বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > Pakistan fans disappointed: ভারতের বিরুদ্ধে হারল বাংলাদেশ, মেনে নিলেন শাকিব, কেঁদে ভাসাল পাকিস্তান!

Pakistan fans disappointed: ভারতের বিরুদ্ধে হারল বাংলাদেশ, মেনে নিলেন শাকিব, কেঁদে ভাসাল পাকিস্তান!

ভারতের বিরুদ্ধে হারল বাংলাদেশ, মেনে নিলেন শাকিব, কেঁদে ভাসাল পাকিস্তান! (ছবি সৌজন্যে এপি এবং আইসিসি ফাইল)

Pakistan fans disappointed: ভারত-বাংলাদেশ ম্যাচের পর রীতিমতো হা-হুতাশ করলেন পাকিস্তানের সমর্থকরা। সেইসঙ্গে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) এবং আইসিসির বিরুদ্ধে ভারতকে সুবিধা পাইয়ে দেওয়ার অভিযোগ তুললেন।

জিতল ভারত। হারল বাংলাদেশ। যে নিয়মে খেলতে হবে, সেই নিয়ম মেনে নিলেন বাংলাদেশের শাকিব আল হাসান। অথচ কেঁদে ভাসাচ্ছেন পাকিস্তানের সমর্থকরা। রীতিমতো হা-হুতাশ করলেন তাঁরা। সেইসঙ্গে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) এবং আইসিসির বিরুদ্ধে ভারতকে সুবিধা পাইয়ে দেওয়ার অভিযোগ তুললেন।

বুধবার বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে বাংলাদেশকে পাঁচ রানে হারিয়ে দিয়েছে ভারত। যে জয়টা ভারতের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ছিল। যদিও একটা সময় বাংলাদেশ কার্যত ছুটছিল। ভারতের ১৮৫ রানের লক্ষ্যমাত্রা (রিকোয়ার্ড রেট ৯.২৫) তাড়া করতে নেমে সাত ওভারে স্কোর ছিল বিনা উইকেটে ৬৬ রান। তারপর বৃষ্টি শুরু হয়েছিল। সেইসময় ডাকওয়ার্থ লুইস নিয়মে বাংলাদেশ ১৭ রানে এগিয়েছিল।

পরে ফের ম্যাচ শুরু হয়। ১৬ ওভারে বাংলাদেশের লক্ষ্যমাত্রা দাঁড়ায় ১৫১ রান (রিকোয়ার্ড রেট ৯.৪৩)। অর্থাৎ ন'ওভারে ৮৫ রান দরকার ছিল (রিকোয়ার্ড রেট ৯.৪৪)। কিন্তু পা পিছলে লিটন দাস রান-আউট হওয়ার পরই খেলা ঘুরে যায়। লিটন আউট হওয়ার পর কোনও বাংলাদেশি ব্যাটার দাঁড়াতে পারেননি। শেষপর্যন্ত ১৬ ওভারে ছয় উইকেট হারিয়ে ১৪৫ রানের বেশি তুলতে পারেনি বাংলাদেশ।

তাতেই চটেছেন পাকিস্তানের নেটিজেনদের একাংশ। আচমকা বাংলাদেশের ক্রিকেটার, সমর্থকদের প্রতি 'সহানুভূতি' (ভারতীয়দের অবশ্য দাবি, নিজেদের স্বার্থেই বাংলাদেশের হয়ে ফাটাচ্ছিলেন পাকিস্তানিরা) জানাতে থাকেন। ফারিদ খান নামে এক পাকিস্তানি সাংবাদিক বলেন, 'আমার মাথায় কখনও এটা ঢুকবে না, যে দলটা ডাকওয়ার্থ লুইস নিয়মে ১৭ রানে এগিয়ে ছিল, হাতে ১০ উইকেট ছিল এবং বৃষ্টি থামার পর কীভাবে একটা আগের থেকে রিকোয়ার্ড রেট বেশি হয়ে গেল! বাংলাদেশের ক্রিকেটার এবং সমর্থকরা নিশ্চয়ই হতাশ হবেন।'

আরও পড়ুন: How can Pakistan qualify to Semi-Final: টানা ৩ দিন হৃদয়ভঙ্গ! সেমিফাইনালে উঠতে পাকিস্তানের ভরসা অঘটন ও বৃষ্টি

সেখানেই থামেননি ওই পাকিস্তান সাংবাদিক। তিনি বলেন, 'বৃষ্টির পর নিশ্চিতভাবে ব্যাটিং সহজ হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু প্রশ্নটা হল, যখন আউটফিল্ড ভিজে ছিল, তখন খেলোয়াড়দের কেন নামতে বলা হল? ওই সময় যদি খেলা শুরু না হত, তাহলে বাংলাদেশ জিতে যেত। ৩০ মিনিট দেরিতে খেলা শুরু হলে ওদের ১৮ বলে ২৩ রান তাড়া করতে হত।' আরও এক পাকিস্তানি সাংবাদিক ইতহিশাম উল হক বলেন, 'কী লজ্জাজনক (কাজ) ম্যাচ রেফারির! ভিজে পিচ।'

তাতে অবশ্য পালটা দেন এক ভারতীয় নেটিজেন। ওই ভারতীয় নেটিজেন স্পষ্ট ভাষায় বলেন, 'পিচ ভিজে ছিল না। আদতে ভিজে আউটফিল্ড ছিল। তাতে ফিল্ডিং টিমের ক্ষতি হয়। কারণ ফিল্ডারদের পা পিছলে যাবে। বোলাররা বল গ্রিপ করতে পারবেন না। ক্রিকেটের এই প্রাথমিক জ্ঞানও নেই, আর আপনি নাকি সাংবাদিক।'

আরও পড়ুন: Shakib Al Hasan's reaction: বাংলাদেশের নদী নিয়ে ‘উত্তেজিত’ হয়ে কথা বলছিলেন আম্পায়ারের সঙ্গে? বাউন্সার শাকিবকে

সেই যুক্তি অবশ্য অনেক পাকিস্তানি মানতে চাননি। বরং তাঁরা আইসিসির বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ তোলেন। বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থার উপর ভারতীয় বোর্ড ছড়ি ঘোরাচ্ছে বলেও অভিযোগ তোলেন অনেকে। তেমনই এক পাকিস্তানি বলেন, 'আমি যদি ভারতীয় সমর্থক হতাম, তাহলে নিজেকে ঘৃণা করতাম। আপনার দেশকে জেতানোর জন্য সবকিছু সাজানো হয়েছে জেনেও কীভাবে ক্রিকেট উপভোগ করতেন? তাও প্রায় ১০ বছরে ওরা কোনও আইসিসি ট্রফি জেতেনি।'

ভিজে আউটফিল্ড এবং অবিচারের দাবি তুলে পাকিস্তানিরা ‘সমব্যথী’ হলেও বাংলাদেশ অধিনায়ক স্পষ্ট বলে দিয়েছেন, ‘(আউটফিল্ডে) পা কিছুটা পিছলে যাচ্ছিল। যে পরিমাণ বৃষ্টি হয়েছে, তাতে পা কিছুটা পিছলে যাচ্ছিল। বোলিং দলের তুলনায় তাতে সাধারণত ব্যাটিং করা দল সুবিধা পায়। সেটা অজুহাত হিসেবে দেখাতে চাই না।’

বন্ধ করুন