৫৭ রান করেন।

ইনজামাম উল হক বলেন, ‘বাবর হয়তো আগের ম্যাচে ব্যাটসম্যান হিসেবে পারফর্ম করতে পারছিলেন না। কিন্তু একজন নেতা হিসেবে তাঁকে কৃতিত্ব দিতেই হবে। তিনি দলকে ভেঙে পড়তে দেননি। পরিসংখ্যান আপনাকে এই সব বলবে না, তবে এই দিকগুলোও গুরুত্বপূর্ণ। ছেলেরা ঝাঁপিয়ে পড়ে। এমনকি যখন মনে হচ্ছিল তারা সেমিফাইনালে পৌঁছাতে পারবে না। সাকলিন (মুস্তাক), (মহম্মদ) ইউসুফ এবং (ম্যাথিউ) হেডেন - সাপোর্ট স্টাফরাও এখানে কৃতিত্বের দাবিদার।’

বন্ধ করুন