বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > ফাটল বাজি, চলল উদ্দাম নাচ - পাকিস্তানের হারে উচ্ছ্বাস বালোচিস্তান, আফগানিস্তানে
ফাটল বাজি, চলল উদ্দাম নাচ - পাকিস্তানের হারে উচ্ছ্বাস বালোচিস্তান, আফগানিস্তানে। (ছবি সৌজন্য এএনআই এবং টুইটার ভিডিয়ো)
ফাটল বাজি, চলল উদ্দাম নাচ - পাকিস্তানের হারে উচ্ছ্বাস বালোচিস্তান, আফগানিস্তানে। (ছবি সৌজন্য এএনআই এবং টুইটার ভিডিয়ো)

ফাটল বাজি, চলল উদ্দাম নাচ - পাকিস্তানের হারে উচ্ছ্বাস বালোচিস্তান, আফগানিস্তানে

  • দেখুন সেই ভিডিয়ো।

কেউ ফাটালেন বাজি। কেউ আবার উদ্দামের মতো নাচলেন। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়া বিরুদ্ধে পাকিস্তান হেরে যাওয়ার পর এমনই দৃশ্যের সাক্ষী থেকে বালোচিস্তান থেকে আফগানিস্তান। সেইসব জায়গায় রীতিমতো পাকিস্তানের হারকে উদযাপন করা হল। এমনটাই দাবি করেছেন আফগানিস্তানের এক সাংবাদিক।

হাবিব খান নামে আফগানিস্তানের ওই সাংবাদিক টুইটারে একটি ভিডিয়ো (পৃথকভাবে সত্যতা যাচাই করেনি হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা) পোস্ট করে লেখেন, ‘ক্রিকেট বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিব্রতকর হারের পর খোস্তে আফগানরা (নাচছেন)। এটাই হল আফগান ঘরানা। সঙ্গে আছে আটান (ঐতিহ্যবাহী নৃত্য)।’ সেই ভিডিয়োয় দেখা গিয়েছে, প্রবল জোরে গান চলছে। সঙ্গে একদল আফগান ঘুরে ঘুরে নাছেন। রীতিমতো উচ্ছ্বসিত দেখাচ্ছে তাঁদের। একই ছবি ধরা পড়েছে জালালাবাদে। ওই আফগান সাংবাদিকের দাবি পাকিস্তানের হারের পর সেখানে প্রচুর বাজি ফাটানো হয়। সঙ্গে চলতে থাকে উচ্ছ্বাস। সেই বাজি ফাটানোর ভিডিয়োও (পৃথকভাবে সত্যতা যাচাই করেনি হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা) টুইট করেছেন আফগান সাংবাদিক।

পাকিস্তান-অধ্যুষিত বালোচিস্তানেও বাবর আজমদের হারকে উদযাপন করা হয়। ওই আফগান সাংবাদিকের টুইট করা ভিডিয়োয় (পৃথকভাবে সত্যতা যাচাই করেনি হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা) দেখা গিয়েছে, শাহিন আফ্রিদির বলে ম্যাথ ওয়েডের স্কুপ বাউন্ডারির বাইরে পড়তেই উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়েন একদল মানুষ। তারস্বরে চেঁচাতে থাকেন। উঠে পড়েন চেয়ারে। সঙ্গে তিনি লিখেছেন, ‘পাকিস্তানের ক্লাবকে কটাক্ষ করতে এবং সন্ত্রাসে মদত দেওয়া দেশের (পড়ুন পাকিস্তান) বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়ার জয়কে উদযাপন করছেন বালোচরা।’

এমনিতে বৃহস্পতিবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে পাঁচ উইকেটে হেরে গিয়েছে পাকিস্তান। দুবাইয়ে প্রথমে ব্যাট করে চার উইকেটে ১৭৬ রান তোলেন মহম্মদ রিজওয়ানরা। রান তাড়া করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় অস্ট্রেলিয়া। একটা সময় মনে হচ্ছিল যে পাকিস্তানই যাচ্ছে ফাইনালে। কিন্তু অন্য পরিকল্পনা ছিল ম্যাথু ওয়েড এবং মার্কাস স্টইনিসের। মাত্র ১৭ বলে অপরাজিত ৪১ রান করেন ওয়েড। যিনি ১৯ তম ওভারে শাহিন আফ্রিদিকে পরপর তিনটি ছক্কা মেরে খেলা শেষ করে দেন। ৩১ বলে ৪০ রান করেন স্টইনিস।

বন্ধ করুন